রামায়ণ ম্যাজিক, ড্রইংরুমে একসঙ্গে টিভিতে চোখ সেঁটে ঘরবন্দীদের

প্রথম দিনেই রামায়ণ দেখতে যথেষ্ট সাড়া পরে। এমনকি বিভিন্ন কেবল অপারেটরদের কাছে ফোন করে কত নম্বর চ্যানেলে রামায়ণ দেখানো হচ্ছে তা নিয়ে ঘনঘন জানতে চান অনেক গ্রাহক।

প্রথম দিনেই রামায়ণ দেখতে যথেষ্ট সাড়া পরে। এমনকি বিভিন্ন কেবল অপারেটরদের কাছে ফোন করে কত নম্বর চ্যানেলে রামায়ণ দেখানো হচ্ছে তা নিয়ে ঘনঘন জানতে চান অনেক গ্রাহক।

  • Share this:

Sebak DebSarma

#মালদহ: লকডাউনে মালদহে একসঙ্গে  টিভি সেটে চোখ তিন প্রজন্মের, রামায়ণ দেখে  সময়  কাটিয়ে খুশি সকলেই । এক সময় রামায়ণ দেখার জন্য ফাঁকা হয়ে যেত রাস্তাঘাট, ঘরবন্দি হতেন দেশের মানুষ। আর এখন লকডাউন পরিস্থিতিতে সময় কাটানোর রসদ হিসেবে হাজির রামায়ণ। সকাল থেকে ড্রইংরুমে পরিবারের সকলের চোখ টিভি সেটে। সময় কাটানোর ভাল উপায় রামায়ণল বলছেন মালদহের দর্শকরা।

লকডাউন পরিস্থিতিতে কিভাবে সময় কাটাবেন তা নিয়ে অনেকেই ভেবে কূলকিনারা পাচ্ছিলেন না। এই অবস্থায় শনিবার থেকে নতুন করে শুরু হয়েছে রামায়ণ দেখানো। মালদহের বড় অংশের মানুষ এদিন টিভিতে রামায়ণ দেখে সকাল কাটান । প্রথম দিনেই রামায়ণ দেখতে যথেষ্ট সাড়া পরে। এমনকি বিভিন্ন কেবল অপারেটরদের কাছে ফোন করে কত নম্বর চ্যানেলে রামায়ণ দেখানো হচ্ছে তা নিয়ে ঘনঘন জানতে চান অনেক গ্রাহক। অনেকেরই মতে বেশিরভাগ দিনই সকালের দিকে রাস্তাঘাটে বের হচ্ছেন লোকজন। দৈনিক বাজার থেকে গুরুত্বপূর্ণ এলাকাগুলোতে মাঝেমধ্যে ভিড় জমে যাচ্ছে । কারণ কিভাবে সময় কাটাবেন তা নিয়ে সমস্যায় পড়ছেন অনেকেই।

এই অবস্থায় স্বভাবসুলভ ভাবেই অনেকে রাস্তায় বের হচ্ছিলেন। অনেককেই রাস্তায় বের হয়ে পুলিশের লাঠির মুখে পড়তে হচ্ছিল। এই অবস্থায় রামায়ণ মানুষকে গৃহবন্দি করতে কতটা সফল হবে তা নিয়ে শুরু হয়ে গিয়েছে জল্পনা। তবে এদিনই যা সাড়া পাওয়া গিয়েছে তাতে হোয়াটসঅ্যাপ , ফেসবুক, সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে রামায়ণ এর কার্যকারিতা প্রমাণিত। কারণ মালদায় প্রচুর মানুষ এদিন শুধুমাত্র রামায়ণের কারণেই সকালের দিকে বাড়ি থেকে বের হননি।

Published by:Simli Raha
First published: