Home /News /north-bengal /

Mamata Banerjee: মুর্শিদাবাদে কর্মসংস্থানে জোর, পর্যটন শিল্পে আরও উন্নতি, প্রশাসনিক বৈঠকে ঘোষণা মমতার

Mamata Banerjee: মুর্শিদাবাদে কর্মসংস্থানে জোর, পর্যটন শিল্পে আরও উন্নতি, প্রশাসনিক বৈঠকে ঘোষণা মমতার

ছবি: ফেসবুক

ছবি: ফেসবুক

Meeting of Mamata Banerjee: ৪ কোটি ১৪ লক্ষ ১৩ হাজার টাকা খরচ করে বহরমপুর ব্লকের কর্ণসুবর্ণ রেলগেট থেকে গোবিন্দপুর হয়ে নবাবগঞ্জ মোড় পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ছ’কিলোমিটার রাস্তা তৈরি হয়েছে।

  • Share this:

#বহরমপুর: বিধানসভা ভোটে মুর্শিদাবাদের (Murshidabad) ফলে খুশি মমতা বন্দোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। প্রশাসনিক বৈঠকে সেই আনন্দ গোপণ করলেন না মুখ্যমন্ত্রী। 'আম, আমসত্ত্ব ও আমের আচার, সবটাই আপনারা আমাকে দিয়েছেন' মন্তব্য মুখ্যমন্ত্রীর। আগামী দিনে এই জেলায় শিল্পে আগ্রহী সরকার, সেকথাও বললেন তিনি। শিল্প এলে বাড়বে কর্মসংস্থান। শিল্পে জোর দিতে তাই পরিকাঠামোর মান উন্নয়নেও জোর দিলেন তিনি। তিনি এ দিনের সভা থেকে,  কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহণ মন্ত্রককে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক নিয়ে জানাতে বলেন মুখ্যসচিবকে। পাশাপাশি মুর্শিদাবাদে নদী বন্দর গড়তেও পরিকল্পনার কথা শোনা যায় তাঁর মুখে। জোর দেওয়া হয় পর্যটন শিল্পেও।

বুধবার জেলায় প্রশাসনিক বৈঠকের পাশাপাশি একগুচ্ছ প্রকল্পের উদ্বোধন ও শিলান্যাসও করলেন তিনি। মুর্শিদাবাদ, মালদহ, নদিয়ার মানুষজনের সুবিধার জন্য তৃতীয় স্তরের ক্যানসার কেয়ার সেন্টার তৈরি হবে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজে। এ ছাড়া বার্ন ইউনিট ও ট্রমা কেয়ার সেন্টার গড়ে তোলা হবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। বুধবার বাংলার গ্রামীণ সড়ক যোজনার অধীনে বহরমপুর, সাগরদিঘি, হরিহরপাড়া-সহ একাধিক ব্লকের মোট ১৩টি রাস্তার বুধবার উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী। যার মধ্যে সবচেয়ে দীর্ঘ সাগরদিঘি ব্লকের চাঁদপাড়া বলিয়া হয়ে আজিমগঞ্জ দস্তুর হাট পর্যন্ত প্রায় ২৭ কিমি রাস্তাও আছে। পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন দফতরের অধীন ওই রাস্তা তৈরি করতে খরচ হয়েছে দু'কোটি একশো ছাপান্ন লক্ষ ৪৮ হাজার টাকা, জানান পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ রাজীব হোসেন।

আরও পড়ুন: স্থানীয় ভাষা না জানলে জেলায় কাজ করা যাবে না, সরকারি অধিকারিকদের বাংলা জানায় জোর দিতে চান মমতা

এ ছাড়াও ৪ কোটি ১৪ লক্ষ ১৩ হাজার টাকা খরচ করে বহরমপুর ব্লকের কর্ণসুবর্ণ রেলগেট থেকে গোবিন্দপুর হয়ে নবাবগঞ্জ মোড় পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ছ’কিলোমিটার রাস্তা তৈরি হয়েছে। ওই রাস্তারও ভার্চুয়ালে উদ্বোধন করা হয় এই দিন। ঘোষণা করা হয়, এগুলি বাদ দিয়ে রানিনগর ১ ব্লকের পাটুর রোড থেকে পোমাইপুর পর্যন্ত, খড়গ্রাম ব্লকের চিরামখার মোড় থেকে সাদোল ও আমুজা হয়ে রাহিমার দিকে যাওয়ার রাস্তা, নওদা ব্লকের সাকোয়া পেট্রল পাম্প থেকে বোচ্ছাডাঙা হয়ে আলমডাঙা পর্যন্ত সেই সব রাস্তা নির্মাণ করবে মুর্শিদাবাদ জেলা পরিষদ। পঞ্চায়েত ও গ্রামোয়ন্নন দফতর খড়গ্রাম ব্লকের খেসর থেকে সুন্দরপুর, বড়ঞা ব্লকের যগস্বরা থেকে সালপা-সহ নওদা ভগবানগোলা ১, সাগরদিঘি ব্লকেও জলাশয়ের দু’পারের মধ্যে যোগাযোগের সেতু তৈরি করবে। বুধবার সে সবেরও শিলান্যাস করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন: 'পড়ুয়ারা অপেক্ষা করে আছে! স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের কাজে ঢিলেমি নয়', বার্তা মুখ্যমন্ত্রীর...

এ ছাড়া মুর্শিদাবাদ, জিয়াগঞ্জ, নবগ্রামে বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্রে মোট ১১টি কমিউনিটি টয়লেট তৈরি হবে ২ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা খরচ করে। আগামী তিনটি অর্থবর্ষে ১১টি পৌর স্বাস্থ্যকেন্দ্র গঠন করা হবে বহরমপুর পুরসভায়। এ দিন প্রশাসনিক বৈঠকে তা নিয়ে আলোচনা হয়। এ ছাড়াও ৭ কোটি ৮৫ লক্ষ ৬৮ হাজার টাকা ব্যয়ে আম্রুত প্রকল্পের অধীন পাঁচটি নালা সংস্কার ও নতুন ভাবে নির্মাণ হবে। প্রায় ৩.৫ কোটি টাকা খরচ করে নগরোন্নয়ন ও পৌর বিষয়ক দফতর ওয়াইএমএ মাঠ ও ব্যারাক স্কোয়ার মাঠকে ঐতিহাসিক নির্দশন হিসাবে তুলে ধরবে। বহরমপুর পুরসভার মুখ্য উপদেষ্টা নাড়ুগোপাল মুখোপাধ্যায় বলেন, “২ কোটি ৬৭ লক্ষ ৩৭ হাজার টাকা খরচ করে গোরাবাজার ও খাগড়ার দুটি বৈদ্যুতিক চুল্লি সংস্কার করা হবে। এ ছাড়া ৩০ কোটি টাকার এসটিপি প্রকল্পেরও শিল্যান্যাস করা হয়েছে।"

২০২১ এর বিধানসভা ভোটে গোটা জেলায় ভালো ফল করেছে তৃণমূল। মুখ্যমন্ত্রী এদিন বলেন, মুর্শিদাবাদকে ধন্যবাদ, তাঁরা আমাকে আম, আমসত্ত্ব, আমের আচার সব দিয়েছেন। মানুষের আশীর্বাদ পেয়েছি মুর্শিদাবাদ-মালদহ থেকে। আগামী দিনে এই জেলায় কর্মসংস্থান বাড়াতে উদ্যোগী হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাই শিল্প ও শিল্প পরিকাঠামো গড়ে তোলায় জোর দিয়েছেন তিনি।

Abir Ghosal

Published by:Uddalak B
First published:

Tags: Mamata Banerjee

পরবর্তী খবর