• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • FAKE POLICE OFFICER ARRESTED FROM MALDA CAUGHT RED HANDED WHILE SNATCHING MOBILE FROM A MIGRANT LABOUR SDG

Malda News|| নিরাপত্তারক্ষী সঙ্গে নিয়ে ছিনতাই করছিলেন! যুবকের গ্রেফতারিতে কেঁচো খুঁড়তে বেরলো কেউটে!

ধৃত 'ভুয়ো পুলিশ' আকাশ সাহা।

Fake Police Officer Arrested from Malda: মালদহে ভুয়ো পুলিশ আধিকারিক গ্রেফতার। পুলিশ পরিচয় দিয়ে ছিনতাই করে বিপত্তি! গ্রেফতার অভিযুক্ত যুব তৃণমূল নেতা আকাশ সাহা। আরেক অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ।

  • Share this:

#মালদহ: মালদহে ভুয়ো পুলিশ আধিকারিক গ্রেফতার। পুলিশ পরিচয় দিয়ে ছিনতাই করে বিপত্তি! গ্রেফতার অভিযুক্ত যুব তৃণমূল নেতা আকাশ সাহা। আরেক অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ। মালদহ টাউন স্টেশনের কাছে ঝলঝলিয়া এলাকায় পাঁচ পরিযায়ী শ্রমিকের কাছ থেকে মোবাইল ফোন ছিনতাইয়ের অভিযোগ উঠেছে আকাশ সাহা নামে ওই যুবকের বিরুদ্ধে। উত্তর দিনাজপুরের কালিয়াগঞ্জের বাসিন্দা ওই পাঁচ পরিযায়ী শ্রমিকদের অভিযোগের ভিত্তিতে আকাশ সাহাকে গ্রেফতার করেছে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, বেশ কিছুদিন ধরেই 'ব্যক্তিগত' নিরাপত্তা রক্ষী সঙ্গে নিয়ে ঘুরছিলেন ওই যুবক। পুলিশ পরিচয় দিয়ে চলছিল তোলাবাজি। ধরা পড়ার পর নিজেকে যুব তৃণমূলের রাজ্য নেতা বলে পরিচয় দেন ওই যুবক। আগেও শাসক দলের নেতা পরিচয় দিয়ে একাধিক পুলিশ আধিকারিকের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরির চেষ্টা করেন। ছিনতাইয়ের অভিযোগে ধরা পড়ার পর পুলিশ প্রাথমিক তদন্তে জেনেছে ওই যুবকের বিরুদ্ধে আগেও বেশ কিছু অপরাধের অভিযোগ রয়েছে। সরকারি আধিকারিককে অপহরণ-সহ একাধিক অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। ঘটনার পর থেকেই ওই যুবকের ব্যক্তিগত নিরাপত্তারক্ষী পলাতক। তার খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ। ধৃত যুবক নিজেকে ইংরেজবাজার থানার ইন্সপেক্টর বলে পরিচয় দিয়েছিলেন বলে অভিযোগ। ধৃতের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ।

ওটাই প্রথমবার নয়। এর আগেও রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় ভুয়ো আইএএস, আইপিএস আধিকারিক গ্রেফতারের ঘটনা ঘটেছে। তবে এ বার মালদহে শাসকদলের যুবনেতার নাম জড়ানোয় অস্বস্তিতে তৃণমূল শিবির। এর আগে ভূমি ও ভূমি সংস্কার দফতরের এক সরকারি আধিকারিককে তুলে এনে আটকে রাখার অভিযোগ ছিল ধৃতের বিরুদ্ধে। তার বাড়ির সিসিটিভি খতিয়ে দেখছে পুলিশ। কী কারণে ওই যুবক ব্যক্তিগত নিরাপত্তা রক্ষী রেখেছিলেন তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, ধরা পড়ার পর নিজেকে তৃণমূলের অন্যতম এক শীর্ষ নেতার ঘনিষ্ঠ বলে দাবি করেন ওই যুবক। সরকারি নিরাপত্তারক্ষী পাওয়ার কথা বলেন তিনি। তার সঙ্গে থাকা নিরাপত্তারক্ষী পুলিশকর্মী কিনা তা জানতেও খোঁজখবর চালায় পুলিশ। এরপর এই ভুয়ো পুলিশ অফিসার পরিচয় দেওয়ার বিষয়টি আরও স্পষ্ট হয়। মালদহের পুলিশ সুপার অলোক রাজরিয়া বলেন, অভিযোগ অত্যন্ত গুরুতর। ওই যুবকের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ সামনে এসেছে। নিজেকে পুলিশ পরিচয় দিয়েছিলেন তিনি। ধরা পড়ার পর নিজেকে তৃণমূলের নেতা বলে পরিচয় দেন। জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা শুরু করা হয়েছে। কড়া পদক্ষেপ নেবে পুলিশ। পুলিশ পরিচয় দিয়ে শাসক দলের নেতা ধরা পড়ার ঘটনায় কটাক্ষ করেছে জেলা বিজেপি। যদিও কেউ অন্যায় করলে পুলিশ আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা যাবে বলে জানিয়েছেন মালদহ জেলা তৃণমূল চেয়ারম্যান তথা বিধায়ক সমর মুখোপাধ্যায়।

Sebak DebSarma

Published by:Shubhagata Dey
First published: