North Bengal: উত্তরবঙ্গকে পৃথক রাজ্য ঘোষণার দাবি, প্রকাশ্যেই সরব বিজেপি সাংসদ! কড়া অবস্থান মমতার

উত্তরবঙ্গকে আলাদা রাজ্য ঘোষণার দাবি বিজেপি সাংসদ জন বার্লার৷

উত্তরবঙ্গকে আলাদা রাজ্য (North Bengal) করার এই দাবি নিয়ে কড়া প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)৷ তিনি স্পষ্ট জানিয়েছেন, কোনও অবস্থাতেই আর বাংলাকে ভাগ করতে দেওয়া হবে না৷

  • Share this:

    #আলিপুরদুয়ার: পৃথক গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে সরব হওয়া বিমল গুরুং, রোশন গিরিদের গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার সঙ্গে অতীতে হাত মিলিয়েছে বিজেপি৷ দুই শিবিরের সম্পর্কে ভাঙনও ধরেছে৷ পৃথক কামতাপুরী রাজ্যের দাবিও দীর্ঘদিনের হলে এখন তা অনেকটাই স্তিমিত৷ এবার গোটা উত্তরবঙ্গকেই পৃথক রাজ্য হিসেবে ঘোষণা করার দাবি জানালেন বিজেপি সাংসদ জন বার্লা৷ আলিপুরদুয়ারের বিজেপি সাংসদ জানিয়েছেন, সংসদের অধিবেশন খুললেই এই দাবিতে সরব হবেন তিনি৷

    যদিও কয়েকদিন আগেই উত্তরবঙ্গকে আলাদা রাজ্য করার এই দাবি নিয়ে কড়া প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তিনি স্পষ্ট জানিয়েছেন, কোনও অবস্থাতেই আর বাংলাকে ভাগ করতে দেওয়া হবে না৷

    নেপালি ভাষার একটি স্থানীয় সংবাদ পোর্টালকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে উত্তরবঙ্গকে পৃথক রাজ্য করার দাবিতে সরব হয়েছেন জন বার্লা৷ কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বাতিল করা এবং লাদাখকে পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার উদাহরণ দিয়ে উত্তরবঙ্গকেও পৃথক রাজ্য হিসেবে ঘোষণা করার দাবি জানিয়েছেন আলিপুরদুয়ারের সাংসদ৷ তাঁর যুক্তি, 'দক্ষিণবঙ্গ সবসময় উত্তরবঙ্গকে অবহেলা করেছে৷ এখানকার রাজস্ব দক্ষিণবঙ্গে চলে গিয়েছে৷ উত্তরবঙ্গের মানুষ এর কোনও সুফলই পান না৷ সেই কারণেই আমি উত্তরবঙ্গের পৃথক রাজ্যের মর্যাদা চাইছি৷ আমার বিশ্বাস, তাহলেই এখানকার মানুষ খুশি হবে এবং প্রকৃত উন্নয়ন হবে৷ সংসদের অধিবেশন শুরু হলেই আমি এই দাবি জানাবো৷'

    গত কয়েকদিন ধরেই উত্তরবঙ্গকে পৃথক রাজ্য হিসেবে ঘোষণার এই নয়া দাবির খবর ছড়িয়েছিল৷ যে খবরের কড়া প্রতিক্রিয়া দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তিনি স্পষ্ট বলেন, 'নতুন করে আর বঙ্গভঙ্গ হতে দেওয়া হবে না৷ কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল মানে কী? জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার, শিলিগুড়ির জমি বিক্রি করে দেবে? মুখে চিনের বিরোধিতা করবে আর বাস্তবে চিনের হাত শক্ত করবে?'

    তবে দলীয় সাংসদের এই দাবিতে নতুন করে অস্বস্তি বেড়েছে বিজেপি-র৷ কারণ এই দাবিকে সমর্থন করলে বিজেপি রাজ্য ভাগ করতে চাইছে, সেই মতকেই স্বীকৃতি দেওয়া হবে৷ রাজ্য বিজেপি-র নেতা সায়ন্তন বসু তাই জন বার্লার মন্তব্যকে দলের অবস্থান নয় বলেই দাবি করেছেন৷ তাঁর পাল্টা প্রশ্ন, 'বিজেপি কি কোথাও বলেছে ভোটে জিতলেই আলাদা রাজ্য করে দেবে?' যদিও এমন দাবি করার জন্য দলীয় সাংসদের বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ করা হবে কি না, সে বিষয়টি স্পষ্ট করেনি বিজেপি নেতৃত্ব৷

    লোকসভা নির্বাচনে উত্তরবঙ্গের সাতটি আসনই দখল করেছিল বিজেপি৷ কিন্তু বিধানসভা নির্বাচনে হারানো জমি অনেকটাই পুনরুদ্ধার করে ফেলেছে তৃণমূল৷ তবু দক্ষিণের তুলনায় উত্তরেই বিজেপি-র ফল ভাল হয়েছে৷ উত্তরবঙ্গের মোট ৫৪টি আসনের মধ্যে তিরিশটিতে জয়ী হয়েছে বিজেপি৷ আগামী লোকসভা নির্বাচনে উত্তরবঙ্গে এই জনসমর্থন ধরে রাখা বিজেপি-র কাছে বড় চ্যালেঞ্জ৷ ফলে ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের আগে অনুন্নয়নের অভিযোগকে সামনে রেখে পৃথক রাজ্যের জিগিড় তুলেই উত্তরবঙ্গের মানুষের মনোভাব বুঝে নেওয়ার কৌশলি গেরুয়া শিবির নিচ্ছে কি না, জন বার্লার এই মন্তব্যের পর সেই প্রশ্নও উঠছে রাজনৈতিক মহলে৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: