উদ্বোধনের দিনই বিজেপির পার্টি অফিসকে 'বেআইনি' তকমা! পাল্টা চ্যালেঞ্জ বিজেপি নেতৃত্বের

উদ্বোধনের দিনই বিজেপির পার্টি অফিসকে 'বেআইনি' তকমা! পাল্টা চ্যালেঞ্জ বিজেপি নেতৃত্বের

কোনওরকম আগাম অনুমতি বা বিল্ডিং প্ল্যান পাশ না করেই বিজেপি বহুতল পার্টি অফিস তৈরি করেছে বলে অভিযোগ ইংরেজবাজার পুরসভার পুর প্রশাসক নীহাররঞ্জন ঘোষের।

কোনওরকম আগাম অনুমতি বা বিল্ডিং প্ল্যান পাশ না করেই বিজেপি বহুতল পার্টি অফিস তৈরি করেছে বলে অভিযোগ ইংরেজবাজার পুরসভার পুর প্রশাসক নীহাররঞ্জন ঘোষের।

  • Share this:

#মালদহ: বিজেপির কার্যালয় উদ্বোধনের দিনই দেখা দিল বিতর্ক। বিজেপির নবনির্মিত কার্যালয় 'বেআইনি' বলে জানাল ইংরেজবাজার পুরসভা। কোনওরকম আগাম অনুমতি বা বিল্ডিং প্ল্যান পাশ না করেই বিজেপি বহুতল পার্টি অফিস তৈরি করেছে বলে অভিযোগ ইংরেজবাজার পুরসভার পুর প্রশাসক নীহাররঞ্জন ঘোষের। বেআইনি নির্মাণের জন্য বিজেপিকে আইনি নোটিশ ধরানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে পুরসভা। যদিও পুরসভার অভিযোগকে গুরুত্ব দিতে নারাজ জেলা বিজেপি জেলা সভাপতি।

গোবিন্দচন্দ্র মণ্ডল বলেন, "আমিও একসময় পুরসভার উপ পুরপ্রধান ছিলাম। যা হয়েছে নিয়ম মেনেই হয়েছে। তাঁর পাল্টা অভিযোগ, বিজেপির শ্রীবৃদ্ধি সহ্য করতে না পেরে তৃণমূলের গাত্রদাহ হয়েছে। তৃণমূলের ক্ষমতা থাকলে পার্টি অফিস ভেঙে দেখাক।' পুর প্রশাসককে পাল্টা চ্যালেঞ্জ বিজেপির। মালদহে বিজেপির জেলা কার্যালয়ের নতুন ভবনের উদ্বোধন করেন সর্বভারতীয় বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডা। প্রায় ৫০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে তৈরি হয়েছে আধুনিক অফিস। বিধানসভা ভোটের দিকে লক্ষ্য রেখে জেলা কার্যালয়কে সাজিয়ে তোলা হয়েছে।

অফিসে আলাদা করে তৈরি হচ্ছে আইটি সেল, দলের বিভিন্ন মোর্চার নির্দিষ্ট ঘর এবং সংসদ, বিধায়কদের অফিস। কেন্দ্রীয় ও রাজ্যের নেতারা জেলায় এলে যাতে পার্টি অফিসেই থাকতে পারেন সেইমতো থাকার আধুনিক সুবিধা যুক্ত ব্যবস্থাও রাখা হয়েছ। পার্টি অফিসের তিন তলায় ঘরে একসঙ্গে কয়েকশো নেতা-কর্মীর বৈঠক ও কর্মশালা করা যাবে। এককথায় বিধানসভা ভোটে 'ওয়ার রুম' হিসেবে কাজ করবে এই নতুন কার্যালয়। যদিও এর আগেই পুরসভার সঙ্গে বিজেপির বাকযুদ্ধ শুরু হওয়ায় বিষয়টি অন্য মাত্রা পেয়েছে।

Sebak DebSarma

Published by:Shubhagata Dey
First published: