বড়দিনে দিলীপ ঘোষের ‘বন্ধুত্ব’ বার্তা,রাজনৈতিক লড়াই'কে নীতির লড়াইমুখী করবে কি?

বড়দিনে  দিলীপ ঘোষের ‘বন্ধুত্ব’ বার্তা,রাজনৈতিক লড়াই'কে নীতির লড়াইমুখী করবে কি?
Photo Courtesy- Dilip Ghosh / Twitter

বাকযুদ্ধ ছেড়ে "বন্ধুত্ব" বার্তা, বড়দিনে অন্যমেজাজে দিলীপ ঘোষ

  • Share this:

ARNAB HAZRA

#জলপাইগুড়ি : রাজ্য বিজেপি'র মুখ তিনি। রাজনৈতিক লড়াইয়ে গেরুয়া শিবিরের অন্যতম সেনাপতি। তাঁর সভাপতিত্বেই লোকসভা ভোটে এসেছে সাফল্য। সমর্থকদের রিচার্জ করতে তাঁর জুড়ি মেলা ভার। চাঁছাছোলা ভাষণই তাঁর ইউএসপি। ভয়ডরহীন ব্যাটিং বরাবর পছন্দের ক্রিকেট পাগল মানুষটির। মঙ্গলবার শিলিগুড়ি বাঘাযতীন পার্ক থেকে মাল্লাগুড়ি পর্যন্ত নাগরিক অভিনন্দন যাত্রার পুরোভাগে নেতৃত্ব দিয়েছেন।

ভাষণেও আগুন ঝরিয়েছেন। মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে পাশে নিয়ে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। সিএএ পক্ষে দাঁড়িয়ে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বাংলাদেশী অনুপ্রবেশকারীদের।পুলিশের অনুমতি না নিয়ে মিছিল শেষ করেছেন। এহেন, দিলীপ ঘোষ ২৪ ঘন্টার ব্যবধানে বদলে গেলেন। রাত পেরোতেই বড়দিন। দিনটা জলপাইগুড়িতে নানা সভা-সমিতির মধ্যে কাটালেন।২৫ ডিসেম্বর আবার অটল বিহারি বাজপেয়ী জন্মদিন।এই দিনের শুরু থেকেই দিলীপ ঘোষের ভাষণে কোথাও বাকযুদ্ধ সামনে আসেনি। রাজনৈতিক লড়াইয়ের থেকে তাঁর বক্তব্যে এদিন বেশি প্রাধান্য ছিলো, মানবিকতা, বন্ধুত্ব, প্রেম, ভালোবাসার৷ তাঁর কথায়, " আজ খ্রীস্টান ধর্মের প্রতিষ্ঠাতা যীশু খ্রীস্টের জন্মদিন। তিনি প্রেম, ভালোবাসা, বন্ধুত্বের কথা বলেন। বড়দিন আমাদের মহান সন্তান অটল বিহারী বাজপেয়ীর জন্মদিন। তিনি শিখিয়েছেন দেশের সবাইকে একজোট করে নিয়ে কিভাবে এগোতে হয়।"

আরও পড়ুন - ‘আর এক বছর,তারপরে বিদায়’ ক্রিসমাসে নিজের অবসর ঘোষণা করে আবেগঘন পোস্ট লিয়েন্ডার পেজের

বড়দিনে সোশ্যাল সাইটে, নিজের এই মন্তব্য ভিডিও আকারে পোস্টও করেছেন দিলীপবাবু। লড়াই, পাল্টা-লড়াই নানা বার্তা থাকেই রাজনৈতিক নেতাদের ভাষণজুড়ে। এটাই যেন দস্তুর হয়ে দাঁড়িয়েছে আজকাল।

প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনকে সামনে রেখে সারা রাজ্যজুড়ে "সেবা" বার্তা পৌঁছে দিতে চেয়েছে পদ্ম শিবির। সেটা হয়তো একটা কৌশল। তবে চেনা দিলীপ ঘোষে'র এমন অচেনা মেজাজে আজ অনেকেই অবাক হয়েছেন।

আরও দেখুন

First published: December 25, 2019, 11:27 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर