প্রয়াত ভোটকর্মীর মৃত্যুর আড়াই বছর পর স্ত্রী’র হাতে তুলে দেওয়া হল ১০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ

প্রয়াত ভোটকর্মীর মৃত্যুর আড়াই বছর পর স্ত্রী’র হাতে তুলে দেওয়া হল ১০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ

তবে রাজকুমার রায় হত্যা বিচার মঞ্চ এতে সন্তষ্ট নন। বিচার মঞ্চ মনে করে, রাজকুমারকে দুষ্কৃতীরা হত্যা করেছে। এই ঘটনায় ২০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি করেছেন তাঁরা।

তবে রাজকুমার রায় হত্যা বিচার মঞ্চ এতে সন্তষ্ট নন। বিচার মঞ্চ মনে করে, রাজকুমারকে দুষ্কৃতীরা হত্যা করেছে। এই ঘটনায় ২০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি করেছেন তাঁরা।

  • Share this:

Uttam Paul

#রায়গঞ্জ: ভোট নিতে গিয়ে রাজকুমার রায় নামে এক ভোটকর্মীর মৃত্যুর ঘটনায় ১০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দিল রাজ্য নির্বাচন দফতর। বৃহস্পতিবার উত্তর দিনাজপুর জেলা নির্বাচন আধিকারিক তথা জেলা শাসক অরবিন্দ কুমার মীনা প্রয়াত রাজকুমার রায়ের স্ত্রী অর্পিতা রায়ের হাতে এই চেক তুলে দিলেন। ক্ষতিপূরণ হাতে পেয়ে জেলা শাসককে অভিনন্দন জানান অর্পিতাদেবী। অর্পিতাদেবী জেলা শাসককে অভিনন্দন জানালেও রাজকুমার রায় হত্যা বিচার মঞ্চ তাতে সন্তষ্ট নন। বিচার মঞ্চ মনে করে, রাজকুমারকে দুষ্কৃতীরা হত্যা করেছে। এই ঘটনায় ২০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি করেছেন তাঁরা।

২০১৮ সালে ১৪ মে পঞ্চায়েত নির্বাচনে ইটাহার ব্লকে সোনাপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভোট নিতে গিয়ে নিখোঁজ হয়েছিলেন করনদিঘি রহতপুর হাইমাদ্রাসার শিক্ষক রাজকুমার রায়। পরদিন তাঁর ক্ষতবিক্ষত দেহ রায়গঞ্জ ব্লকের বামুহাগ্রামে রেল লাইনের ধার থেকে উদ্ধার হয়েছিল। শিক্ষক তথা ভোটকর্মীর নিরাপত্তার দাবিতে সারা রাজ্য উত্তাল হয়ে উঠেছিল। ১৬ জুলাই প্রয়াত ভোটকর্মী রাজকুমার রায়ের স্ত্রী অর্পিতা রায়কে উত্তর দিনাজপুর জেলা শাসক দফতরে নিয়োগপত্র দেয় রাজ্য সরকার। ঘটনার তদন্তের দাবিতে অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবিতে তৈরী হয়েছিল রাজকুমার রায় হত্যা বিচার চাই মঞ্চ। এই  মঞ্চের তরফ থেকে জেলা জুড়ে জোরদার আন্দোলন গড়ে উঠেছিল।

সংগঠনের তরফে অভিযোগ করা হয়, রাজকুমারবাবুকে খুন করে রেল লাইনের ধারে ফেলে রাখা হয়েছে। বিষয়টি আদালতে বিচারাধীন। ২০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণের দাবিতে সংগঠনের তরফ থেকে লাগাতার আন্দোলন চালিয়ে যাওয়া হয়। অবশেষে রাজ্য নির্বাচন দফতর ক্ষতিপূরণ বাবদ ১০ লক্ষ টাকা তুলে দিতে সম্মত হয়। চেক হাতে পেয়ে জেলা শাসক অরবিন্দ কুমার মীনাকে ধন্যবাদ জানান প্রয়াত রাজকুমার রায়ের স্ত্রী অর্পিতা রায়।

তবে খুশী নন মঞ্চের আহ্বায়ক ভাস্কর ভট্টাচার্য। তিনি জানিয়েছেন ২০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণের অবস্থান থেকে তাঁরা সরছেন না। এই দাবিতে তাঁরা লাগাতার আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার হুমকি দিয়েছে। জেলা শাসক অরবিন্দ কুমার মীনা জানান, নির্বাচন দফতর ১০ লক্ষ টাকা ঘোষণা করার পরই তিনি সেই চেক আনিয়েছেন। এই টাকা হাতে পাওয়াতে অর্পিতাদেবী অনেকটাই উপকৃত হবেন। তিনি একাধিকবার তাঁর কাছে সমস্যার কথা বলতে এসেছিলেন। আজ তাঁর হাতে চেক তুলে দিতে পেরে ভাল লাগছে।

Published by:Simli Raha
First published: