• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • BSF JAWAN CASE WHO SURRENDERED AFTER KILLING HIS OWN COLLEAGUES OVERTAKEN BY BSF OWN COURT AKD

সহকর্মীকেই গুলিতে ঝাঁঝরা করেছেন! বিএসএফ জওয়ানের বিচার হবে বিএসএফ-এরই আদালতে

বিএসএফ এর হেফাজতে তুলে দেওয়া হচ্ছে উত্তম সূত্রধরকে।

রবিবার রায়গঞ্জ থানার পুলিশ অভিযুক্ত বিএসএফ জওয়ান উত্তম সূত্রধর কে বিএসএফ-এর ১৪৬ নম্বর ব্যাটালিয়ানের হাতে তুলে দিল পুলিশ।

  • Share this:

#রায়গঞ্জ: রায়গঞ্জ আদালতে বিচার নয়। মালদাখন্ডে দুই বিএসএফ জওয়ানকে হত্যার অভিযোগে ধৃত জওয়ান উত্তম সূত্রধরকে নিজেদের হেফাজতে নেবার জন্য রায়গঞ্জ আদালতে আবেদন করল। বিএসএফ-এর বিচার ব্যবস্থায় তার বিচারের সেই আবেদন মঞ্জুর করেছে আদালত।

রায়গঞ্জ থানার পুলিশ রবিবার ধৃত বিএসএফ জওয়ান উত্তম সূত্রধরকে বিএসএফ হাতে তুলে দিল। রায়গঞ্জ আদালতের সরকারি আইনজীবী নীলাদ্রি সরকার জানিয়েছেন, বিএসএফ-এর নিজস্ব আদালত কোর্ট মার্শালে তার বিচার করা যেতে পারে।আইনের সেই সুযোগ আছে।

উল্লেখ্য, গত ৪ জুলাই ভোর রাতে রায়গঞ্জ থানার মালদাখন্ড সীমান্ত চৌকি এলাকায়  সীমান্তে প্রহরারত অবস্থায় গুলি চালিয়ে  দুই সহকর্মীকে গুলি করে হত্যা  করে উত্তম সূত্রধর নামে এক বিএসএফ জওয়ান।  এরপর সে নিজেই সীমান্ত চৌকির কমান্ডারের কাছে আত্মসমর্পণ করে। পরে তাকে রায়গঞ্জ থানার পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

রায়গঞ্জ থানার পুলিশ অভিযুক্ত বিএসএফ জওয়ান উত্তম সূত্রধরের বিরুদ্ধে খুন এবং আগ্নয়াস্ত্র ধারায় মামলা রুজু করে। ৫ জুলাই রায়গঞ্জ আদালতে তোলা হয়। আদালত পাঁচ দিনের পুলিশী হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেয়। আজ হেফাজতের মেয়াদ শেষ হবার পর ধৃত জওয়ানকে রায়গঞ্জ আদালতে পেশ করে পুলিশ। অভিযুক্ত জওয়ানের বিএসিএফ এর অধীনেই বিচারের জন্য তাদের নিজেদের হেফাজতে নেবার জন্য আদালতের কাছে আবেদন করে বিএসএফ।

সেই আবেদনের ভিত্তিতে রবিবার রায়গঞ্জ আদালতে দুই পক্ষের আইনজীবীদের শুনানির মাধ্যমে আদালত ধৃত বিএসএফ জওয়ান উত্তম সূত্রধরকে বিএসিএফ এর হাতে তুলে দেওয়ার জন্য রায়গঞ্জ থানার পুলিশকে নির্দেশ দেয়।

সেই নির্দেশ মতো রবিবার রায়গঞ্জ থানার পুলিশ অভিযুক্ত বিএসএফ জওয়ান উত্তম সূত্রধর কে বিএসএফ-এর ১৪৬ নম্বর ব্যাটালিয়ানের হাতে তুলে দিল পুলিশ। রায়গঞ্জ আদালতের সরকারি আইনজীবি নীলাদ্রি সরকার জানিয়েছেন, বি এস এফ কোর্ট মার্শালে বিচার করার জন্য  ধৃত উত্তম সূত্রধরকে নিজেদের হেফাজতে নিল বি এস এফ। আইনজীবির দাবি, আইনে সেই সু্যোগ থাকায় আদালত সেই আবেদন মঞ্জুর করেন।

Published by:Arka Deb
First published: