• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • মালদহ মেডিক্যাল কলেজের কড়া পদক্ষেপ! শুরু হচ্ছে বায়োমেট্রিক অ্যাটেন্ডেন্স ব্যবস্থা

মালদহ মেডিক্যাল কলেজের কড়া পদক্ষেপ! শুরু হচ্ছে বায়োমেট্রিক অ্যাটেন্ডেন্স ব্যবস্থা

File image

File image

মালদহ মেডিক্যাল কলেজে কর্মসংস্কৃতি ফেরাতে নয়া উদ্যোগ! শুরু হচ্ছে বায়োমেট্রিক অ্যাটেন্ডেন্স ব্যবস্থা

  • Share this:

    #মালদহ: রাজ্যের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সরকারি হাসপাতাল। অত্যাধুনিক পরিকাঠামো। আধুনিক চিকিৎসা পরিষেবা। সবই আছে। তবু অভিযোগ অঢেল। একাংশ চিকিৎসক ও কর্মীদের ইচ্ছেমত হাজিরা নিয়ে বাড়ছে অভিযোগ। অনিয়মিত হাজিরায় রাশ টানতে মালদহ মেডিক্যাল কলেজে শুরু হচ্ছে বায়োমেট্রিক অ্যাটেন্ডেন্স ব্যবস্থা।

    সদিচ্ছে আছে সরকারের। আধুনিক হয়েছে হাসপাতাল। বসেছে অত্যাধুনিক যন্ত্র। গত কয়েক বছরে আমূল বদলেছে পরিকাঠামো। তবু মালদহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিষেবা নিয়ে সন্তুষ্ট নন অনেক রোগীই। কারণ, চিকিৎসক ও কর্মীদের একাংশের অনিয়মিত হাজিরা। এতদিন হাজিরার নজরদারিতে রেজিস্টারই ছিল একমাত্র ভরসা। চলত দেদার কারচুপি। কাজেই, ফাঁকিবাজি রুখতে এবার হাসপাতালে বসছে স্বয়ংক্রিয় যন্ত্র। কর্মসংস্কৃতি ফেরাতে হাসপাতালে শুরু হচ্ছে বায়োমেট্রিক অ্যাটেন্ডেন্স ব্যবস্থা।

    অবস্থানগত গুরুত্বের কারণে রাজ্যের একটা বড় অংশের মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষার গুরুভার এই হাসপাতালের উপর। মালদহ ছাড়াও উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর, মুর্শিদাবাদ, প্রতিবেশী বিহার, ঝাড়খণ্ড, বাংলাদেশ থেকেও রোগীরা আসেন।

    হাসপাতালে রয়েছে ১০০০টি শয্যা। প্রতিদিন ইনডোরে ১৫০০ রোগীর ও আউটডোরে গড়ে ৩-৪ হাজার রোগীর চিকিৎসা হয়। রয়েছেন ১৯২ চিকিৎসক ও ৩২৭ নার্সিং স্টাফ। হাসপাতালে কাজ করেন ৩০০ জন স্বাস্থ্যকর্মী।

    জুন থেকেই শুরু হচ্ছে বায়োমেট্রিক অ্যাটেন্ডেন্স ব্যবস্থা। আপাতত কিছুদিনের জন্য অ্যাটেনডেন্স রেজিস্টার থাকলেও, ধীরে ধীরে তা তুলে দেওয়া হবে।

     আরও পড়ুন-১০বছরেও অমিল পেনশন, অবসাদে আত্মঘাতী শিক্ষক

    First published: