উত্তরবঙ্গ

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

যন্ত্রের যন্ত্রণা ! মাসের প্রথমে এটিএমে টাকা অমিল, ব্যাপক সমস্যায় মালদহের গ্রাহকেরা

যন্ত্রের যন্ত্রণা ! মাসের প্রথমে এটিএমে টাকা অমিল, ব্যাপক সমস্যায় মালদহের গ্রাহকেরা

শুক্রবার গান্ধি জয়ন্তীতে ব্যাঙ্ক ছুটি থাকায় টাকা ভরা হয়নি এটিএম গুলিতে। এতেই সমস্যা বেড়েছে ৷ সাফাই ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষের।

  • Share this:

#মালদহঃ-মালদহ শহরে এক এটিএম থেকে অন্য এটিএম-এ চরকির পাক। মাসের প্রথমে হন্য হয়ে ঘুরছেন মানুষ। কিন্তু টাকা মিলছে না।  শুক্রবার গান্ধি জয়ন্তীতে ব্যাঙ্ক ছুটি থাকায় টাকা ভরা হয়নি এটিএম গুলিতে। এতেই সমস্যা বেড়েছে ৷ সাফাই ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষের।

ছুটির দিন, কিংবা গভীর রাতও নয়। মাসের প্রথমেই টানা দুই দিন দিনভর টাকা অমিল মালদহ শহরের সিংহভাগ এটিএম-এ। কারো  প্রয়োজন পুজোর মাসে কেনাকাটার, কারোর দরকার মাস পয়লার বাজার,কেউ পাওনাদারদের টাকা মেটাতে সকাল সকাল এটিএম মুখো হয়েছিলেন। কিন্তু, কোনও এটিএম-এর বাইরে নোটিস ‘নো ক্যাশ’। কোনও এটিএমে বলা হচ্ছে ‘লিঙ্ক ফেলিওর’। কোনও এটিএমের আবার ঝাঁপ-ই বন্ধ।

হাতের কাছে এটিএম থেকে টাকা তুলে চটজলদি বাড়ি ফিরবেন বলে যাঁরা এদিন বাইরে বের হয়েছিলেন একের পর এক এটিএম ঘুরে অনেকেই ক্লান্ত হয়ে খালি হাতে বাড়ি  ফিরতে বাধ্য হয়েছেন। অনেককে আবার দেখা যায় মুখে বেজাড় করে ঝাঁপ বন্ধ এটিএম খোলার অপেক্ষায়। মাসের প্রথমে প্রত্যেকেরই যে টাকার বড়  প্রয়োজন। মালদহ শহরের এটিএম গুলি যখন টাকা শূন্য তখন শহরের নজরুল সরনীতে একটি রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাঙ্কের সামনে হাতে পাস বই নিয়েই টাকা  তোলার জন্য লম্বা লাইন পড়ে গ্রাহকদের। সব মিলিয়ে এটিএম দুর্ভোগের শিকার মালদহের গৃহবধূ থেকে অবসরপ্রাপ্ত প্রবীন প্রত্যেকেই।

মালদা শহরে এটিএম গুলিতে নানান সমস্যা। শহরের অধিকাংশ এটিএম-ও কোনও নিরাপত্তারক্ষী নেই। আবার সিংহভাগ এটিএম ১০০ বা ২০০ টাকার ছোট নোট মেলে না। অধিকাংশ এটিএম-এ কোনও রক্ষণাবেক্ষণ নেই। ফলে এটিএম নিয়ে গ্রাহকদের ভোগান্তি চলছেই। হাতেগোনা যে সব এটিএম নিরাপত্তা রক্ষী রয়েছেন তাঁদের সঙ্গে কথা বলে জানা গিয়েছে, শহরের বেশির ভাগ এটিএম গতকাল, শুক্রবার সকালের পর থেকেই টাকা উধাও হয়ে যায়। ফলে, গতকাল থেকেই গ্রাহকদের ঘুরিয়ে দিতে হচ্ছে।

জানা গিয়েছে, মালদহ জেলায় বিভিন্ন ব্যাঙ্ক মিলিয়ে মোট ২৪৬টি এটিএম রয়েছে। এরমধ্যে ৯৮ টি এটিএম রয়েছে দুই পুরসভা শহর ইংরেজবাজার ও পুরাতন মালদহে। কিন্তু প্রায় কোনও ব্যাঙ্কেই ছুটির দিনে এটিএমে টাকা ভরার ব্যবস্থা নেই। ফলে আগামী ছুটির দিনগুলোতেও একই ধরনের সমস্যা দেখা দেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। যদিও মালদহের লিড ব্যাঙ্ক ম্যানেজার সুশান্ত হালদার আশ্বাস দিয়েছেন, সমস্যা নিয়ে বিভিন্ন ব্যাঙ্কের সঙ্গে কথা বলা হবে। পুজোর সময় ছুটির মধ্যেও যাতে অন্ততঃ দুই দিন যাতে এটিএম গুলিতে টাকা ভরা যায় সেই উদ্যোগ নেওয়া  হবে।

সেবক দেবশর্মা

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: October 3, 2020, 9:11 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर