Home /News /north-bengal /

Leopard Fear in Jalpaiguri: ভালুক-রয়্যাল বেঙ্গল রহস্য কাটার আগেই এবার জলপাইগুড়িতে চিতাবাঘের আতঙ্ক!

Leopard Fear in Jalpaiguri: ভালুক-রয়্যাল বেঙ্গল রহস্য কাটার আগেই এবার জলপাইগুড়িতে চিতাবাঘের আতঙ্ক!

Leopard Fear in Jalpaiguri

Leopard Fear in Jalpaiguri

চিতাবাঘটি একটি ছাগল খেয়েছে বলেও আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে (Leopard Fear in Jalpaiguri)।

  • Share this:

    #জলপাইগুড়ি: কিছুদিন আগেই জলপাইগুড়ির তিস্তা উদ্যানে পায়ের দাগ মিলেছিল ভালুকের। বক্সার জঙ্গলে প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে রয়্যাল বেঙ্গল টাইগারের। যদিও ভালুক বা বাঘ কোনওটিই এখনও ধরা পড়েনি। তার মাঝে বৃহস্পতিবার জলপাইগুড়ি সদর ব্লকের শোভাবাড়ি ও ভোটকাটি গ্রামে চিতাবাঘের আতঙ্ক ছড়াল (Leopard Fear in Jalpaiguri)। এদিন দুপুরে মাঠের মধ্যে একটি চিতাবাঘকে দেখতে পাওয়া গিয়েছে বলে দাবি স্থানীয়দের। চিতাবাঘটি একটি ছাগল খেয়েছে বলেও আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে (Leopard Fear in Jalpaiguri)। মানুষের চিৎকার শুনে স্থানীয় একটি চা বাগানে গিয়ে লুকিয়ে পড়ে চিতাবাঘটি (Leopard Fear in Jalpaiguri)।

    শোভাবাড়িতে গ্রামের স্বপ্না রায়ের ছাগলকে টেনে স্থানীয় চা বাগানের ভিতরে নিয়ে যাবার সময় স্থানীয়রা দেখে ফেলে চিৎকার করলে চিতাবাঘটি পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থলে আগেই খাঁচাপাতা থাকলেও এখনও চিতাবাঘ ধরা না পড়ায় স্থানীয় বৈকুন্ঠপুর বনবিভাগের কর্মীদের ঘিরে বিক্ষোভ দেখান গ্রামবাসীরা।

    আরও পড়ুন: বক্সায় ৫ দিন পর চালু হচ্ছে জঙ্গল সাফারি, দর্শন মিলতেই পারে রয়্যাল বেঙ্গলের!

    গ্রামবাসীদের অভিযোগ, গত এক মাসের বেশি সময় ধরে গ্রামে ঘোরাঘুরি করছে একটি চিতাবাঘ। বন দফতরকে জানালে, শুধু খাঁচা পেতে রেখে চলে গিয়েছেন বনকর্মীরা। কিন্তু চিতাবাঘ ধরার ব্যাপারে কোনও পদক্ষেপই করেননি তাঁরা। তার উপর বৃহস্পতিবার গ্রামের মাঠে ছাগল খেয়েছে বাঘ। ভোটঘাটি গ্রামের এক বাসিন্দার বাছুর গতকাল সন্ধে থেকে পাওয়া যাচ্ছিল না। এদিন পাশেই অধীর চন্দ্র নামের এক কর্মী চা বাগানে স্প্রে করতে যান। সেখানে নিজের বাছুরের মৃতদেহ পড়ে রয়েছে দেখতে পান তিনি। এরপরই ফের এলাকায় আতঙ্ক ছড়ায়।

    আরও পড়ুন: বক্সায় ফের মিলল 'রাজকীয়' দর্শন! জঙ্গলে বাড়ছে ট্র্যাপ-ক্যামের নজরদারি, কোন উদ্বেগে বনবস্তি?

    ডিসেম্বরের শুরুতেই জলপাইগুড়ির জেলাশাসকের বাংলো থেকে ঢিল ছোড়া দূরত্বে তিস্তা উদ্যানে অজানা প্রাণীর রক্তমাখা পায়ের ছাপ দেখতে পান উদ্যানে কর্তব্যরত বনকর্মীরা। পরে সেই ছাপ পরীক্ষানিরীক্ষার পর বনকর্তাদের একাংশ দাবি করেন, ওই প্রাণীটি আসলে ভালুক। তার খোঁজে তল্লাশি চালান বনকর্মীরা। তবে তার হদিশ এখনও পাওয়া যায়নি।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published:

    Tags: Bangla News, Jalpaiguri, Leopard

    পরবর্তী খবর