'রাজনৈতিক লাভের জন্য উত্তরবঙ্গকে বিচ্ছিন্ন করতে চায়,' বিজেপিকে কটাক্ষ সাবিনা ইয়াসমিনের

রাজ্যের তৃণমূল সরকার ক্ষমতায় আসার পরেই উত্তরবঙ্গের উন্নয়নের জন্য আলাদা করে দফতর গঠন করা হয়েছে। উত্তরবঙ্গকে সমান গুরুত্ব দিয়ে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার কথা ভাবেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

রাজ্যের তৃণমূল সরকার ক্ষমতায় আসার পরেই উত্তরবঙ্গের উন্নয়নের জন্য আলাদা করে দফতর গঠন করা হয়েছে। উত্তরবঙ্গকে সমান গুরুত্ব দিয়ে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার কথা ভাবেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

  • Share this:

#মালদহ: রাজ্যের তৃণমূল সরকার ক্ষমতায় আসার পরেই উত্তরবঙ্গের উন্নয়নের জন্য আলাদা করে দফতর গঠন করা হয়েছে। উত্তরবঙ্গকে সমান গুরুত্ব দিয়ে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার কথা ভাবেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বর্তমানে এই দফতরের বার্ষিক বাজেট সাড়ে সাতশো কোটির বেশি। উত্তরবঙ্গের 'ছিটমহল' সমস্যা মিটিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন ভাষার সরকারি স্বীকৃতি দিয়েছেন। পঞ্চানন বর্মার নামে বিশ্ববিদ্যালয় করেছেন। উত্তরবঙ্গের উন্নয়ন শুধুমাত্র নবান্ন থেকে নিয়ন্ত্রিত হবে না, এ জন্য গঠন করা হয় 'উত্তরকন্যা'। অতীতে কেউ কখনও উত্তরবঙ্গের জন্য এমনভাবে ভাবেননি।

কিন্তু, এই অবস্থায় দাঁড়িয়ে উত্তরবঙ্গকে বিচ্ছিন্ন করার চেষ্টা হচ্ছে। বিজেপি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের কথা বলে রাজনৈতিক লাভের আশায় উত্তরবঙ্গকে বিচ্ছিন্ন করতে চাইছে। কিন্তু,আমরা তা কোনও অবস্থাতেই হতে দেবো না। শুক্রবার মালদহ প্রেস কর্ণারে সাংবাদিক বৈঠক করে এমনই মন্তব্য করলেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন প্রতিমন্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন। তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার কেন উত্তরবঙ্গের উন্নয়নে কাজ করছেন না? জবাবে বিজেপির যেসব জনপ্রতিনিধি আলাদা উত্তরবঙ্গের কথা বলছেন তাঁদের দিতে হবে। উত্তরবঙ্গের জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের প্রকল্প কই? এই প্রশ্নও তোলেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন প্রতিমন্ত্রী।

সম্প্রতি উত্তরবঙ্গের কয়েকজন বিজেপি সাংসদ ও বিধায়ক আইনশৃঙ্খলা ও উন্নয়নের স্বার্থে পৃথক  উত্তরবঙ্গের পক্ষে  সওয়াল করেন। এই ইস্যুতে উত্তরবঙ্গ জুড়ে তৃণমূল প্রয়োজনে জনমত গঠন করতে রাস্তায় নামবে বলেও আজ স্পষ্ট করে দিয়েছেন মালদহের জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব। মালদা প্রেস কর্ণারে সাংবাদিক বৈঠকে তৃণমূলের জেলা চেয়ারম্যান কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরী, জেলা সভাপতি মৌসম বেনজির নূর প্রমূখ বলেন, উত্তরবঙ্গের যেসব বিজেপির জনপ্রতিনিধি উত্তরবঙ্গকে বিচ্ছিন্ন করার কথা ভাবছেন তাঁদের আকাঙ্ক্ষা সফল হবে না। বরং এতে বিচ্ছিন্নতাবাদীরা উৎসাহিত হবে। আলাদা উত্তরবঙ্গের ইস্যুতে বিজেপির জনপ্রতিনিধিরাও দ্বিধাবিভক্ত বলে এদিন কটাক্ষ করেন তাঁরা। প্রয়োজনে উত্তরবঙ্গের অখণ্ডতার স্বার্থে জনমত গড়ে তোলা হবে বলেও এদিন জানিয়েছেন তৃণমূল নেতৃত্ব।

Sebak DebSarma

Published by:Shubhagata Dey
First published: