বাংলার মেয়ে দিল্লির কাছে মাথা নত করুন চান? জনসভায় তোপ অভিষেকের

বাংলার মেয়ে দিল্লির কাছে মাথা নত করুন চান? জনসভায় তোপ অভিষেকের
নাগরাকাটা বিস্ফোরক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

ভিড় এবং জনতার উৎসাহকে দেখিয়ে উত্তরের হারানো জমি ফেরানোর বাজি ধরলেন অভিষেক।

  • Share this:

    #নাগড়াকাটা: বিজেপির পরিবর্তন যাত্রা চলছে পুরোদমে। তার মাঝেই নাগড়াকাটায় নির্বাচনী জনসভায় বিজেপির বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন তাঁর স্পষ্ট বার্তা, দিল্লির অন্যায়ের বিরুদ্ধে লড়বেন একা মমতা। জনসমক্ষে বললে, খগেশ্বর রায়ের বারণ না শুনেই সভা। আসলে ভিড় এবং জনতার উৎসাহকে দেখিয়ে উত্তরের হারানো জমি ফেরানোর বাজি ধরলেন অভিষেক।

    অন্য সভার মতোই এদিন অভিষেকের রুটিন প্রশ্ন ছিল, কেন সোনার উত্তরপ্রদেশ হয়নি? বিজেপির উদ্দেশ্যে তাঁর বার্তা, আগে সোনার ভারত গড়ো, তার পর সোনার বাংলা গড়বে।

    শুভেন্দু-রাজীব আর সহযোদ্ধা নেই। তাঁদের হাত ধরে দল ছেড়েছেন মিহির গোস্বামীরা। উত্তরের মাটিতে দাঁড়িয়ে এদিন নাম না করেই তীব্র কটাক্ষ হানেন দলত্যাগীদের দিকে। তিনি বলেন. "পোকামাকড়েরা অন্য ক্ষেতে চলে গিয়েছে। চোরেরা দল ছেড়েছে, বাঁচা গিয়েছে।" বিজেপির উখার কে ফেক দো মন্তব্যের প্রত্যুত্তরে অভিষেকের উক্তি তৃণমূল মানুষের মনে আছে. দল কোনও পোস্টার নয় যে ফেলে দেওয়া সম্ভব হবে।


    আজই তৃণমূল নতুন স্লোগান সামনে এনেছে। স্লোগানের মূল বক্তব্য-বাংলা তার নিজের মেয়েকেই চায়। অর্থাৎ বহিরাগত তত্ত্বটিই সামনে রাখছে তৃণমূল। অভিষেকের গলাতেও শোনা গেল সেই সুর। অভিষেক এদিন কটাক্ষের সুরে বলেন,"ওরা মনীষীদের নাম জানে না। এই সব বহিরাগতদের বিদায় দিন।" নরেন্দ্র মোদি শুধু ভোটের সময় ভোট চাইতে আসেন।‌ অভিষেককে প্রশ্ন করতে শোনা গেল, "আপনারা কি চান বাংলার মেয়ে দিল্লির কাছে মাথা নত করুক?"

    নিরাপত্তা, বহিরাগত তত্ত্বের পাশাপাশি অভিষেকের বক্তব্যের আরেকটি স্তম্ভ উন্নয়ন। তিনি এদিন বলেন, "বলছেন স্বাস্থ্যসাথী ভাওতা অথচ দিলীপ ঘোষের বাড়ির লোকই সেই কার্ড করাচ্ছে।"

    সাম্প্রতিক মূল্যবৃদ্ধি ও বেসরকারিকরণেরও বিরোধিতা করতে দেখা গেল অভিষেককে। বললেন, বিএসএনএল, এয়ার ইন্ডিয়াকে বেচে দিয়েছে বিজেপি। লাগাতার তেলের দাম বাড়ছে।

    অপ্রত্যাশিত ভাবেই নাগরাকাটায় এদিন জনজোয়ার দেখল তৃণমূল। এ কি ঠাঁই ফিরে পাওয়ার ইঙ্গিত?

    Published by:Arka Deb
    First published: