corona virus btn
corona virus btn
Loading

ভাঙছে নদীর পাড়, ভাঙছে একের পর এক ঘরবাড়ি! আতঙ্কে গ্রাম ছাড়ছেন বাসিন্দারা

ভাঙছে নদীর পাড়, ভাঙছে একের পর এক ঘরবাড়ি! আতঙ্কে গ্রাম ছাড়ছেন বাসিন্দারা
Representative Image

প্রসঙ্গত কয়েকদিন আগেই ভাঙ্গনে ৩৫ টি বাড়ি তলিয়ে যায়। এরপর সেচ দফতরের থেকে বালিভর্তি বস্তা ফেলে ভাঙ্গন রোধ করার চেষ্টা করে কিন্তু কাজের কিছুই হয়নি। এমনই অভিযোগ৷

  • Share this:

#সামশেরগঞ্জ: আবারও ভাঙ্গন মুর্শিদাবাদের সামশেরগঞ্জ থানার ধানঘড়া গ্রামে। শুরু হয়েছে রাত থেকে ভাঙ্গন। ৬০ থেকে ৭০ বিঘা জমি সহ একাধিক বাড়ি গঙ্গা গর্ভে তলিয়ে গিয়েছে। আতঙ্কে গ্রামবাসীরা নিজেদের বাড়ি ও গ্রাম ছেড়ে কেউ আত্মীয় বাড়ি, কেউ আবার ত্রিপল টাঙিয়ে রাস্তার ওপরে বসবাস শুরু করেছেন।

এলাকার মানুষের অভিযোগ গত একমাস ধরে ভাঙ্গন চললেও প্রশাসনের কোনও হেলদোল নেই। গ্রামবাসী স্বপন সিংহ বলেন, গত দু'বছর ধরে এভাবে গঙ্গার পাড় ভাঙলেও প্রশাসন কোন স্থায়ী সমস্যার সমাধান করছে না। সরকারি কোনও সাহায্য পাওয়া যাচ্ছে না। আমরা বড় অসহায় হয়ে দিন কাটাচ্ছি। সবুর শেখ বলেন, রাত থেকে হঠাৎ করেই ভাঙ্গন শুরু হয়। আমরা আতঙ্কে নিজেদের বাড়িঘর ছেড় বেড়িয়ে আসছি। এইভাবে ভাঙ্গন চললে কয়েকদিনের মধ্যেই গোটা গ্রাম শেষ হয়ে যাবে।

প্রসঙ্গত কয়েকদিন আগেই ভাঙ্গনে ৩৫ টি বাড়ি তলিয়ে যায়। এরপর সেচ দফতরের থেকে বালিভর্তি বস্তা ফেলে ভাঙ্গন রোধ করার চেষ্টা করে কিন্তু কাজের কিছুই হয়নি। এমনই অভিযোগ৷ আবার নতুন করে ভাঙ্গন শুরু হওয়ায় ঘুম ছুটেছে ধানঘড়া গ্রামের বাসিন্দাদের। নিমতিতা গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান মহিদুল ইসলাম বলেন, পঞ্চায়েতের পক্ষে ভাঙ্গন রোধ এর কাজ করা সম্ভব নয়। আমরা ত্রিপল ও সামান্য খাবার দিয়ে সহযোগিতা করেছি। প্রশাসনিক অধিকারীদের খবর দেওয়া হয়েছে ইতিমধ্যেই।

Published by: Pooja Basu
First published: August 21, 2020, 2:15 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर