হাত পা বাঁধা অবস্থায় বৃদ্ধের দেহ উদ্ধার, মাদকাসক্ত নাতির টাকার জন্যই খুন?

হাত পা বাঁধা অবস্থায় বৃদ্ধের দেহ উদ্ধার, মাদকাসক্ত নাতির টাকার জন্যই খুন?

শিলিগুড়িতে বৃদ্ধ খুন। পিছন থেকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার মৃতদেহ। গলায় মাফলার পেঁচানো ছিল।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: শিলিগুড়িতে বৃদ্ধ খুন। পিছন থেকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার মৃতদেহ। গলায় মাফলার পেঁচানো ছিল। মোট পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এরমধ্যে রয়েছে বৃদ্ধের নাতি ও তার চার বন্ধু। মাদকাসক্ত পলিটেকনিক পড়ুয়া নাতির জন্য টাকা জোগাড়েই কি খুন? জিজ্ঞাসাবাদ করে নিশ্চিত হতে চাইছে পুলিশ ৷

হাত-পা পিছন দিক থেকে বাঁধা। গলায় মাফলার জড়ানো। শিলিগুড়িতে উদ্ধার আশি বছরের বৃদ্ধের দেহ। অগোছালো ঘর। শিলিগুড়ির দেশবন্ধুপাড়ায় অবসরপ্রাপ্ত ডাক বিভাগের কর্মী ফালগুনি ঘোষ মৃত্যু ঘিরে রহস্য। ছোট মেয়ে পায়েলি ও তার নাতি প্রায়ই তাঁর কাছে আসতেন। মাধ্যমিক পাসের পর পলিটেকনিকে ভর্তি হয় নাতি। প্রায়ই প্রজেক্ট, বই কেনার অজুহাত দিয়ে দাদুর কাছ থেকে টাকা নিত ৷

বৃহস্পতিবার পেনশন হয় ফাল্গুনী ঘোষের। রাতে দাদুর বাড়িতে মায়ের সঙ্গে যায় নাতি। সকালে পায়েলি ঘোষ ছেলেকে নিয়ে ফুলবাড়ির দিকে ডাক্তারের কাছে যাচ্ছিলেন। হঠাৎই দেখেন ছেলে নেই। পরে প্রতিবেশীর কাছ থেকে বাবার মৃত্যুর খবর পান । সরাসরি স্বীকার না করলেও পায়েলি ঘোষের বক্তব্যে স্পষ্ট, টাকার জন্য ছেলে কার্যত জুলুম করত দাদুর উপর।খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান স্থানীয় কাউন্সিলরও।

বৃদ্ধের নাতিই কি প্রধান অভিযুক্ত? তার বন্ধুদের ভূমিকাই বা কী? খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

First published: 10:03:41 PM Nov 29, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर