• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • নাটক চরমে, কয়েকদিনেই আসত অনাস্থা প্রস্তাব, তার আগেই পদ ছাড়লেন মোশারফ হোসেন

নাটক চরমে, কয়েকদিনেই আসত অনাস্থা প্রস্তাব, তার আগেই পদ ছাড়লেন মোশারফ হোসেন

রীতিমতো শোরগোল পড়েছে মুর্শিদাবাদের রাজনৈতিক মহলে।অনাস্থা ডাকার আগেই সভাধিপতি পদ থেকে ইস্তফা দিলেন মোশারফ হোসেন।

রীতিমতো শোরগোল পড়েছে মুর্শিদাবাদের রাজনৈতিক মহলে।অনাস্থা ডাকার আগেই সভাধিপতি পদ থেকে ইস্তফা দিলেন মোশারফ হোসেন।

রীতিমতো শোরগোল পড়েছে মুর্শিদাবাদের রাজনৈতিক মহলে।অনাস্থা ডাকার আগেই সভাধিপতি পদ থেকে ইস্তফা দিলেন মোশারফ হোসেন।

  • Share this:

#মুর্শিদাবাদ:  অনাস্থা ডাকার আগেই সভাধিপতি পদ থেকে ইস্তফা দিলেন মোশারফ হোসেন। বুধবার রাতেই মালদহ মুর্শিদাবাদ ডিভিশনাল কমিশনারকে লিখিত ইস্তফা পাঠিয়েছেন বলে জানান তিনি। উল্লেখ্য বুধবার দুপুরে সাংবাদিক সম্মেলন করে জেলা তৃণমূলের সভাপতি আবু তাহের খান জানান আগামী ২৪শে মে সভাধিপতির বিরুদ্ধে অনাস্থা এনে তাঁকে পদ থেকে অপসরন করা হবে। আর তারপরেই তড়িঘড়ি সভাধিপতির পদ থেকে মোশারফ হোসেন ইস্তফা দেওয়ায় রীতিমতো শোরগোল পড়েছে মুর্শিদাবাদের রাজনৈতিক মহলে।

প্রসঙ্গত গত ফেব্রুয়ারী মাসে মোশারফ হোসেনকে দল বিরোধী কাজের জন্য দল থেকে বহিষ্কারের কথা ঘোষণা করেন জেলা তৃণমূলের সভাপতি আবু তাহের খান। এরপর নিজের পুরোনো গড় কংগ্রেসে ফিরে আসেন সভাধিপতি মোশারফ হোসেন। তৃণমূল দল ত্যাগ করলেও সভাধিপতি পদে ছিলেন তিনি। কংগ্রেসের টিকিটে নওদা বিধানসভা থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতাও করেন। তবে ভোটে ভরাডুবি হয় তার। সেইসঙ্গে সভাধিপতি পদ থেকে তাকে অপসারণের জন্য শুরু হয় জল্পনা। তবে অনাস্থা ডাকার আগেই সভাধিপতি পদ থেকে পদত্যাগ করলেন মোশারফ হোসেন। বুধবার রাতেই মালদহ মুর্শিদাবাদ ডিভিশনাল কমিশনারকে লিখিত ইস্তফা পাঠিয়েছেন বলে জানান তিনি। উল্লেখ্য বুধবার দুপুরে সাংবাদিক সম্মেলন করে জেলা তৃণমূলের সভাপতি আবু তাহের খান জানান আগামী ২৪শে মে সভাধিপতির বিরুদ্ধে অনাস্থা এনে তাকে পদ থেকে অপসারণ করা হত। অনেক আগেই ইস্তফা দেওয়া উচিত ছিল। তাহলে আমাদেরকে আর অনাস্থা ডাকতে হতো না। এছাড়া দলে থেকে দলবিরোধী কাজ করায় দলের একাধিক নেতা কর্মীদের বিরুদ্ধেও কঠোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

তবে তড়িঘড়ি সভাধিপতির পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ায় রীতিমতো শোরগোল পড়েছে মুর্শিদাবাদের রাজনৈতিক মহলে। যদিও তৃণমূল থেকে  কংগ্রেসে যোগদান করাতেই স্বেচ্ছায় পদত্যাগ বলে স্বীকার করে নেন মোশারফ হোসেন। কিন্তু এখনও সরকারি ভাবে কোনো অনাস্থা পত্র তিনি পাননি। পদ আটকে না রেখে ইস্তফা দিয়ে দেওয়াই নৈতিকতা। এই মনে করে সেই কারণেই পদত্যাগের সিদ্ধান্ত বলে জানান তিনি। তবে ২১শের বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেস কোনো আসন না পাওয়ার প্রসঙ্গে তিনি বলেন,  ‘‘কংগ্রেস দল এখনও মানুষের মনে আছে। কংগ্রেস তার হারানো জমি ফিরে পাবে।’’

Pranab Kumar Banerjee

Published by:Debalina Datta
First published: