৭ মাসে বদলে গেল পরিস্থিতি, পাহাড়ে মুখ্যমন্ত্রীকে অভিবাদন, ঘিসিংয়ের নামে রাস্তা

৭ মাসে বদলে গেল পরিস্থিতি, পাহাড়ে মুখ্যমন্ত্রীকে অভিবাদন, ঘিসিংয়ের নামে রাস্তা

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Feb 06, 2018 08:25 PM IST
৭ মাসে বদলে গেল পরিস্থিতি, পাহাড়ে মুখ্যমন্ত্রীকে অভিবাদন, ঘিসিংয়ের নামে রাস্তা
নিজস্ব চিত্র
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Feb 06, 2018 08:25 PM IST

 #দার্জিলিং: ৭ মাস পর পাহাড়ে মুখ্যমন্ত্রী। আর সেই সফর শুরুর পরই পাহাড়ে দেখা গেল নজিরবিহীন ঘটনা। জিএনএলএফ নেতার নামে রাস্তার নামকরণকে ঘিরে একমঞ্চে এল মোর্চা ও জিএনএলএফ নেতৃত্ব। পাহাড়বাসীর উন্নয়নে সবদলকে একযোগে কাজ করার আহ্বান মুখ্যমন্ত্রীর। পাহাড়ের উন্নয়নই রাজ্যের অগ্রাধিকার। তাও স্পষ্ট মুখ্যমন্ত্রীর বার্তায়।

সাত মাসেই আমূল বদলে গেল ছবিটা। মোর্চার একাংশের বিক্ষোভ এখন অতীত। পরিবর্তে এবার দফায় দফায় সংবর্ধনা, অভিবাদন। খাদা পরিয়ে বরণ করে নেওয়া মুখ্যমন্ত্রীকে। ৭ মাস পর পাহাড়ে সফরে আসা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ঘিরে দেখা গেল এমনই ছবি।

জিএনএলএফ নেতা সুবাস ঘিসিংয়ের নামে রাস্তার নামকরণ অনুষ্ঠান। এই অনুষ্ঠান মঞ্চেই পাশাপাশি দেখা গেল মোর্চা ও জিএনএলএফ নেতাদের। যুযুধান এই দুই রাজনৈতিক দলের পাশাপাশি আসাটা রীতিমতো নজিরবিহীন।

মঙ্গলবার বদলে যাওয়া পাহাড়ের পরিস্থিতি প্রতি মুহূর্তে টের পেয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। পাহাড়ে উন্নয়নে সবদলকে একসঙ্গে কাজ করার আবেদনও জানিয়েছেন তিনি। পাহাড়ের উন্নয়নই যে রাজ্যের অগ্রাধিকার, এদিনও তা স্পষ্ট করে দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিনি বলেন, ‘ভাল কাজ সবাইকে একসঙ্গে করতে হয় ৷ ৭ মাস পরে দার্জিলিঙে এলাম ৷ কিছুদিন ধরে দার্জিলিঙে অশান্তি চলছিল ৷ এখন পাহাড় শান্ত ৷ সব দল মিলে উন্নয়নের কাজ করছে ৷ আপনারা একসঙ্গে কাজ করুন ৷ রাজ্য সরকার সহযোগিতা করবে ৷’

Loading...

পাহাড়ের মোড়ে মোড়ে ভিড়। গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার কাটআউট। পাহাড়ে কোথাও নজরে আসেনি বিমল গুরুংয়ের নাম বা ছবি। তা হলে কী পাহাড়ের রাজনীতিতে আর কোনও প্রভাব নেই একদা প্রভাবশালী মোর্চা সুপ্রিমোর? এদিনের পর উঠে গেল সেই প্রশ্নও।

একইসঙ্গে পাহাড়ে নিজেদের রাজনৈতিক ভিত্তি আরও মজবুত করার লক্ষ্যে আরও এক ধাপ এগোল তৃণমূল কংগ্রেস।

First published: 08:25:55 PM Feb 06, 2018
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर