মৃত মেয়ের শরীর ওঝার কাছে নিয়ে গিয়ে ঝাঁড়ফুক করে বাঁচানোর চেষ্টা পরিবারের

মৃত মেয়ের শরীর ওঝার কাছে নিয়ে গিয়ে ঝাঁড়ফুক করে বাঁচানোর চেষ্টা পরিবারের
photo source collected

বেহুলা বা লখীন্দর শুধু কোনও পৌরাণিক গল্প হয়ে থাকবে কেন ! কিছু মানুষের ধারণা এভাবেও মৃত শরীরে প্রাণ ফিরে আসতে পারে।

  • Share this:

#আলিপুরদুয়ার: প্রতিদিন এগোচ্ছে বিজ্ঞান। এগোচ্ছে দেশ। ভারতের মাটি থেকেই উড়ছে চন্দ্রযান ২। চাঁদের মাটিও আর বেশি দূরে নয়। তবুও এখনও কিন্তু দেশের সব জায়গায় শিক্ষার আলো পৌঁছায়নি। মানুষ ডুবে রয়েছেন অন্ধ বিশ্বাসে। আর এই অন্ধ বিশ্বাস যে কতটা ঘিরে রয়েছে কিছু মানুষকে তা আর একবার প্রমান করলেন আলিপুরদুয়ারের মাঝেরডাবরি এলকার এক পরিবার ও এলাকার বাসিন্দারা।

১৮ মাসের এক শিশু কন্যাকে শুক্রবার সন্ধ্যেবেলা সাপে কাটে। তখন শিশুটিকে নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে। কিন্তু হাসপাতালে শিশুকন্যার মৃত্যু হয়। তবে এই মৃত্যুকে মানতে নারাজ তাঁর পরিবারের সদস্যরা। তাঁরা বাচ্চাটিকে নিয়ে যায় এক ওঝার কাছে। মৃত বাচ্চাটির ঝাঁড়ফুক শুরু করেন ওঝা। মৃত শরীরে প্রাণ ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলে। একেবারে ৯০এর দশকের বাংলা সিনেমা। তখন দেখানো হত মৃত্যুর পর প্রাণ ফিরে পেত এভাবে অনেকে। বেহুলা বা লখীন্দর শুধু কোনও পৌরাণিক গল্প হয়ে থাকবে কেন ! কিছু মানুষের ধারণা এভাবেও মৃত শরীরে প্রাণ ফিরে আসতে পারে। ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই শোরগোল শুরু হয়ে যায়। সকলে অবাক হয়ে যায় এই ঘটনায়। ঘটনাস্থলে যায় বিজ্ঞান মঞ্চের সদস্যরা।

First published: September 7, 2019, 5:52 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर