• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • FIR AGAINST BJP MP JOHN BARLA DARJEELING MP RAJU BISTA SUPPORT HIM ON SEPARATE NORTH BENGAL ISSUE SB

Separate North Bengal: বিজেপি সাংসদ রাজু বিস্তের মুখেও উত্তরবঙ্গের 'অধিকার', FIR জন বার্লার বিরুদ্ধে

আলোচনায় উত্তরবঙ্গ

Separate North Bengal: জন বার্লার দাবির মধ্যেই রাজু বিস্তের মন্তব্য বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। তিনি বলেন, 'গোর্খাল্যান্ডের বিষয়ে ২০১৯য়ের ভোটে, ২০২১-এর ভোটে বিজেপি সঙ্কল্পপত্রে লিখে দিয়েছে।'

  • Share this:

    #আলিপুরদুয়ার: উত্তরবঙ্গকে বাংলা থেকে বিচ্ছিন্ন করে পৃথক রাজ্য বা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল ঘোষণার দাবিতে এখনও অনড় রয়েছেন বিজেপি সাংসদ জন বার্লা (John Barla)৷ এবার তারই মধ্যে কার্যত জন বার্লার পাশেই দাঁড়ালেন দার্জিলিংয়ের বিজেপি সাংসদ রাজু বিস্ত (Raju Bista)। তিনি আবার খুঁচিয়ে তুলেছেন গোর্খাল্যান্ড প্রসঙ্গ। এরই মধ্যে দিনহাটা থানায় জন বার্লার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। উত্তরবঙ্গকে অশান্ত করার অভিযোগ আনা হয়েছে জন বার্লার বিরুদ্ধে।

    কিন্তু জন বার্লার দাবির মধ্যেই রাজু বিস্তের মন্তব্য বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। তিনি বলেন, 'গোর্খাল্যান্ডের বিষয়ে ২০১৯য়ের ভোটে, ২০২১-এর ভোটে বিজেপি সঙ্কল্পপত্রে লিখে দিয়েছে। দার্জিলিং পাহাড়, তরাই ডুয়ার্সের স্থায়ী রাজনৈতিক সমাধান করতে চায় বিজেপি। এটা রাজনৈতিক সমস্যা। তাই রাজনৈতিক সমাধানই আমরা করব। এটা একেবারে ছাপার অক্ষরে লিখে বিজেপি দিয়েছে। আমাদের এলাকার লোকজনের, বিজেপির নেতাদের উপর, সরকারের উপর, মোদিজির উপর, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর উপর পুরো বিশ্বাস আছে।'

    এখানেই শেষ নয়, জন বার্লার পাশে দাঁড়িয়েই রাজু বিস্ত বলেন, ‘জন বার্লা আমার বন্ধু। তিনি একজন দায়িত্ববান নেতা। তিনি যা বলেছেন, তার উত্তর তিনি দেবেন। আমি এটুকু বলতে পারি বাস্তবেই উত্তরবঙ্গ দীর্ঘদিন ধরেই উপেক্ষিত। দীর্ঘ ৪৫ বছর ধরে উত্তরবঙ্গে শুধু লুঠপাট করা হয়েছে। এখানকার চা বাগান আজ বন্ধ হয়েছে। উত্তরবঙ্গ আলাদা রাজ্য করা হবে কিনা, সেটা এখন বলার সময় নয়। উপযুক্ত জায়গা পেলে উত্তরবঙ্গের অধিকার নিয়ে আমি আওয়াজ তুলবই।'

    এই পরিস্থিতিতে গা বাঁচিয়ে চলার চেষ্টা করছে রাজ্য বিজেপি। জন বার্লার মন্তব্য ব্যক্তিগত বলে দাবি করে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, 'আমরা কেউ বাংলা ভাগ চাই না। বাংলার সার্বিক উন্নয়নই আমাদের লক্ষ্য। কিন্তু উত্তরবঙ্গের যে কোনও উন্নয়ন হয়নি, তা স্পষ্ট। জন বার্লা সেই কথাই বলেছেন।' অপরদিকে, রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী বলেন, 'দলের যা বক্তব্য তা দিলীপ ঘোষ বলেছেন। কিন্তু জন বার্লা যা বলছেন, তা তো মিথ্যে নয়। আমরা যারা গ্রামের বিধায়ক, তাঁরা বলছি জঙ্গলমহল, সুন্দরবন সবকিছুই অবহেলিত।' অর্থাৎ, সরাসরি পৃথক উত্তরবঙ্গের দাবি মুখে না আনলেই আঞ্চলিক বঞ্চনার বিষয়টিকে যে বিজেপি বড় করে তুলে ধরতে চাইছে, তা স্পষ্ট।

    এরই মধ্যে জন বার্লার বিরুদ্ধে এফআইআর করেছে তৃণমূল। আলিপুরদুয়ারের সাংসদ বারবার দাবি করছেন, সাধারণ মানুষের সুরক্ষা এবং জাতীয় নিরাপত্তার কথা ভেবেই পৃথক উত্তরবঙ্গের দাবি তুলেছেন তিনি৷ প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং রাষ্ট্রপতির কাছেও তিনি এই দাবি জানাবেন বলে দাবি করেছেন বিজেপি সাংসদ৷ আর এই ধরনের মন্তব্য করে তিনি এলাকায় অশান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করছেন বলে পাল্টা এফআইআর-এর দ্বারস্থ হয়েছে তৃণমূল।

    Published by:Suman Biswas
    First published: