• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • অমানবিক ! হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার বদলে দুর্ঘটনায় জখমকে নিয়ে দু’ঘণ্টা ঘুরল যাত্রীবাহী বাস

অমানবিক সরকারি বাস চালক ও কন্ডাকটর। দুর্ঘটনায় জখমকে নিয়ে ২ ঘণ্টা ঘুরল NBSTC বাস।

অমানবিক সরকারি বাস চালক ও কন্ডাকটর। দুর্ঘটনায় জখমকে নিয়ে ২ ঘণ্টা ঘুরল NBSTC বাস।

অমানবিক সরকারি বাস চালক ও কন্ডাকটর। দুর্ঘটনায় জখমকে নিয়ে ২ ঘণ্টা ঘুরল NBSTC বাস।

  • Share this:

    #মালদহ: অমানবিক সরকারি বাস চালক ও কন্ডাকটর। দুর্ঘটনায় জখমকে নিয়ে ২ ঘণ্টা ঘুরল NBSTC বাস। হাসপাতালের সামনে দিয়ে গেলেও নামানো হয়নি রোগীকে। সব যাত্রীদের নামিয়ে ডিপো হয়ে হাসপাতালে পৌঁছয় বাসটি। কিন্তু ততক্ষণে মৃত্যু হয়েছে জখম ব্যক্তির। বাস কন্ডাকটরের সাফাই, বাসে জোর করে তোলা হয় আহতকে। ডিপোয় না জানিয়ে তাদের পক্ষে কিছু করা সম্ভব ছিল না, তাই সমস্ত যাত্রীদের নামিয়ে ডিপো হয়ে হাসপাতালে আহতকে নিয়ে যাওয়া হয়।

    মঙ্গলবার সকালে মালদহের আদিনার কাছে ৩৪ নং জাতীয় সড়কে একটি গাড়ির ধাক্কায় গুরুতর আহত হন রিক্সা চালক রউফ শেখ। দ্রুত হাসপাতালে পৌঁছতে মালদহগামী একটি NBSTC-র বাসে তাকে তুলে দেন আহতরা।

    কিন্তু মেডিক্যাল কলেজের পাস দিয়ে গেলেও রউফকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়নি বলে অভিযোগ। সেখান থেকে সমস্ত যাত্রীদের নামাতে নামাতে টার্মিনাসে পৌঁছয় বাসটি। সেখান থেকে ডিপোয় বাসটিকে নিয়ে যাওয়া হয়। গোটা সময় বাসের ভিতরেই যন্ত্রণায় কাঁতরাচ্ছিলেন রউফ। ডিপোয় NBSTC কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানিয়ে অবশেষে মালদহ মেডিক্যাল কলেজে রউফকে নিয়ে যায় বাস চালক ও কন্ডাকটর। কিন্তু ততক্ষণে মৃত্যু হয়েছে তাঁর।

    স্থানীয়দের কাছে খবর পেয়ে আগেই মালদহ মেডিক্যাল কলেজে পৌঁছে যান রউফের পরিবার। গিয়ে দেখেন রউপকে তখনও নিয়ে আসা হয়নি। তাদের দাবি, সময়মত রউফকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে হয়তো বেঁচে যেতেন তিনি।

    বাসকর্মীর সাফাই, জোর করে বাসে তুলে দেওয়া হয় জখমকে। কর্তৃপক্ষকে জানাতেই তাই যাত্রীদের নামিয়ে ডিপো হয়ে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

    First published: