উত্তরবঙ্গ

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

মাস্ক পরা নিয়ে বিভ্রান্তি, অনেকেই মাস্ক ছাড়াই ঘুরছেন জনবহুল এলাকায়

মাস্ক পরা নিয়ে বিভ্রান্তি, অনেকেই মাস্ক ছাড়াই ঘুরছেন জনবহুল এলাকায়
করোনা ভাইরাস সংক্রমণ গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ার জন্য চিনকেই দায়ী করছে আমেরিকা সহ বিভিন্ন দেশ৷ ভারতের ক্ষেত্রে ছবিটা কিন্তু সম্পূর্ণ অন্যরকম৷ নতুন একটি গবেষণায় এই তথ্য উঠে এসেছে৷

সবমিলিয়ে লকডাউনে কার্যতঃ করোনা সতর্কতা এড়াচ্ছেন অনেকেই।

  • Share this:

#মালদহঃ-মাস্ক পড়া নিয়ে বিভ্রান্তি মালদহে। রাস্তা ঘাটে কেউ মাস্ক পড়ে ঘুরছেন, আবার অনেকেরই মুখে মাস্ক নেই। অনেকে আবার মুখে মাস্ক ছাড়াই সামাজিক দুরত্ব ভেঙে দৈনিক বাজার, রেশন, ব্যাঙ্ক সহ বিভিন্ন ভিড়ের জায়গায় ঘুরছেন। সবমিলিয়ে লকডাউনে কার্যতঃ করোনা সতর্কতা এড়াচ্ছেন অনেকেই।

করোনা পরিস্থিতিতে মুখে মাস্ক লাগিয়ে বাইরে বের হওয়া উচিত, নাকি সুস্থ মানুষ মাস্ক ছাড়াই বাইরে বের হতে পারবেন। এনিয়ে সাধারণ মানুষের ধারণা স্পষ্ট নয়। এরই ছবি ধরা পড়ছে মালদহের বিভিন্ন জনবহুল এলাকা গুলিতে। লকডাউনের শুরুতে মাস্কের যোগান নিয়ে সমস্যা তৈরি হয়েছিল মালদহে। পরিস্থিতি সামাল দিতে স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলাদের সাহায্যে মাস্ক তৈরির উদ্যোগ নেয় প্রশাসন। এরপর গত কয়েকদিনে মালদহের বাজারে মাস্কের যোগান অনেকটাই বেড়েছে। তবে এখন মাস্ক সহজে মিললেও সচেতনতার অভাবে অনেকে এগুলির ব্যবহার না করে রাস্তায় বেড়িয়ে পড়ছেন। যদিও চিকিৎসকদের একাংশের মতে সুস্থ মানুষের জন্য সাধারন মাস্ক, সর্দি-কাশির লক্ষ্মণ থাকলে সার্জিকাল মাস্ক এবং করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসায় যুক্তদের এন ৯৫ মাস্ক প্রয়োজন। মালদহের মাস্ক বিক্রেতারা জানিয়েছেন, প্রথম কয়েকদিন মালদহে ব্যাপক পরিমান মাস্ক বিক্রি হয়েছিল। এখন মাস্ক বিক্রির পরিমাণ অনেকটাই কমেছে। তবে সম্প্রতি স্বাস্থ্য দপ্তর সকলকেই মাক্স পড়ার কথা বলায় ফের মালদহের মাস্ক বাজার চাঙ্গা হওয়ার আশায় ব্যবসায়ীরা।

Sebak Deb Sharma

Published by: Elina Datta
First published: April 7, 2020, 1:16 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर