বৃহস্পতিবার থেকে টানা ৯ দিন বন্ধ থাকছে দার্জিলিং-ঘুম জয় রাইড, মন খারাপ পর্যটকদের

বৃহস্পতিবার থেকে টানা ৯ দিন বন্ধ থাকছে দার্জিলিং-ঘুম জয় রাইড, মন খারাপ পর্যটকদের
বন্ধ থাকবে ২০ মার্চ পর্যন্ত

বন্ধ থাকবে ২০ মার্চ পর্যন্ত।

  • Share this:

#দার্জিলিং: ফের বন্ধ জয় রাইড। দার্জিলিং ও ঘুম স্টেশনের মধ্যে বৃহস্পতিবার থেকে বন্ধ থাকছে এই পরিষেবা। বন্ধ থাকবে ২০ মার্চ পর্যন্ত। অনিবার্য কারনে বন্ধ থাকবে টয় ট্রেনের স্পেশাল রাইড বলে জানিয়েছে উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেল। তবে কী কারণে পরিষেবা বন্ধ থাকছে তা স্পষ্ট করে জানায়নি নির্দেশিকায়। দেশ-বিদেশের পর্যটকদের কাছে বরাবরই আকর্ষণের কেন্দ্রে জয় রাইড। দার্জিলিং বেড়াতে যাওয়া মানেই জয় রাইডে ট্র‍্যাভেল। নইলে পাহাড় সফর ইনকমপ্লিট! বিশেষ করে বিদেশীদের কাছে। ভিন দেশের পর্যটকেরা পাহাড়ে বেড়াতে আসেন জয় রাইডের প্রেমে। কখোনো আবার বিদেশী পর্যটকেরা এনজেপি স্টেশন থেকে চার্টার্ড টয় ট্রেনে চেপে পাহাড়ে পৌঁছন। মাঝে কয়লা সরবরাহ নিয়ে মালিক-শ্রমিক অসন্তোষের জেরে পর্যটনের ভরা মরসুমে দীর্ঘ দিন বন্ধ ছিল এই পরিষেবা। কেননা কয়লায় চলে জয় রাইডের স্টিম ইঞ্জিন। ফের পরিষেবা বন্ধ হওয়ায় মন খারাপ পর্যটকদের। শৈলশহর আর টয় ট্রেন পর্যটকদের কাছে বড় আকর্ষণ। পরিষেবা বন্ধের প্রভাব পড়বে পর্যটন শিল্পে। একেই করোনা আতঙ্কে পাহাড়ে পর্যটকদের সংখ্যা কিছুটা কমেছে। বিদেশী পর্যটকের বুকিং বাতিলেরও ফোন আসছে পর্যটন ব্যবসায়ীদের কাছে। তবু এই সময়ে জয় রাইড পরিষেবা বন্ধ থাকায় পর্যটন শিল্পের ওপর ধাক্কা। মনে করছে পর্যটন ব্যবসায়ীরা। এক নির্দেশিকায় উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে আগামী ২০ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ থাকছে দার্জিলিং ও ঘুম স্টেশনের মধ্যে ৫২৫৯২, ৫২৫৯৩ এবং ৫২৫৯৫ জয় রাইড স্টিম।

পাহাড়ের বুকে কুয়াশার চাদর সরিয়ে কালো ধোঁয়া উড়িয়ে চড়াই উতরাই পথ ধরে জয় রাইডে চেপে ঘুম বা বাতাসিয়া লুপ। এই ট্রিপ না হলে হয় না কি! কু ঝিক ঝিক আওয়াজে ঘুম ভাঙে পাহাড়ের। যা পর্যটকদের কাছে প্রেম। তবে অন্য জয় রাইডগুলো অবশ্য চালু থাকছে। পর্যটন ব্যবসায়ী সম্রাট সান্যাল জানান, জয় রাইডের চাহিদা বরাবরই পর্যটকদের কাছে পয়লা নম্বর। তাই পরিষেবা বন্ধ না রাখলেই পারতো রেল।

Partha Pratim Sarkar

First published: March 11, 2020, 11:56 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर