• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণার পরেই খুলল ফুলবাজার, তবে এখনই বাজার চাঙ্গা হওয়ার আশা নেই

মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণার পরেই খুলল ফুলবাজার, তবে এখনই বাজার চাঙ্গা হওয়ার আশা নেই

ফুলের বাজার বন্ধ থাকায় মালদহে চরম সমস্যার মধ্যে পড়েছে ফুল ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত প্রচুর লোকজন। প্রথম দিন বাজারে গাঁদা ফুল, জবা ফুল বেশি চোখে পড়ে।

ফুলের বাজার বন্ধ থাকায় মালদহে চরম সমস্যার মধ্যে পড়েছে ফুল ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত প্রচুর লোকজন। প্রথম দিন বাজারে গাঁদা ফুল, জবা ফুল বেশি চোখে পড়ে।

ফুলের বাজার বন্ধ থাকায় মালদহে চরম সমস্যার মধ্যে পড়েছে ফুল ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত প্রচুর লোকজন। প্রথম দিন বাজারে গাঁদা ফুল, জবা ফুল বেশি চোখে পড়ে।

  • Share this:

#মালদহ: মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণার পরপরই মালদহে খুলে গেল ফুল বাজার। বুধবার সকাল থেকেই মালদহ শহরের রথবাড়ি মোড় এবং অতুল মার্কেট এলাকায় দুইটি বড় ফুলের বাজার খোলা হয়। সকাল থেকেই শুরু হয় কেনাকাটা। তবে প্রথম দিন তেমন ভিড় চোখে পড়েনি।

ফুলের বাজার বন্ধ থাকায় মালদহে চরম সমস্যার মধ্যে পড়েছে ফুল ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত প্রচুর লোকজন। প্রথম দিন বাজারে গাঁদা ফুল, জবা ফুল বেশি চোখে পড়ে। তবে গোলাপ ফুল, রজনীগন্ধার মতন অনেক ফুলই অমিল ছিল। সরকারি সিদ্ধান্তে খুশি ছোট ফুল চাষি ও ব্যবসায়ীরা। স্থানীয়ভাবে যারা গাঁদা ফুল ও জবা ফুলের চাষ করছেন তাঁরা এরফলে ফের রোজগারের সম্ভবনা দেখছেন।

তবে জেলার বড় ফুল ব্যবসায়ীরা অধিকাংশই বলছেন, বাইরে থেকে ফুল না আসায় এখনই ফুলের বাজার চাঙ্গা হওয়ার আশা নেই। কারন,  মালদহে মূলতঃ হাওড়া, কৃষ্ণনগর, রানাঘাট প্রভৃতি এলাকা থেকে ফুল আসে। গাড়ি চলাচল বন্ধ থাকায় বাইরে থেকে ফুল আসছে না।

তাছাড়া লকডাউন পরিস্থিতিতে আগামী ১ বৈশাখ, বিয়ের একাধিক অনুষ্ঠান ইতিমধ্যেই বাতিল হয়ে গিয়েছে। ফলে ইতিমধ্যেই যথেষ্ট লোকসানের মুখে পড়তে হয়েছে। শুধুমাত্র গাঁদা বা জবা ফুল বিক্রির জন্য দোকান খোলা লাভজনক নয় বলেও মত জেলার ফুল ব্যবসায়ীদের একাংশের।

Published by:Arindam Gupta
First published: