• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • FAKE CERTIFICATES SUBMITTED IN MALDA FOR DAK SEVAK JOB IN INDIAN POSTAL DEPARTMENT DMG

Malda: ডাক বিভাগে চাকরি পেতে কারসাজি, ভুয়ো সার্টিফিকেট জমা দিয়ে নজরে ১৫ জন

প্রতীকী ছবি৷

সম্প্রতি মালদহ জেলা ডাক ডিভিশনে গ্রামীণ ডাক সেবক পদে নিয়োগ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি জারি হয়। শতাধিক শূন্যপদের জন্য এই বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয় (Malda)।

  • Share this:

#মালদহ: ভুয়ো সার্টিফিকেট দিয়ে চাকরিতে আবেদন মালদহে। কেন্দ্রীয় সরকারের গ্রামীণ ডাক সেবক পদে চাকরিপ্রার্থীদের একাধিক সার্টিফিকেট ভুয়ো। সফল চাকরিপ্রার্থীদের সার্টিফিকেট ভেরিফিকেশন করতে গিয়ে ধরা পড়ল চাঞ্চল্যকর তথ্য। এক বা দু'টি আবেদনপত্র নয়। মালদহ জেলা ডাক ডিভিশনে ভুয়ো সার্টিফিকেট দিয়ে ১৫ জন চাকরির আবেদন করেছেন বলে প্রমাণ মিলেছে ।

ঘটনায় মালদহের পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ ডাক বিভাগের । ওই চাকরি প্রার্থীদের বিরুদ্ধে এফআইআর করে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন মালদহের পুলিশ সুপার। তদন্তে দোষী প্রমাণিত হলে ভুয়ো সার্টিফিকেট দাখিল করা চাকরিপ্রার্থীদের গ্রেপ্তার করা হবে বলে জানিয়েছেন মালদহের পুলিশ সুপার অলোক রাজরিয়া ।

সম্প্রতি মালদহ জেলা ডাক ডিভিশনে গ্রামীণ ডাক সেবক পদে নিয়োগ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি জারি হয়। শতাধিক শূন্যপদের জন্য এই বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। কয়েকশো কর্মপ্রার্থী এই পদের জন্য প্রয়োজনীয় সার্টিফিকেট জমা দেয় । আবেদনপত্রে সঙ্গে জুড়ে দেওয়া মার্কশিট ও সার্টিফিকেটের ভিত্তিতে সফল প্রার্থীদের প্রাথমিক তালিকা তৈরি করা হয়। নিয়োগের আগে এমন বেশ কিছু মার্কশিট ও সার্টিফিকেটের সত্যতা যাচাই করতে সংশ্লিষ্ট বোর্ডের কাছে চিঠি পাঠায় ডাকবিভাগ কর্তৃপক্ষ। এতেই চক্ষু চড়ক গাছ মালদহ ডিভিশনের ডাক বিভাগের কর্তাদের।

জানা যায়, ১৫ জন কর্মপ্রার্থীর আবেদন পত্রের সাথে দেওয়া সার্টিফিকেট ভুয়ো। সংশ্লিষ্ট বোর্ডের তরফে লিখিতভাবে ডাক কর্তৃপক্ষকে এমন তথ্য জানানো হয়েছে বলে খবর। এর পরে নড়েচড়ে বসে ডাক বিভাগ । মালদহ  ডিভিশনের ডাক বিভাগের সুপারিনটেনডেন্ট জগদীশ সিংহ জানান,  কিছু সার্টিফিকেট দেখে সন্দেহ হয়। সেই কারণে সার্টিফিকেটগুলির সত্যতা যাচাই করা হয়।  চিঠি দেওয়া হয় সংশ্লিষ্ট বোর্ডগুলিকে।  সংশ্লিষ্ট বোর্ড থেকে সার্টিফিকেট গুলি ভুয়ো বলে জানানো হয়। এরপরই মালদহ পুলিশ সুপারের কাছে লিখিতভাবে বিষয়টি জানানো হয়। তদন্তের জন্য আবেদন করা হয়।

মালদহের পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়া এমন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, ভুয়ো সার্টিফিকেট দিয়ে আবেদনকারী ১৫জন কর্মপ্রার্থীর বিরুদ্ধে এফআইআর করা হয়েছে। তাদের খোঁজ শুরু হয়েছে। এই আবেদনকারীরা কীভাবে ভুয়ো সার্টিফিকেট সংগ্রহ করেছে বা কোন চক্র এই কারবারের পিছনে রয়েছে কি না, সব খতিয়ে দেখা হচ্ছে ।

Published by:Debamoy Ghosh
First published: