• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • Malda| Bangla News|| পুজো মিটতেই স্ত্রী-সন্তানকে নিয়ে সিকিমে গিয়েছিলেন, শ্বাসকষ্টে মর্মান্তিক মৃত্যু মালদহের স্কুলের শিক্ষকের

Malda| Bangla News|| পুজো মিটতেই স্ত্রী-সন্তানকে নিয়ে সিকিমে গিয়েছিলেন, শ্বাসকষ্টে মর্মান্তিক মৃত্যু মালদহের স্কুলের শিক্ষকের

সিকিমে স্কুল শিক্ষকের মৃত্যু। প্রতীকী ছবি।

সিকিমে স্কুল শিক্ষকের মৃত্যু। প্রতীকী ছবি।

Malda School Teacher Died in Sikkim: পুজোর ছুটি (Durga Puja 2021 Vacation) কাটাতে সিকিমে (Sikkim) গিয়ে মৃত্যু হল মালদহের (Malda) স্কুল শিক্ষকের।

  • Share this:

    #মালদহঃ পুজোর ছুটি (Durga Puja 2021 Vacation) কাটাতে সিকিমে (Sikkim)  গিয়ে মৃত্যু হল মালদহের (Malda) স্কুল শিক্ষকের। গত রবিবার অর্থাৎ ১৭ অক্টোবর স্ত্রী এবং স্কুল পড়ুয়া ছেলেকে নিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে সিকিমে বেড়াতে গিয়েছিলেন দেবরাজ রায় (৪৯)। দিন দুয়েক ঘোরেন সকলের সঙ্গে মজা করে (Bangla News)। কিন্তু তারপরেই আচমকা ছন্দপতন! মঙ্গলবার আচমকা অসুস্থ হয়ে পড়েন দেবরাজ। স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত (School Teacher died) বলে ঘোষণা করেন।

    দেবরাজ রায় মালদহের ইংরেজবাজারের ১৯ নম্বর ওয়ার্ডের বিবেকানন্দপল্লির বাসিন্দা। বেড়াতে গিয়ে এমন মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে যাওয়ায় আতান্তরে পরিবার। মানসিক ভাবে চরম বিপর্যস্ত দেবরাজের স্ত্রী এবং সন্তান।  এ দিকে, বৃষ্টিতে পাহাড়ে ধস নেমেছে একাধিক জায়গায়। ফলে একাধিক জায়গার রাস্তা বন্ধ, যার জেরে মৃতদেহ শহরে ফেরাতে বেগ পেতে হচ্ছে পরিবারকে। মালদহ (Malda News) থেকে শিলিগুড়ি রওনা হয়েছেন পরিবারের সদস্যরা।

    আরও পড়ুন: সিকিমে আটকে বাংলার ১৪ জন পর্যটক, মোবাইল বন্ধ, উদ্বিগ্ন পরিবারের লোকজন

    রায় পরিবারের তরফে (Bangla News) জানা গিয়েছে, গত রবিবার ২৪ জনের একটি পর্যটক দল মালদহ থেকে সিকিমের উদেশ্যে রওনা দেন। স্কুল শিক্ষিকা স্ত্রী এবং মালদহ রামকৃষ্ণ মিশনের একাদশ শ্রেণির পড়ুয়া ছেলেকে নিয়ে সেই দলে যোগ দেন দেবরাজ রায়ও। পরিবারের দাবি, বেড়াতে যাওয়ার আগে একেবারে সুস্থ ছিলেন দেবরাজ। নিয়মিত শরীর চর্চা করতেন তিনি। কিন্তু, আচমকা শ্বাসকষ্ট এবং অক্সিজেনের মাত্রা কমে যায় তাঁর। স্থানীয় স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হলেও বাঁচানো যায়নি। শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী, গ্যাংটক থেকে রওনা মৃতদেহ নিয়ে ফিরছে অ্যাম্বুল্যান্স। আজ বুধবার রাতেই শিলিগুড়ি পৌঁছনোর কথা।

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: