Home /News /north-bengal /

Dooars: ডুয়ার্সের জঙ্গলে তখন টহলদারি করছেন বনকর্মীরা, হঠাৎ সামনে হাড়হিম দৃশ্য! ছিন্নভিন্ন...

Dooars: ডুয়ার্সের জঙ্গলে তখন টহলদারি করছেন বনকর্মীরা, হঠাৎ সামনে হাড়হিম দৃশ্য! ছিন্নভিন্ন...

প্রতীকী চিত্র

প্রতীকী চিত্র

Dooars: প্রত্যেক দিনের মতো রুটিং টহলদারি করছিলেন চালশা রেঞ্জের শিবচু বিটের বনকর্মীরা। টহল দাড়ি করার সময় আচমকাই দেখতে পায় এক ব্যক্তির ছিন্নভিন্ন দেহ জঙ্গলের মধ্যে পড়ে রয়েছে।

  • Share this:

    #জলপাইগুড়ি: ডুয়ার্সের সংরক্ষিত বনাঞ্চল থেকে এক ব্যক্তির ছিন্নভিন্ন দেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে মৃত ব্যক্তির নাম দিপান রাই। বাড়ি শিবচুর বনবস্তি এলাকায়। প্রত্যেক দিনের মতো রুটিং টহলদারি করছিলেন চালশা রেঞ্জের শিবচু বিটের বনকর্মীরা। টহল দাড়ি করার সময় আচমকাই দেখতে পায় এক ব্যক্তির ছিন্নভিন্ন দেহ জঙ্গলের মধ্যে পড়ে রয়েছে।

    বনকর্মীরা  চমকে ওঠে এবং খবর দেন চালশা রেঞ্জার রেঞ্জ অফিসারকে। বনদফতরের পক্ষ থেকে খবর দেওয়া হয় নাগরাকাটা থানায়। এরপর থানার কর্মীরা সেখানে যান এবং বনদপ্তর এবং থানার অফিসাররা সেই মৃতদেহ উদ্ধার করে নিয়ে আসে নাগরাকাটা থানায়। বনদফতর সূত্রে জানা গিয়েছে শিবচু বিটের ২ নং কম্পার্টমেন্ট এলাকা থেকে এই দেহটি উদ্ধার করা হয়।

    প্রাথমিকভাবে বনদপ্তর এবং পুলিশ কর্তারা অনুমান করছে হাতির হামলায় ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। মৃত ব্যক্তির শরীর হাত-পা সব ছিন্নভিন্ন করে ফেলেছিল সেই বুনো হাতিটি। এরপর খবর দেওয়া হয় সেই মৃত ব্যক্তির আত্মীয়-স্বজনকে তারা এসে শনাক্ত করে। বৃহস্পতিবার  মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য জলপাইগুড়ি সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। সূত্রের মারফত জানা যায় কিছু দিন আগে শিবচু সংরক্ষিত বনাঞ্চল থেকে একইরকম ভাবে আরেক জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছিল।

    আরও পড়ুন: মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের জন্য বড় খবর! টেস্ট পেপার নিয়ে পর্ষদ সভাপতির জরুরি বার্তা

    বনদপ্তর সূত্রে জানা যায়  বারংবার ফরেস্ট এলাকার বাসিন্দাদের বারণ করা হলেও জঙ্গলের ভেতরে অবাধে ঢুকে যায় যার জন্যই এই ধরনের দুর্ঘটনা ঘটছে। শিবচু বিটের বিট অফিসার গৌতম মজুমদার জানান, আমরা ফরেস্ট সংলগ্ন গ্রাম  গুলিতে প্রচার চালাবো এবং তাদেরকে সচেতন করার চেষ্টা করব যাতে তারা অবাধে এইভাবে জঙ্গলের ভেতরে প্রবেশ না করে। দিপাল রাই মৃতব্যক্তির দাদা জানান, গত কাল ভাই জঙ্গলে গরু আনতে গিয়েছিল কিন্তু সন্ধ্যা নেমে আসলো  সে আর ফিরে আসেনি। আমরা অনেক খোঁজাখুঁজি করেছি কিন্তু পাইনি। এরপর বনদপ্তর এবং পুলিশ মারফত জানতে পারি একজনের মৃতদেহ পাওয়া গিয়েছে ফরেস্টের ভেতরে। তারপর শনাক্ত করি এবং দেখি আমার ভাই ফরেস্টে গরু  আনতে গিয়েছিল এবং হাতি হামলায়  তার মৃত্যু হয়েছে। আমরা ভাবতে পারি নি এইভাবে আমার ভাইয়ের মৃত্যু হবে।

    আরও পড়ুন: ট্রাকশন মোটরস খুলে যায়, ময়নাগুড়ির দুর্ঘটনায় যে মারাত্মক কারণ উঠে আসছে...

    ওদলাবাড়ির ন্যাস এর কর্মকর্তা নাফসার আলী জানান, ''বিগত অনেক বছর ধরেই আমরা ফরেস্ট সংলগ্ন বস্তি এবং চা বাগান এলাকায় প্রচার চালিয়ে যাচ্ছি এবং সচেতন করার চেষ্টা করছি।যাতে মানুষ ও বন্যপ্রাণী সংঘাত কমে যায়। কিন্তু কিছু কিছু ক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে ডুয়ার্সের জঙ্গল লাগোয়া বস্তি মানুষগুলি কখনো গরু আনতে কখনোবা জ্বালানি কাঠ আনতে গিয়ে বন্যপ্রাণীর সম্মুখীন হয়ে পড়ে এবং এ ধরনের দুর্ঘটনা ঘটে যায়। এই খবরে আমরা যথেষ্ট দুঃখিত। আমরা  সচেতনতা মূলক প্রচার আরো বাড়িয়ে দেব যাতে এ ধরনের দুর্ঘটনা কমানো যায়।''

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published:

    Tags: Dead body, Dooars

    পরবর্তী খবর