উত্তরবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

মুর্শিদাবাদের পর এবার কি মালদহেও জেলা পরিষদে শুভেন্দু ঘনিষ্ঠরা জোট বাঁধছেন

মুর্শিদাবাদের পর এবার কি মালদহেও জেলা পরিষদে শুভেন্দু ঘনিষ্ঠরা জোট বাঁধছেন

মুর্শিদাবাদের পর এবার কি মালদহেও জেলা পরিষদে শুভেন্দু ঘনিষ্ঠরা জোট বাঁধছেন।

  • Share this:

#মালদহ: মালদহ জেলা পরিষদের শুভেন্দু অধিকারী ঘনিষ্ট নেতারা অনেকেই জেলা থেকে উধাও। খোঁজ নেই মালদহের জেলা পরিষদের সভাধিপতি,কয়েকজন কর্মাধ্যক্ষ এবং বেশ কয়েকজন জেলা পরিষদ সদস্যের। দলের অন্দরের খবর, সভাধিপতি সহ নয়,দশজন জেলা পরিষদ সদস্য দলকে কিছু না জানিয়েই দিঘায় গিয়েছেন। আরও কয়েকজন ব্লক নেতাও কার্যতঃ বেপাত্তা। ফলে জোর জল্পনা মালদহে।

যদিও ‘উধাও’নেতাদের কারনে মালদা জেলা পরিষদে তৃনমূলের কোনো সঙ্কট হবে না বলে মন্তব্য করেছেন জেলা তৃনমূল সভাপতি মৌসম বেনজির নুর। নিখোঁজদের বিষয়ে রাজ্য নেতৃত্বকেও জানানো হয়েছে বলে খবর।  মুর্শিদাবাদের পর এবার কি মালদহেও জেলা পরিষদে শুভেন্দু ঘনিষ্ঠরা জোট বাঁধছেন। রবিবার থেকে আচমকা বেশ কিছু জেলা পরিষদ সদস্য কার্যতঃ উধাও হয়ে যাওয়ায় এমনই জল্পনা জোড়ালো হয়েছে। জেলা পরিষদের সভাধিপতি গৌড়চন্দ্র মণ্ডলের মোবাইল ফোন সুইচ অফ রয়েছে। ফোনে অমিল দুই কর্মাধ্যক্ষ সহ আরও কয়েকজন জেলা পরিষদ সদস্য। দলের অন্দরের খবর, দিঘায় মালদা জেলা পরিষদের সদস্যদের সঙ্গে শুভেন্দু অধিকারীর বৈঠকের সম্ভবনা প্রবল। মালদা জেলা পরিষদের সদস্যদের জেলা ছাড়ার বিষয়টি রাজ্য নেতৃত্বকে জানিয়েছে জেলা নেতৃত্ব। বাকী জেলা পরিষদ সদস্যদের সম্পর্কেও নিয়মিত খোঁজ খবর রাখছে তৃনমূল। সপ্তাহখানেক আগেই মালদা জেলা পরিষদের সভাধিপতি গৌড় চন্দ্র মণ্ডলকে ‘নিরস্থ’করতে কোলকাতায় তলব করেছিল দল। সেখানে তাঁর সঙ্গে ভোটকৌশলী প্রশান্ত কিশোর,অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, মালদা জেলা সভানেত্রী মৌসম নুর বৈঠকও করেন। এরপরেও মালদা জেলা পরিষদে শুভেন্দু  ঘনিষ্টদের জোট বাঁধার বিষয়টি ক্রমশই স্পষ্ট হচ্ছে। দলের একাধিক জেলা পরিষদ সদস্যকে কার্যতঃ ভুল বুঝিয়ে দিঘায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন, মৌসম বেনজির নুর। প্রয়োজনে দল কড়া পদক্ষেপ নেবে বলেও ইঙ্গিত দিয়েছেন মৌসম। মুর্শিদাবাদের মতো মালদহেও তৃনমূলের জেলা পর্ষবেক্ষক ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। ২০১৬ সালে দল ভাঙিয়ে কংগ্রেস থেকে তৃনমূলের মালদাজেলা পরিষদের ক্ষমতা দখলের পেছনে ভূমিকা ছিল শুভেন্দু অধিকারীর। এরপর ২০১৮ সালের পঞ্চায়েত নির্বাচনে তৃনমূলের একক সংখ্যাগরিষ্ট জেলা পরিষদ গঠনেও ভূমিকা নেন শুভেন্দু। মালদা জেলা পরিষদে ৩৭ আসনে নির্বাচন হয়। এরমধ্যে এককভাবে ২৯ টি আসনে জেতে তৃনমূল। শুভেন্দু ঘনিষ্ট গৌড়চন্দ্র মণ্ডল মালদহের  সভাধিপতি হন। ২০১৪ সাল থেকে ২০১৯ দীর্ঘদিন মালদহের সাংগঠনিক দায়িত্বে থাকায় মালদহে তাঁর নিজ্বস্ব অনুগামী শিবির রয়েছে। এই অবস্থায় শুভেন্দু অনুগামীদের সম্পর্কে নরমে গরমে এগোচ্ছে তৃনমূল। যদিও মালদা জেলা পরিষদের সভাধিপতি সহ সদস্যরা দলে আসতে চাইলে স্বাগত বলে এদিন জানিয়ে দিয়েছেন মালদহের বিজেপি সভাপতি গোবিন্দ চন্দ্র মণ্ডল। Sebak DebSarma

Published by: Debalina Datta
First published: November 11, 2020, 12:29 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर