উপাচার্যদের সঙ্গে ফের বৈঠক রাজ্যপালের, ৯ নভেম্বর উত্তরবঙ্গের বিশ্ববিদ্যালয়গুলির উপাচার্যদের সঙ্গে বসবেন ধনখড়

উপাচার্যদের সঙ্গে ফের বৈঠক রাজ্যপালের, ৯ নভেম্বর উত্তরবঙ্গের বিশ্ববিদ্যালয়গুলির উপাচার্যদের সঙ্গে বসবেন ধনখড়
মূলত ৯ নভেম্বরের বৈঠকে উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়, উত্তরবঙ্গ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়, কোচবিহার পঞ্চানন বর্মা বিশ্ববিদ্যালয় ও গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, সহ-উপাচার্য ও রেজিস্ট্রারদের আসতে বলা হয়েছে

মূলত ৯ নভেম্বরের বৈঠকে উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়, উত্তরবঙ্গ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়, কোচবিহার পঞ্চানন বর্মা বিশ্ববিদ্যালয় ও গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, সহ-উপাচার্য ও রেজিস্ট্রারদের আসতে বলা হয়েছে

  • Share this:

#কলকাতা: আবারও উপাচার্যদের সঙ্গে বৈঠক চায় রাজ্যপাল জগদীপ ধনখর। আগামী ৯ নভেম্বর দার্জিলিং রাজভবনেই সেই বৈঠক করার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন রাজ্যপাল। তবে সব বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য নয়, শুধুমাত্র উত্তরবঙ্গে অবস্থিত বিশ্ববিদ্যালয়গুলির উপাচার্যদের নিয়ে বৈঠক করতে চান রাজ্যপাল। বৃহস্পতিবার বৈঠকের কথা জানিয়ে ট্যুইট করেন রাজ্যপাল ।

এদিন ট্যুইট  করে তিনি বলেন " দার্জিলিং রাজভবনে আগামী ৯ নভেম্বর উপাচার্য,সহ-উপাচার্য, রেজিস্ট্রারদের এর সঙ্গে  বৈঠকের দিকে তাকিয়ে রয়েছি। উত্তরবঙ্গের সব বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের বলা হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়গুলির বর্তমান পরিস্থিতি কি এবং কি কি ইস্যু হয়েছে তা নিয়ে আসতে। একটি স্টেটাস রিপোর্ট ই-মেইল এর মাধ্যমে ৮ নভেম্বরের মধ্যে দিতে বলা হয়েছে।"

মূলত ৯  নভেম্বরের বৈঠকে  উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়, উত্তরবঙ্গ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়, কোচবিহার পঞ্চানন বর্মা বিশ্ববিদ্যালয় ও গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, সহ-উপাচার্য ও রেজিস্ট্রার দের আসতে বলা হয়েছে। দার্জিলিং বাসভবনে এ বৈঠক করা হবে বলে ইতিমধ্যেই রাজভবন থেকে বার্তাও গেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের কাছে। যদিও এর আগে রাজভবনে রাজ্যের সব বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যদের সঙ্গে বৈঠক করতে চেয়েছিলেন রাজ্যপাল। কিন্তু উচ্চ শিক্ষা দপ্তরের নয়া বিধি মোতাবেক রাজ্যপাল কোন বৈঠক উপাচার্যের সঙ্গে বা কোনো আলোচনা করতে চাইলে সে ক্ষেত্রে উচ্চশিক্ষা দপ্তর মারফত জানাতে হবে। শুধু তাই নয় রাজ্যপাল সরাসরি উপাচার্যদের সঙ্গে কোন যোগাযোগ করতে পারবে না করতে হলে উচ্চশিক্ষা দপ্তর মারফত করতে হবে। কিন্তু রাজভবনের সেই বৈঠকে এই বিধি মেনে ডাকা হয়নি বলে অভিযোগ।


আগামী ৯ নভেম্বরের বৈঠকেও উচ্চ শিক্ষা দপ্তরের নয়া বিধি মেনে দেখা হয়নি বলে অভিযোগ উঠছে। আগামী ৯ নভেম্বরের বৈঠকে ডাক পাওয়া এক উপাচার্য বলেন " উচ্চ শিক্ষা দপ্তরের নয়া বিধি মোতাবেক আমাদের কাছে উচ্চ শিক্ষা দপ্তরের তরফে বৈঠকের বিষয়ে আসা উচিত। কিন্তু আগামী ৯ নভেম্বরের বৈঠকের বিষয়সূচি রাজভবন থেকে সরাসরি এসেছে। যদিও রাজভবন থেকে আসার কথা নয় নয়া বিধি মোতাবেক। উচ্চ শিক্ষা দপ্তর থেকে এখনও পর্যন্ত আমাদের কাছে কিছু আসেনি। যদিও সময় আছে তাই আমরা অপেক্ষা করছি।"

উচ্চ শিক্ষা দপ্তরের নয়া বিধি জেরে গত বারের বৈঠকেও কার্যত কোনো উপাচার্য উপস্থিত ছিলেন না। শুধু তাই নয় নয়া বিধি নিয়ে উচ্চ শিক্ষা দপ্তর কে কার্যত কাঠগড়ায় তুলেছিলেন রাজ্যপাল। ফলত আগামী ৯ই নভেম্বর উপাচার্যদের ডাকা বৈঠক নিয়ে রাজ্য রাজ্যপাল সংঘাতের জায়গা আবার জোরালো হয় নাকি সেদিকেই তাকিয়ে গোটা রাজনৈতিক মহল। যদিও এই বিষয় নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় কোন মন্তব্য করতে চাননি।

 সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by:Elina Datta
First published: