corona virus btn
corona virus btn
Loading

মাথা ছাড়াই জন্ম নিল শিশু, পরিণতি মর্মান্তিক

মাথা ছাড়াই জন্ম নিল শিশু, পরিণতি মর্মান্তিক
Photo- Video Grab

বিরল রোগে আক্রান্ত শিশু

  • Share this:

#উত্তর দিনাজপুর: হাত-পা স্বাভাবিক। চোখও রয়েছে। অথচ তৈরি হয়নি মাথাই। বিরল অ্যানিনসেফালি রোগে আক্রান্ত। জন্মের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই মুত্যু হয়েছে উত্তর দিনাজপুরের চাকুলিয়ার সদ্যোজাতর। চিকিৎসকরা বলছেন, গর্ভাবস্থায় মায়ের সঠিক পরিচর্যা হলে এড়ানো যেত এই বিরল রোগ। বাঁচত সদ্যোজাতর প্রাণ।

দরিদ্র পরিবার। বাড়িতেই সন্তানের জন্ম দিয়েছিলেন নাজিরা খাতুন। কিন্তু, সদ্যোজাতকে হাতে পেয়েই পরিবারের মাথায় হাত। শিশুর মাথাই যে তৈরি হয়নি। চিকিৎসার ভাষায় রোগের নাম অ্যানিনসেফালি। তাতেই আক্রান্ত হয়ে সদ্যোজাতর মৃত্যু। উত্তর দিনাজপুরে, চাকুলিয়ার তারাপুরের ঘটনা।

- সদ্যোজাতের হাত-পা স্বাভাবিক ছিল

- কিন্তু শিশুর মাথা ছিল না

জন্মের তিন ঘণ্টার মধ্যেই সদ্যোজাতর মৃত্যু হয়। কারণ বিরল অ্যানিনসেফালি রোগে আক্রান্ত হয়েছিল শিশুটি।

- গর্ভাবস্থায় কয়েক দিনের মধ্যেই নিউরাল টিউব তৈরি হয়

- নিউরাল টিউব মস্তিষ্ক, মাথার খুলি, মেরুদণ্ড তৈরি করে

- নিউরাল টিউব ঠিকমতো তৈরি না হলেই অ্যানিনসেফালির সম্ভাবনা

চিকিৎসকদের মতে, অ্যানিনসেফালি হওয়ার প্রধান কারণ, গর্ভাবস্থায় ফলিক অ্যাসিড বা ভিটামিন বি9-এর অভাব।বর্তমানে সরকারি হাসপাতালে অন্তঃসত্বার চিকিৎসা ও আইসিডিএসে মাকে প্রয়োজনীয় পুষ্টি দেওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে। তার পরও সচেতন হচ্ছেন মা ও পরিবারের সদস্যরা।বিরল রোগ হলেও, সঠিক সময় চিকিৎসা হলে অ্যানিনসেফালির থাবা থেকে সন্তানকে বাঁচান সম্ভব। এর জন্য প্রয়োজন পরিবারের সচেতনতা।

আরও দেখুন

First published: August 2, 2019, 6:24 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर