উত্তরবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

গত ২৪ ঘন্টায় মালদহে সংক্রমিত ৩৬ জন, জেলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৮০০ ছাড়াল

গত ২৪ ঘন্টায় মালদহে সংক্রমিত ৩৬ জন, জেলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৮০০ ছাড়াল

গত ২৪ ঘন্টায় মালদহ জেলার যে নমুনাগুলি পরীক্ষা করা হয়েছে তার মধ্যে ৩৬ জনের নমুনা পজিটিভ হয়েছে।

  • Share this:

#মালদহ: করোনা পরিস্থিতি উদ্বেগজনক মালদহে। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে করোনা আক্রান্ত ৩৬। জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়াল ৮০০। নতুন করে করোনা আক্রান্ত কালিয়াচক থানার আইসি, কালিয়াচক-১ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি, মালদহ জেলা পরিষদের একাধিক সদস্য, জেলা পরিষদ সদস্যের স্বামী, থেকে পঞ্চায়েত প্রধান। পুলিশ ও পঞ্চায়েত প্রতিনিধিদের মধ্যে দ্রুত ছড়াচ্ছে করোনা সংক্রমণ। উত্তরবঙ্গের মধ্যে সবচেয়ে বেশি করোনা সংক্রমণ মালদহে।

জেলা স্বাস্থ্য সূত্রে জানা গিয়েছে, গত ২৪ ঘন্টায় মালদহ জেলার যে নমুনাগুলি পরীক্ষা করা হয়েছে তার মধ্যে ৩৬ জনের নমুনা পজিটিভ হয়েছে। এরমধ্যে ইংরেজবাজার শহরের সবচেয়ে সংক্রমিতের সংখ্যা সব চেয়ে বেশি, সেখানে ৮ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন। এছাড়া ইংরেজবাজার গ্রামীণ এলাকায় আক্রান্ত হয়েছেন আরও ৬ জন। পুরাতন মালদহ শহর এলাকায় দুইজন এবং পুরাতন মালদহের গ্রামীণ এলাকায় দুইজন আক্রান্ত হয়েছেন। মালদহের মানিকচক ব্লকের নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন আরও ৬ জন। এছাড়া কালিয়াচক-১ নম্বর ব্লকের ৬ জন। কালিয়াচক-২ ব্লকের ৫ জন এবং কালিয়াচক-৩ ব্লকে একজন আক্রান্ত হয়েছেন।

মালদহের নতুন আক্রান্তদের মধ্যে পুলিশ এবং প্রশাসনের একাংশের নাম জুড়ে যাওয়ায় উদ্বেগ তৈরি হয়েছে। এরআগে পুরাতন মালদহের ব্লকের বিডিও এবং পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। আর এদিন কালিয়াচক থানার আইসি এবং কালিয়াচক-১ পঞ্চায়েত সমিতি সভাপতি নতুন আক্রান্ত হয়েছেন বলে খবর মিলেছে। এর পাশাপাশি মালদা জেলা পরিষদের অন্তত দুজন সদস্য এবং আরও দুই মহিলা সদস্যের স্বামী ও স্থানীয় তৃণমূল নেতাদের আক্রান্ত হওয়ার খবর মিলেছে। নতুন আক্রান্তদের তালিকায় রয়েছেন ইংরেজবাজারের একটি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান।

গত কয়েকদিন ধরেই মালদহে করানো আক্রান্তদের গ্রাফ লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। আগে গ্রামাঞ্চলে বেশি আক্রান্তের খোঁজ মিললেও সম্প্রতি মালদা শহরে দ্রুত ছড়াচ্ছে করানোর সংক্রমণ। ইতিমধ্যে মালদা শহরের দুটি নামী নার্সিংহোমে রোগী ভর্তি বন্ধ রাখা হয়েছে। গত কয়েকদিন ধরে দুপুর তিনটের মধ্যে বন্ধ হচ্ছে শহরের সমস্ত দোকানপাট ও রিকশা চলাচল। এই লকডাউন আরো কড়াকড়ি করার সম্ভাবনাও হয়েছে।

Sebak Deb Sarma

Published by: Ananya Chakraborty
First published: July 6, 2020, 7:52 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर