Home /News /north-bengal /
Mamata Banerjee: অসমের উত্তরীয় দিলেন হিমন্ত, মমতা দিলেন বাংলার উত্তরীয়, দার্জিলিংয়ে মুখোমুখি দুই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী

Mamata Banerjee: অসমের উত্তরীয় দিলেন হিমন্ত, মমতা দিলেন বাংলার উত্তরীয়, দার্জিলিংয়ে মুখোমুখি দুই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী

রাজ্য়পাল ট্যুইট করেছেন এই ছবি

রাজ্য়পাল ট্যুইট করেছেন এই ছবি

Mamata Banerjee: বুধবারও মমতার কর্মসূচি ছিল সকালে। বুধবার ভানু ভক্তের জন্মদিনের অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন মমতা। তার পর দার্জিলিংয়ের রাজভবন।

  • Share this:

#দার্জিলিং: শৈলশহরের রাজভবন এমন রাজনৈতিক উত্তাপ ধারণ করেছে শেষ কবে? এক কথায় অনেকেই হয়ত উত্তর দিতে পারবেন না। দুই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর একে বারে মুখোমুখি সাক্ষাৎ তাই স্বভাবতই লাইম লাইট ঘুরিয়ে দিয়েছিল দার্জিলিংয়ের দিকে। অবশ্য, মঙ্গলবার থেকেই বাংলার উত্তরে নজর ছিল সকলের। এক দিকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কর্মসূচি, অন্য দিকে ধূপগুড়িতে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভা, সব মিলিয়ে ঘটনাবহুল ছিল মঙ্গলবার। বুধবারও মমতার কর্মসূচি ছিল সকালে। বুধবার ভানু ভক্তের জন্মদিনের অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন মমতা। তারপর দার্জিলিংয়ের রাজভবন। সেখানেই অসম আর বাংলার প্রশাসনিক প্রধানদের মুখোমুখি সাক্ষাৎ। সেখানে কি হিমন্তের সঙ্গে রাষ্ট্রপতি ভোট নিয়ে আলোচনা হল দু'জনের? মমতা হাসি মুখেই জবাব দিলেন, "ওঁর পার্টি আলাদা, আমার পার্টি আলাদা, তা হলে রাষ্ট্রপতি নির্বাচন নিয়ে কী করে আলোচনা হবে? "

অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা রাজভবনে উপস্থিত আছেন, সে কথা জানাই ছিল। ট্যুইট করে সেই সাক্ষাতের কথা জানিয়েছিলেন খোদ রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। বেলা গড়াতেই সেই সমীকরণে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রবেশ। দীর্ঘ ক্ষণ আলোচনাও চলে এই তিনজনের মধ্যে। যদিও সেই আলোচনা যে রাজনৈতিক বিষয়ে নয়, আরও নির্দিষ্ট করে বলতে গেলে রাষ্ট্রপতি নির্বাচন নিয়ে নয়, সে কথা রাজভবন থেকে বেরিয়েই স্পষ্ট করে দেন মমতা। সাংবাদিকরা প্রথমেই জিজ্ঞাসা করেন সে কথা। মমতা বলেন, "না, রাজনৈতিক আলোচনা হয়নি। এ নেহতাই সৌজন্য সাক্ষাৎ। চা-বিস্কুট খেয়েছি, তবে রাজনৈতিক কোনও আলোচনা হয়নি। উনি (রাজ্যপাল) এখানে আছেন, আমিও তাই এক বার দেখা করে গেলাম।"

আরও পড়ুন: বাম আমলে বিধানসভা ভাঙচুরে কী ব্যবস্থা? হঠাৎ হাই কোর্টে উঠে গেল 'সেই' প্রসঙ্গ!

এর পরে স্বাভাবিক ভাবে এসে পড়ে হিমন্ত প্রসঙ্গ। বিজেপি শাসিত অসম মহারাষ্ট্রের সরকার বদলের সময় থেকেই আলোচনায় রয়েছে। সেখানেই আশ্রয় নিয়েছিলেন উদ্ধব বিরোধী শিন্ডে শিবিরের সদস্যরা। সেই অসমের মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে সরাসরি মমতার সাক্ষাৎ। কী কথা হল দুজনের? সাংবাদিকদের উত্তরে মমতা বললেন, "আমার মনে হয় বিভিন্ন রাজ্য সরকারের মধ্যে যোগাযোগ থাকাটা জরুরি। আমি ওঁকে (হিমন্ত) বাংলা উত্তরীয় দিয়ে স্বাগত জানিয়েছি, আমাকে তিনি অসমীয়া উত্তরীয় পরিয়ে স্বাগত জানিয়েছেন। আমার মনে আছে, আমি যখন কামাখ্যা গিয়েছিলাম, তখন আমাকে খুব সাহায্য করেছিলেন ওঁরা। আর মনে রাখতে হবে, অসম ও পশ্চিমবঙ্গের সীমানা জোড়া। সেই দিক থেকে দেখতে গেলে আমাদের মধ্যে বোঝাপড়া থাকা জরুরি। এখানে রাজ্যপাল ছিলেন, উনি আমাকে ডেকেছিলেন। হিমন্ত নিজের কাজে এখানে এসেছিলেন। তাই দেখা হল আমাদের।"

আরও পড়ুন: নতুন পরিকল্পনা তৃণমূলের, গ্রামে-গ্রামে যাচ্ছেন নেতারা! লক্ষ্য কিন্তু স্পষ্ট

কেমন ছিল রোদ-বৃষ্টির খেলা চলা পাহাড়ের রাজভবনের অন্দরমহল, যে খানে একসঙ্গে দুই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী উপস্থিত। সেই ভিডিও শেয়ার করেছেন খোদ রাজ্যপাল। সেখানে দেখা যাচ্ছে মমতাকে স্বাগত জানাচ্ছেন বাকি দুজনে। তার পর মমতা উত্তরীয় পরিয়ে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন দুজনকেই। শুধু সেই ভিডিও নয়, আলাদা দুটি ছবিও শেয়ার করেছেন রাজ্যপাল। যদিও, হিমন্ত বিশ্বশর্মার তরফ থেকে এই বিষয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি। রাজ্যপালের ট্যুইটটি রিট্যুইট করেছেন তিনি।

সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্য়ায়

Published by:Uddalak B
First published:

Tags: Mamata Banerjee

পরবর্তী খবর