Home /News /north-bengal /
Amit Shah in North Bengal: মাহালিদের কুঁড়েঘরে এসেছিলেন অমিত শাহ, তারপরই গোটা পরিবার তৃণমূলে! কারণ কী?

Amit Shah in North Bengal: মাহালিদের কুঁড়েঘরে এসেছিলেন অমিত শাহ, তারপরই গোটা পরিবার তৃণমূলে! কারণ কী?

২০১৭-র সেই দিন...

২০১৭-র সেই দিন...

Amit Shah in North Bengal: একুশের নির্বাচনের আগেও উত্তরবঙ্গ সফরে এসেছিলেন অমিত শাহ। আজ ফের আসছেন শিলিগুড়িতে।

  • Share this:

#কলকাতা: সালটা ২০১৭। এপ্রিলের ২৫ তারিখ তৎকালীন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের সঙ্গে নকশালবাড়ির কুঁড়ে ঘরে এসেছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah)। আদবাসী পরিবারের ঘরের বারান্দায় বসেই মধাহ্নভোজ সেরেছিলেন। মাঝে কেটে গেছে পাঁচ বছর। তারপর আর কেউ খোঁজ নেয়নি কেউই। একুশের নির্বাচনের আগেও উত্তরবঙ্গ সফরে এসেছিলেন শাহ। আজ ফের আসছেন শিলিগুড়িতে।

কিন্তু ডাক পাননি নকশালবাড়ির গীতা মাহালি। পরবর্তীতে তৃণমূলে যোগ দেন মাহালি পরিবার। মিলেছে চাকরি। তৈরী করে দিয়েছে বাড়িও। এখন বেশ ভালো আছেন, বলছেন মাহালী দম্পতি। তবে অমিত শা'কে দেখবেন টিভির পর্দায়। ডাক না পাওয়ার আক্ষেপ আছে। বর্তমানে হোমগার্ডের কর্মী গীতা মাহালি।

আরও পড়ুন: রাত আড়াইটে, পার্ক সার্কাসে মারাত্মক কাণ্ড! ডিসিপি অফিসের সামনেই মিলল দেহ! যা ঘটল...

বছর পাঁচেক আগে উত্তরবঙ্গে বিজেপি’র সাংগঠনিক শক্তিবৃদ্ধি করতে নকশালবাড়ির গরিব আদিবাসী মাহালি দম্পতির বাড়িতে পাত পেড়ে মধ্যাহ্নভোজ সেরেছিলেন অমিত শাহ। তখন অবশ্য তিনি বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি। এখন তাঁর পদমর্যাদা বদলেছে। এখন তিনি দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। কিন্তু বছর পাঁচেক আগের সেই মধ্যাহ্নভোজের পর আর মাহালি পরিবারের খোঁজ রাখেনি গেরুয়া শিবিরের কেউ। আর সেই সুযোগেই নকশালবাড়ির সেই গৃহকর্ত্রী গীতা মাহালিকে সরকারি চাকরি দেয় তৃণমূল। এই চাকরি দরিদ্র পরিবারের এতদিনের সংগ্রামে যেন ইতি টানে।

আরও পড়ুন: বড় কোনও নির্দেশ দেবেন দলনেত্রী? শাসক নেতাদের সব নজর আজ নতুন তৃণমূল ভবনে!

অমিত শাহ তাঁদের বাড়ির অতিথি হতেই ওই আদিবাসী দম্পতিকে ঘিরে রাজ্য রাজনীতিতে শোরগোল পড়ে গিয়েছিল। টানাপোড়েন শুরু হয়েছিল কেন্দ্র এবং রাজ্যের শাসকদলের মধ্যে। যদিও সেই সময় ওই আদিবাসী পরিবারকে সবরকমভাবে সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছিল গেরুয়া শিবির। কিন্তু অমিত শাহ যাওয়ার পর আর কোনও বিজেপি নেতাই মাহালি পরিবারের খোঁজ নেয়নি বলে অভিযোগের সুরে জানিয়েছিলেন তাঁরা। এরপর ওই পরিবারের পাশে দাঁড়ায় রাজ্য সরকার। রাজ্য সরকারের আবাস যোজনা থেকে শুরু করে বেশ কয়েকটি সামাজিক সুরক্ষার আওতায় সুযোগ সুবিধা পেয়েছে ওই পরিবার। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে গীতা মাহালিকে হোমগার্ডের চাকরিও দেওয়া হয়।

Published by:Suman Biswas
First published:

Tags: Amit Shah, North Bengal

পরবর্তী খবর