বাংলা ভাগের চক্রান্ত করছে বিজেপি: মুখ্যমন্ত্রী

বাংলা ভাগের চক্রান্ত করছে বিজেপি: মুখ্যমন্ত্রী
Mamata Banerjee

বিজেপি পাহাড় নিয়ে ষড়যন্ত্র করছে: মুখ্যমন্ত্রী

  • Share this:

#কলকাতা: পাহাড়ে অশান্তি জিইয়ে রাখতে চক্রান্ত করছে বিজেপি। নবান্নে পাহাড়ের দলগুলির সঙ্গে বৈঠকের পর বিস্ফোরক অভিযোগ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। বাংলা ভাগের চক্রান্ত করছে বিজেপি। পাহাড়ে অশান্তিতে উসকানি দিচ্ছেন এক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। পাহাড়ে শান্তি ফেরার মুখে তাই কেন্দ্রীয় বাহিনী প্রত্যাহারে সিদ্ধান্ত। আদালতের নির্দেশ সত্ত্বেও বাহিনী প্রত্যাহারের নির্দেশ আসলে যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোয় আঘাত। দাবি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

পাহাড় নিয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে সরাসরি অভিযোগ তুললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। হিংসায় উসকানি , বিমল গুরুংদের মদত দেওয়ার মতো বিস্ফোরক অভিযোগেও সরব মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, বাংলা ভাগের চক্রান্ত করছে বিজেপি ৷ প্রমাণ আছে আমাদের কাছে ৷

পাহাড়ে শান্তি ফেরার মুখে কেন্দ্রীয় বাহিনী প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তেও ক্ষোভ উগরে দেন মুখ্যমন্ত্রী। পাহাড়ে বাহিনী মোতায়েনের নির্দেশ দিয়েছিল কলকাতা হাইকোর্ট। একতরফা এই সিদ্ধান্তের উদ্দেশ্য নিয়েও প্রশ্ন তুললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন,‘

পাহাড়ে হিংসাকে বাহবা দেওয়া হচ্ছে ৷ এটা সম্পূর্ণ অগণতান্ত্রিক, অসাংবিধানিক ৷ বাংলার সঙ্গেই এরকম করা হচ্ছে ৷ অন্য রাজ্য থেকে আধা সেনা প্রত্যাহার হয়নি ৷ বিষয়টি নিয়ে আমরা স্তম্ভিত ৷ আমি রাজনাথ সিংয়ের সঙ্গে কথা বলেছি ৷ রাজ্যের সঙ্গে আলোচনা না করেই এই সিদ্ধান্ত ৷ ১৫-এর মধ্যে ৭ কোম্পানি তুলে নিচ্ছে ৷ প্রশাসনিকভাবে এটা খুব খারাপ সিদ্ধান্ত ৷ কী এমন হল, আধা সেনা প্রত্যাহার করা হল ৷ হাইকোর্টের নির্দেশের অবমাননা করা হল ৷ বিজেপির ইন্ধনেই পাহাড়ে অশান্তি চলছে ৷’

গেরুয়া শিবিবের এক মন্ত্রী ও সাংসদের দিকেও আঙুল তুলেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি অভিযোগ করেন,

‘বিজেপির এক মন্ত্রী ষড়যন্ত্র করছেন ৷ অশান্তিতে তরুণ পুলিশকর্মী নিহত হয়েছেন ৷ তারপরেও কীভাবে বাহিনী প্রত্যাহার করা হল? এটা কি রাজনৈতিকভাবে দেখা উচিত? বিজেপির এক মন্ত্রী এর সঙ্গে জড়িত ৷’

পাহাড়ে শান্তি প্রক্রিয়া চলার সময়ই বিমল গুরুংদের অনুগত মোর্চা নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। গত সম্প্রতি পাহাড়ে সফরে গিয়ে গুরুংয়ের সঙ্গে কথা বলেছেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষও। মুখ্যমন্ত্রী এদিন সাংবাদিক বৈঠকে বলেন,

‘পাহাড়বাসীকে অপমান করছে বিজেপি ৷ আশা রাখছি, সমস্যার সমাধান হবে ৷ যার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলা ৷ তাকে ডেকে কথা বলছে ৷ বিজেপির রাজ্যের স্বার্থ দেখছে না ৷ যখনই শান্তি ফিরছে, তখনই চক্রান্ত ৷’

Loading...

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাহাড় নিয়ে অভিযোগে চাপ বাড়ল মোদি সরকারের । বিশেষত জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থেই এবার গুরুংদের থেকে দুরত্ব বাড়ানোর নীতি নিতে পারে কেন্দ্র। ইতিমধ্যেই সেই কৌশল স্পষ্ট হয়েছে।

First published: 05:27:35 PM Oct 16, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर