প্রতিশ্রুতি দিয়েও টিকিট দেয়নি দল, নির্দল প্রার্থী হয়ে লড়ার সিদ্ধান্ত বিজেপি নেতার

প্রতিশ্রুতি দিয়েও টিকিট দেয়নি দল, নির্দল প্রার্থী হয়ে লড়ার সিদ্ধান্ত বিজেপি নেতার

নির্দল প্রার্থী হয়ে লড়ার সিদ্ধান্ত বিজেপি নেতার

প্রার্থীর হওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েও দলীয় নেতারা সেই প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করেছেন। প্রার্থী হওয়ার আশ্বাস পেয়ে প্রচারের জন্য ২৮ লক্ষ টাকা খরচ করেছেন।

  • Share this:

#রায়গঞ্জ: টিকিট না পেয়ে দলীয় নেতৃত্বের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দিলেন বিজেপি ওবিসি মোর্চার সহ সভাপতি মদন বিশ্বাস। প্রার্থীর হওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েও দলীয় নেতারা সেই প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করেছেন। প্রার্থী হওয়ার আশ্বাস পেয়ে প্রচারের জন্য ২৮ লক্ষ টাকা খরচ করেছেন। দল যেভাবে প্রার্থী মনোনীত করেছে তাতে জেলার ৯টি আসনের মধ্যে একটি আসনেও বিজেপি জয়ী হবে না বলে সাফ জানিয়ে দিলেন মদনবাবু।

এই ব্যর্থতার দায় রায়গঞ্জের সাংসদ দেবশ্রী চৌধুরীর। তবে মদনবাবুর দাবি মানতে রাজি নন বিজেপি উত্তর দিনাজপুর জেলা সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ী। বিশ্বজিৎবাবুর দাবি যে মদনবাবুকে কোনও প্রতিশ্রুতি দেয়নি দল। তিনি নিজের ছবি দিয়ে প্রচার করেছেন। সেই প্রচারে কত টাকা খরচ হয়েছে তা তিনি বলতে পারবেন। দল যাকে প্রার্থী করেছে দলীয় শৃঙখলা মেনে সবাইকে তার হয়ে প্রচারে নামতে হবে জেলা সভাপতি জানিয়ে দিয়েছেন।

বিজেপি প্রার্থী তালিকা ঘোষনার পরে জেলা জুড়ে বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা ব্যাপক ক্ষুব্ধ হন। জেলা কার্যালয়ে ভাঙচুর এবং আগুন ধরিয়ে দেওয়ার ঘটনা ঘটছে। রায়গঞ্জ কেন্দ্রে বিজেপির প্রার্থী করা হয়েছে বিশিষ্ট শিল্পপতি কৃষ্ণ কল্যানীকে। বিজেপির ওবিসি মোর্চার সহসভাপতি মদন বিশ্বাসের অভিযোগ বিজেপির দলীয় নেতারা তাঁকে প্রার্থী করার আশ্বাস দিয়েছিলেন। সেই আশ্বাসের পর তিনি দলীয় সংগঠন বৃদ্ধির উপর বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছিলেন। প্রচারের জন্য ইতিমধ্যে তাঁর ২৮ লক্ষ টাকা খরচ হয়ে যায়।

রায়গঞ্জের সাংসদ দেবশ্রী চৌধুরী অর্থের বিনিময়ে একজন বাম পরিবারের সদস্যকে প্রার্থী করা হয়েছে। দলীয় কর্মীদের প্রার্থী না করে বহিরাগতদের প্রার্থী করায় জেলার ৯টি আসনের মধ্যে একটি আসনও বিজেপি প্রার্থীরা জিততে পাবে না। বিজেপিকে এই জেলায় শূন্য হাতে ফিরতে হবে বলে দাবি মদনবাবুর। দল তাঁর বিরুদ্ধে বিশ্বাসঘাতকতা করায় দলীয় কর্মীরা তাঁকে নির্দল প্রার্থী হিসেবে দাঁড়ানোর জন্য প্রস্তাব দিয়েছেন।

কর্মীদের সেই প্রস্তাব মেনে তিনি নির্দল প্রার্থী হিসেবে দাঁড়াতে প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছেন। ওবিসি মোর্চার সহ সভাপতির এই দাবিকে উড়িয়ে দিয়েছেন বিজেপি জেলা সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ী। মদনবাবু যে দাবি করছেন সেই দাবি ঠিক নয়।কারণ সাংগঠনিক নিয়ম মেনে প্রার্থী হওয়ার জন্য অন্যদের মত তিনিও আবেদন করেছিলেন।

Uttam Paul

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published: