• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • Coronavirus in Siliguri : অতিমারির তৃতীয় ঢেউয়ে শিলিগুড়িতেও কোভিডগ্রাফ ঊর্ধ্বমুখী, পুর এলাকাতেই আক্রান্ত ৪৫ জন

Coronavirus in Siliguri : অতিমারির তৃতীয় ঢেউয়ে শিলিগুড়িতেও কোভিডগ্রাফ ঊর্ধ্বমুখী, পুর এলাকাতেই আক্রান্ত ৪৫ জন

সংক্রমণ কমাতে মাস্কহীনদের বিরুদ্ধে শহরে অভিযান চলে পুলিশের

সংক্রমণ কমাতে মাস্কহীনদের বিরুদ্ধে শহরে অভিযান চলে পুলিশের

পাহাড়ে ৯জন, গ্রামীণ এলাকায় ৪১ জন আক্রান্ত। যার মধ্যে মাটিগাড়া ব্লকেই আক্রান্ত ৩২ জন (Coronavirus in Siliguri)

  • Share this:

শিলিগুড়ি : সামনেই পুর নির্বাচন। তার আগে ফের শিলিগুড়িতে কোভিড গ্রাফ ঊর্ধ্বমুখী! গত ২৪ ঘন্টায় দার্জিলিংয়ের পাহাড়, সমতলের চার ব্লক এবং পুরসভার ৪৭টি ওয়ার্ডে আক্রান্তের সংখ্যা ৯৫! এর মধ্যে পুর এলাকাতেই আক্রান্ত ৪৫ জন। পাহাড়ে ৯জন, গ্রামীণ এলাকায় ৪১ জন আক্রান্ত। যার মধ্যে মাটিগাড়া ব্লকেই আক্রান্ত ৩২ জন (Coronavirus in Siliguri)।

উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে কোভিড থাবা বসাল৷ আক্রান্ত জুনিয়র চিকিৎসক, মেডিক্যাল পড়ুয়া এবং নার্সরা। আক্রান্ত ১৬ জন জুনিয়র চিকিৎসক এবং ৩ জন নার্স। আক্রান্ত ৬ জন পিজিটিও। মেডিক্যালেই চিকিৎসা চলছে তাদের। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দিয়েছেন হাসপাতালের সুপার সঞ্জয় মল্লিক। কী ধরনের ভ্যারিয়েন্টে তাঁরা আক্রান্ত হয়েছেন তা জানার জন্য ১০০ টি নমুনা পাঠানো হল ল্যাবে। পরিস্থিতির মোকাবিলায় উত্তরবঙ্গ মেডিক্যালে জরুরি বৈঠক হয়। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন কলেজ অধ‍্যক্ষ, হাসপাতাল সুপার, সহকারী ডিন, সহকারী সুপার-সহ অন‍্য স্বাস্থ্যকর্তারা।

আরও পড়ুন : কোভিড বিধির জের, পাহাড় ছাড়ছেন পর্যটকরা! পর্যটন শিল্পে ফের কোপ, মাথায় হাত পাহাড়বাসীর

বৈঠকে সরকারের নতুন কোভিড প্রোটোকল নিয়ে আলোচনা হয়। উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল তৃতীয় ঢেউ সামলাতে প্রস্তুত। জানান কলেজের অধ্যক্ষ ইন্দ্রজিৎ সাহা। তিনি জানান, ‘‘ এই মূহূর্তে কোভিড আক্রান্তদের জন্যে ৩৮২টি বেড রয়েছে।’’

আরও পড়ুন : শিলিগুড়িতে জটিল হচ্ছে বাম-কংগ্রেসের আসন রফা, ১২ আসনে মুখোমুখি লড়াই

এদিকে সংক্রমণ কমাতে মাস্কহীনদের বিরুদ্ধে শহরে অভিযান চলে পুলিশের। শিলিগুড়ির বিধান মার্কেটে অভিযান চালায় পুলিশ। শুরু হয় ধরপাকড়। বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ধারাবাহিক অভিযান চলবে বলে পুলিশ জানিয়েছে। সন্ধ্যেয় বাগডোগরার বিভিন্ন মার্কেটে হানা দেয় পুলিশ কর্মীরা। বাড়ছে কোভিড গ্রাফ। চলছে পুলিশের সচেতনতার মাইকিং। কিন্তু হুঁশ ফিরছে না শহরবাসীর একাংশের।

বাজারঘাট থেকে মার্কেট সর্বত্রই চূড়ান্ত অসাবধানতার ছবি। অনেকেরই মুখ ও নাক ঢাকেনি মাস্কে। ক্যামেরা দেখতে অনেকেই পকেট থেকে তড়িঘড়ি মাস্ক বের করলেন। প্রশ্ন একটাই, কবে এদের সচেতনতা ফিরবে? শহর জুড়ে পুলিশের নজরদারি চলছে। কিন্তু মঙ্গলবার সুভাষপল্লি বাজারে দেখা গেল ভিন্ন চিত্র। ক্রেতা, বিক্রেতাদের অনেকেরই মুখে দেখা যায়নি মাস্ক। অন্যদিকে কালিম্পংয়ে কোভিড সচেতনতায় রাস্তায় নামে পুলিশ! ডম্বর চক এবং সংলগ্ন জনমুক্তি পার্কে হানা দেয় পুলিশ। বের করে দেওয়া হয় পার্কে বেড়াতে আসা স্থানীয়দের। বন্ধ করে দেওয়া হয় পার্কের গেট। বিলি করা হয় মাস্ক।

Published by:Arpita Roy Chowdhury
First published: