corona virus btn
corona virus btn
Loading

এ এক অন্য সেবক! ধূ ধূ করছে শান্ত শূন্য সবুজে ঘেরা পাহাড়, তিস্তার জলরাশি

এ এক অন্য সেবক! ধূ ধূ করছে শান্ত শূন্য সবুজে ঘেরা পাহাড়, তিস্তার জলরাশি

শোনা যাচ্ছে নাম না জানা হাজার পাখির কলতান! ময়ূরের ডাক! যা অন্য সময়ে শোনা যায় না! লকডাউনের সাক্ষী এক অন্য সেবক!

  • Share this:

Partha Sarkar

#শিলিগুড়ি: ডাকছে পাহাড়! ডাকছে ডুয়ার্স! না, এখন আর এই চেনা শব্দগুলো শোনা যায় না। কোথায় সেই চেনা কলরব? কোথায় হুড়োহুড়ি? আর কোথায় সেল্ফি বা গ্রুফি তোলার হিড়িক? পেছনে সবুজ পাহাড় আর খরস্রোতা তিস্তাকে রেখে প্রতিদিনই ছবি পোস্ট হত সোশ্যাল মিডিয়ায়। বন্ধু-বান্ধব মিলে সময় পেলেই দে ছুট। ডেস্টিনেশন সবুজে ঘেরা সেবক পাহাড়। শিলিগুড়ি বা ডুয়ার্স থেকে প্রতিদিনই কয়েকশো তরুণ-তরুণী বাইকে চেপে ভিড় জমাতেন সেবকে। জমজমাট থাকত পাহাড়। সিকিম বা ডুয়ার্স বেড়াতে যাওয়ার ফাঁকে দেশ-বিদেশের পর্যটক বোঝাই গাড়ি একবার ব্রেক দিত সেবকে। অপরূপ প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যে মোড়া সেবকে দাঁড়িয়ে মোবাইলে একটা ছবি হবে না! তা হয় না! সঙ্গে হালকা জল খাবার।

পাহাড়ের কোলে দিনভর কাটিয়ে সন্ধ্যেয় ঘরে ফিরে আসা। কিছুই নেই। এক্কেবারে শান্ত। নিঝুম। চারপাশ শুনশান। জনমানবহীন। শিলিগুড়ির কাছেপিঠে ঘোরার আদর্শ ঠিকানা এই সেবক। করোনা ক্রমেই থাবা বসাচ্ছে গোটা দেশে। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। এর মোকাবিলায় দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। যার জেরে সদা ব্যস্ত সেবক পাহাড়ও এখন ঘুমোচ্ছে। সারি সারি দোকানের ঝাঁপ বন্ধ। ঘরবন্দি সেবকবাসী। নেই কোনও কলরব। যেন বড় একাকী হয়ে রয়েছে সেবক। জরুরী পরিষেবা ছাড়া রাস্তায় দেখা নেই কোনও গাড়ির৷

বন্ধ সেবকেশ্বরী কালি মন্দিরের দরজাও। যেখানে প্রতিদিনই শয়ে শয়ে ভক্তের ঢল নেমে আসত। সেই মন্দিরের সামনেটাও আজ ফাঁকা। দেখা নেই ভক্তের৷ বড় একা হয়ে রয়েছে পাহাড়ের কোলের এই কালি মন্দির। চারদিক এক নিস্তব্ধতায় ঘেরা! চলছে না ট্রেনও। কু ঝিকঝিক আওয়াজও কানে আসছে না। বন্ধ রয়েছে সব কাজকর্মই। নেই বাঁদরের দাপাদাপি। তবে হ্যাঁ, শোনা যাচ্ছে নাম না জানা হাজার পাখির কলতান! ময়ূরের ডাক! যা অন্য সময়ে শোনা যায় না! লকডাউনের সাক্ষী এক অন্য সেবক!

First published: April 15, 2020, 9:20 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर