ভোট কর্মীদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করার দাবি জানালো বঙ্গীয় শিক্ষক ও শিক্ষা কর্মী সংগঠন! 

ভোট কর্মীদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করার দাবি জানালো বঙ্গীয় শিক্ষক ও শিক্ষা কর্মী সংগঠন! 

মহিলা ভোট কর্মীদের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখেই যেন সিদ্ধান্ত নেয় জেলা নির্বাচনী আধিকারিক।

মহিলা ভোট কর্মীদের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখেই যেন সিদ্ধান্ত নেয় জেলা নির্বাচনী আধিকারিক।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: "ভোট আসে ভোট যায়, ভোট কর্মীর প্রাণ যায়। ভিক্ষা নয় শিক্ষা চাই, ভোট কর্মীর সুরক্ষা চাই।" মূলত এই দুই স্লোগানকে সামনে রেখে এবারে প্রশাসনের ওপর চাপ বাড়ালো বঙ্গীয় শিক্ষক ও শিক্ষা কর্মী সংগঠন। আসন্ন নির্বাচনে ভোট কর্মী এবং ভোটারদের সুনিরাপত্তার বন্দোবস্ত করতে হবে। এই দাবিই তুললেন তাঁরা।

নির্বাচনী প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে গিয়ে প্রতিবারই নিত্য নতুন অভিজ্ঞতার মুখে পড়তে হয় তাদের। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা, কর্মীদের হাতে নিগৃহীত হতে হয়। ঘণ্টার পর ঘণ্টা ঘেরাওয়ের মধ্যে থাকতে হয়। শাসক দলের রোষের মুখেও পড়তে হয়। একুশের নির্বাচনে যেন এর পুনরাবৃত্তি না ঘটে তাই প্রশাসনের দ্বারস্থ হল এই সংগঠন। তাদের কথায়, এর আগে রায়গঞ্জে এক ভোট কর্মী স্কুল শিক্ষকের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছিল। নিহত শিক্ষকের বাড়ি শিলিগুড়ির ফাঁসিদেওয়ায়। সেই উদাহরণকে সামনে রেখে নিজেদের সুরক্ষার দাবি জানালো তারা। শিলিগুড়ির মহকুমা শাসকের কাছে স্মারকলিপি দিল তারা। উত্তরের অন্য জেলাতেও প্রশাসনিক প্রধানদের হাতে ডেপুটেশন দেয় সংগঠনের সদস্যরা। তাদের দাবি, ভোট কর্মীরা সুরক্ষিত হলেই ভোট পর্ব শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হবে। সেইসঙ্গে মহিলাদের বুথে নয়, ডিসিআরসিতে নিয়োগ করার দাবিও জানিয়েছে তারা। মহিলা ভোট কর্মীদের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখেই যেন সিদ্ধান্ত নেয় জেলা নির্বাচনী আধিকারিক।

বঙ্গীয় শিক্ষক ও শিক্ষা কর্মী সংগঠনের দার্জিলিং জেলা শাখার আহ্বায়ক মানিক চন্দ্র দাস জানান, ভোট কর্মীদের নিরাপত্তার কথা ভাবেনই না প্রশাসনিক কর্তারা। অথচ ভোট কর্মী ছাড়া নির্বাচন করা সম্ভব নয়। আধা সেনা মোতায়েন থাকবে ঠিকই, তবু নিজেদের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তারা। আর এক ভোট কর্মী জানান, দাবি না মেটালে চাপ তৈরি করা হবে। বিশেষ করে স্পর্শকাতর এবং অতি স্পর্শকাতর বুথগুলিতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা সুনিশ্চিত করতে হবে। বিষয়টি নিয়ে জেলা প্রশাসনের এক কর্তা জানান, সংগঠনের দাবি গুরুত্বের সঙ্গেই দেখা হবে এবং প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

Partha Sarkar

Published by:Debalina Datta
First published: