করোনা সতর্কতায় হস্টেল ছাড়ার হিড়িক উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে

করোনা সতর্কতায় হস্টেল ছাড়ার হিড়িক উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে

রাতেই উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস ছাড়ার হিড়িক পড়ে যায় আবাসিক ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: রাজ্যে এখোনো করোনা আক্রান্ত একজন রুগীরও সন্ধান মেলেনি। তবে করোনা সন্দেহে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল সহ রাজ্যের একাধীক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন অনেকেই। তাদের সোয়াব পরীক্ষার নমুনা নাইসেডে পাঠানো হয়েছে। তবু সতর্ক রাজ্য প্রশাসন। বিভিন্ন স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত। সোমবার রাতের মধ্যেই হস্টেল ফাঁকা করার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। কেননা স্বাস্থ্য দপ্তরের ঘোষণা, জনসমাগম এড়িয়ে চলতে হবে। তাই এই পদক্ষেপ।

রাতেই উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস ছাড়ার হিড়িক পড়ে যায় আবাসিক ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে। বয়েজ এবং গার্লস হস্টেল খাঁ খাঁ করছে। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ আসা মাত্রই ব্যাগপত্তর গুছিয়ে বাড়ি ফেরা। এই বিশ্ববিদ্যালয়ে উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তের পড়ুয়ারা যেমন পড়তে আসে। তেমনই দক্ষিনবঙ্গের একাধীক জেলার পড়ুয়াও রয়েছে। পাশাপাশি অসম থেকেও উচ্চ শিক্ষার জন্যে ছাত্র-ছাত্রীরা এখানে আসে। বয়েজ এবং গার্লস হস্টেল মিলিয়ে হাজার খানেক আবাসিক থাকে। বিশ্ববিদ্যালয়ে ছুটি ঘোষণার পর কেনই বা আর হস্টেলে থাকা!

রসায়নের আবাসিক ছাত্র সপ্তর্ষী মণ্ডল, সায়ন সামন্তরা জানায়, করোনার আতঙ্কে হস্টেল ছাড়তে বলেছে। তাই বাড়ি ফিরে যাচ্ছি। সব আবাসিক বন্ধুরাই ঘরে ফিরে যাচ্ছে। আবাসিক ছাত্র-ছাত্রীদের অভিভাবকেরাও উদ্বিগ্ন ছিলেন। ঘন ঘন ফোন আসছিল পড়ুয়াদের কাছে। এবারে তারাও কিছুটা চাপমুক্ত হলেন। ট্রেন, বাসের টিকিট না মেলায় সামান্য সংখ্যক আবাসিক রয়েছে হস্টেলে। মঙ্গলবার ফিরে যাবে নিজের নিজের বাড়িতে। এর আগেই করোনা সতর্কতায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষামূলক ভ্রমণ পিছিয়ে দেয় কর্তৃপক্ষ। হস্টেলের কিচেন থেকে চিকেনও বাদ দেয়। এমনকী বিশ্ববিদ্যালয়ে সেমিনার আয়োজনও বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। হস্টেল এবং ক্লাস রুমে হ্যাণ্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার বাধ্যতামূলক কিরা হয়েছিল। চলছিল সচেতনতা প্রচারও। যাতে অযথা আতঙ্কিত হয়ে না পড়ে পড়ুয়ারা। আর আজ রাতের পর বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস পুরো ফাঁঁকা।

First published: March 16, 2020, 11:45 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर