উত্তরবঙ্গ

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

পাহাড়ে গেরুয়া শিবিরের একমাত্র ভরসা বিমল গুরুং

পাহাড়ে গেরুয়া শিবিরের একমাত্র ভরসা বিমল গুরুং
Photo: News 18 Bangla
  • Share this:

#দার্জিলিং: জিততে না পারলেও ভোট কাটাকাটির অঙ্কে তৃণমূলকে চাপে ফেলতে চাইছে বিজেপি। আর এক্ষেত্রে গেরুয়া শিবিরের একমাত্র ভরসা বিমল গুরুং। গুরুং সশরীরে থাকুন বা নাই থাকুন, গুরুং ক্যারিশমা কাজে লাগিয়েই অস্তিত্ব বাঁচাতে মরিয়া গেরুয়া শিবির। নিজে জিততে না পারলেও ভোট কাটাকাটির অঙ্কে তৃণমূলকে চাপে ফেলা যাবে। তাই ভোটের মুখে যে কোনও ভাবে বিমল গুরুংকে পাহাড়ের রাজনীতিতে নামাতে মরিয়া গেরুয়া শিবির। ২০১৪ সালে দার্জিলিং থেকে বিপুল ভোটে জেতেন বিজেপির এসএস আলুওয়ালিয়া। তখন বিজেপির সঙ্গে জোট করে লড়েছিল গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা। মুখ ছিলেন বিমল গুরুং। গত কয়েক বছরে আতঙ্ক আর রাজনীতির পালাবদল দেখেছে পাহাড়। পাহাড়ের নতুন নেতা হিসাবে স্বীকৃতি পেয়েছেন বিনয় তামাং। ক্রমশ কোণঠাসা হয়ে আপাতত ফেরার বিমল গুরুং। বদলে গিয়েছে পাহাড়ের রাজনৈতিক সমীকরণ। তা মাথায় রেখেই বিজেপি অঙ্ক সোজা। - পাহাড়ে প্রায় ১৭ লক্ষ ভোটের

- এর মধ্যে ৬ লক্ষ পাহাড়ের তিনটি মহকুমায় - এই ভোটেই নজর বিজেপির বিমল গুরুং সক্রিয় হলে এর ভোটের কিছুটা ধরে রাখা যাবে বলে মনে করছে বিজেপি। এই আশা থেকেই গুরুং ফ্যাক্টরকে পাহাড়ে ফেরানোর ভাবনা। এমনকি বিমল গুরুংকে সরাসরি ভোটের কাজে ব্যবহারের সম্ভাবনাও উড়িয়ে দিচ্ছে না বিজেপি। গুরুংকে নিয়ে এই অঙ্ক অস্বীকার করতে পারছে না রাজ্যের শাসকদলও। কিন্তু বেশ কিছু ফৌজদারি মামলা মাথায় নিয়ে ফেরার গুরুং নিজেও তো প্রবল চাপে। ভোটার তালিকা থেকে নাম বাদ গিয়েছে। ভোটে অংশ নিতে চেয়ে শীর্ষ আদালতে আবেদন করলেও মনোনয়ন পর্বের পরই মামলার পরবর্তী শুনানি হবে। পাহাড়কে বিপন্ন করে ফেরার হওয়ার জবাবও চাইতে পারেন পাহাড়বাসী। তাই বিজেপি ভাবনা মতো কাজ হওয়া কঠিন, গুরুঙের চ্যালেঞ্জও বোধহয় আরও শক্ত।

First published: March 17, 2019, 10:09 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर