corona virus btn
corona virus btn
Loading

দ্বিতীয় ফরাক্কা সেতুর কাজে অনিশ্চয়তা, চিনা সংস্থাকে প্রকল্প থেকে সরানোর দাবি

দ্বিতীয় ফরাক্কা সেতুর কাজে অনিশ্চয়তা, চিনা সংস্থাকে প্রকল্প থেকে সরানোর দাবি

বিজেপি জেলা সভাপতি গোবিন্দ মণ্ডল জানান তাঁরা কেন্দ্রের দ্বারস্থ হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন

  • Share this:

#মালদহ: চিনা সংস্থার অংশীদারিত্ব থাকায় নির্মিয়মান দ্বিতীয় ফরাক্কা সেতুর কাজে অনিশ্চয়তা। চিনা সংস্থাকে প্রকল্প থেকে সরানোর দাবিতে কেন্দ্রের দ্বারস্থ হচ্ছে মালদা বিজেপি। একযোগে প্রকল্প থেকে চিনা সংস্থাকে সরানোর দাবি করেছে তৃনমূলও।

গত চার মাস আগে নির্মিয়মান সেতুর একাংশ ভেঙ্গে পড়ে। এরপর থেকে কাজ বন্ধ হয়ে রয়েছে। চিনা সংস্থার সঙ্গে যৌথভাবে দ্বিতীয় ফরাক্কা সেতুর তৈরির দায়িত্বে রয়েছে দক্ষিন ভারতের এক সংস্থাও। গত ১৬ ফেব্রুয়ারী রাতে নির্মিয়মান দ্বিতীয় ফরাক্কা সেতুর একাংশ ভেঙ্গে পড়ার স্মৃতি এখনও ফিকে হয়নি। লকডাউনের জেরে সেতুর বিপর্যয়ের ঘটনার তদন্ত রিপোর্ট এখনও জমা পড়েনি। এরই মধ্যে উত্তরবঙ্গের সঙ্গে দক্ষিনবঙ্গের সংযোগ রক্ষাকারী এই সেতুর ভবিষ্যৎ নিয়ে বাড়ল জটিলতা।

লাদাখে ভারত চিন সংঘর্ষের জেরে গোটা দেশ জুড়েই চিনা সামগ্রী এবং সংস্থাকে বয়কটের রব উঠেছে। দ্বিতীয় ফরাক্কা সেতুর নির্মানের যৌথ দায়িত্ব রয়েছে চিনা সংস্থা কিংদো কনষ্ট্রাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং গ্রুপ কোম্পানি লিমিটেড এবং দক্ষিণ ভারতীয় সংস্থা রাধাকৃষ্ণ ইঞ্জিনিয়ারিং কনষ্ট্রাকশন বা আরকেইসি‌–র হাতে। একে মাঝপথে সেতু ভেঙ্গে দুর্ঘটনা, তার ওপর প্রকল্পের সঙ্গে চিনা সংস্থার যোগ। এই দুইয়ে মিলে প্রকল্প থেকে চিনা সংস্থাকে সরানোর দাবি উঠেছে।

বিজেপি জেলা সভাপতি গোবিন্দ মণ্ডল জানান তাঁরা কেন্দ্রের দ্বারস্থ হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের ওপর চাপ কমাতে ২০১৯ সালের জানুয়ারী মাসে শুরু হয় দ্বিতীয় ফরাক্কা সেতু তৈরীর কাজ। সেতুর কাজের জন্য মোট বরাদ্দ হয়েছে ৫২১ কোটি টাকা। মুল সেতু আর দুই দিকে অ্যাপ্রোচ রোড ধরে পাঁচ কিলোমিটারের বেশি। ২০২১ সালের ডিসেম্বরে এই প্রকল্পের কাজ শেষ হওয়ার কথা। গত ১৬ ফেব্রুয়ারী প্রথম ও দ্বিতীয় স্তম্ভের ওপর স্ল্যাব বসানোর সময় লনচিং গার্ডারের একাংশ ভেঙ্গে স্ল্যাব সহ মাটিতে পড়ে। ঘটনায় দুইজনের মৃত্যু হয়। সেই সময় প্রথম প্রকল্পে চিনা সংস্থার যুক্ত থাকার বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে। এনিয়ে প্রশ্নও ওঠে। আর এবার সীমান্ত উতপ্ত পরিস্থিতির মধ্যে সরাসরি চিনা সংস্থাকে প্রকল্প থেকে সরানোর দাবি করেছেন স্থানীয় বাসিন্দা তথা তৃনমূল নেতা ও মালদা জেলা পরিষদের সহকারি সভাধিপতি চন্দনা সরকার।

Sebak DebSarma

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: June 21, 2020, 10:16 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर