Abhishek Banerjee: 'আপনার সঙ্গে জায়গায় জায়গায় দার্জিলিং হবে', শীতলকুচি নিয়ে দিলীপ ঘোষকে একহাত নিলেন অভিষেক

Abhishek Banerjee: 'আপনার সঙ্গে জায়গায় জায়গায় দার্জিলিং হবে', শীতলকুচি নিয়ে দিলীপ ঘোষকে একহাত নিলেন অভিষেক

শীতলকুচি নিয়ে দিলীপ ঘোষকে একহাত নিলেন অভিষেক

শীতলকুচি নিয়ে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের (Dilip Ghosh) মন্তব্য আগুনে ঘৃতাহুতি দিয়েছে। আজ জলপাইগুড়ির জনসভা থেকে সেই মন্তব্য নিয়েই দিলীপ ঘোষকে একহাত নিলেন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্য়োপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)।

  • Share this:

    #জলপাইগুড়ি: শীতলকুচিতে (Sitalkuchi) কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে মৃত্যুর ঘটনায় উত্তপ্ত রাজ্যরাজনীতি। তারই মধ্যে শীতলকুচি নিয়ে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের (Dilip Ghosh) মন্তব্য আগুনে ঘৃতাহুতি দিয়েছে। আজ জলপাইগুড়ির জনসভা থেকে সেই মন্তব্য নিয়েই দিলীপ ঘোষকে একহাত নিলেন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্য়োপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)।

    শীতলকুচির ঘটনা নিয়ে রবিবার বরানগরের একটি সভা থেকে দিলীপ ঘোষের মন্তব্য নিয়ে জোর বিতর্ক শুরু হয়েছে। রীতিমতো হুমকির সুরে তিনি বলেছেন, বাড়াবাড়ি করলে জায়গায়-জায়গায় শীতলকুচি হবে। এই মন্তব্যের প্রেক্ষিতেই আজ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্য়ায় দিলীপকে পাল্টা দিয়ে বললেন, আপনার সঙ্গেও জায়গায় জায়গায় দার্জিলিং হবে।

    সভা থেকেই দিলীপ ঘোষের মন্তব্যটি মোবাইল থেকেই চালিয়ে শোনান অভিষেক। এর পরেই অভিষেক বলছেন, "ঘটনার দিন অর্থাৎ শনিবার শীতলকুচির ঘটনা দুঃখজনক বলেন প্রধানমন্ত্রী। আর তার পরের দিনই বিজেপি রাজ্যসভাপতি হুমকি দিচ্ছেন। বলছেন, বাড়াবাড়ি করলে জায়গায় জায়গায় শীতলকুচি হবে। দিল্লির কাছে বশ্যতা স্বীকার না করে ভোট দিতে যাওয়াটা বাঙালিদের বাড়াবাড়ি! এরা জায়গায় জায়গায় মানুষের উপর গুলি চালিয়ে বাংলা দখল করতে চাইছে। দেশের প্রধানমন্ত্রী বলছেন ঘটনা ঠিক না। আর তাদের দলের রাজ্য সভাপতি বলছেন, যা হয়েছে ঠিক হয়েছে। আগামী দিনে আরও হবে।"

    আমি দিলীপবাবুকে বলব, "আপনি আমার চেয়ে বয়সে অনেক বড়। হাতজোড় করে অনুরোধ করছি, ভাষা ঠিক করুন। এটা গুজরাট মধ্যপ্রদেশ নয়। জায়গায় জায়গায় শীতলকুচি হবে না। কিন্তু আপনি যদি নিজেকে না শুধরান তাহলে আপনার সঙ্গে জায়গায় জায়গায় দার্জিলিং হবে।"

    শনিবার চতুর্থ দফার ভোটে কোচবিহারের শীতলকুচি রণক্ষেত্রের আকার নেয়। কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে মৃত্যু হয়েছে ৪ জনের। সেই চারজনই তৃণমূলের কর্মী। এই ঘটনার পরে উত্তপ্ত গোটা রাজনৈতিক মহল। তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় (Mamata Banerjee) এই ঘটনার জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে (Amit Shah) দায়ী করেছেন।

    ক্ষমতায় এলে এই ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত হবে বলে জানিয়েছেন অভিষেক। তিনি বলছেন, "কেন্দ্রীয় বাহিনীকে আমি দোষ দিই না। কিন্তু কার নির্দেশে কেন্দ্রীয় বাহিনী গুলি চালালো। আগামী দিন তৃণমূল কংগ্রেস ক্ষমতায় এলে এর পূর্ণাঙ্গ তদন্ত হবে। যত বড় মাথা থাকুক। টেনে হিচড়ে বার করা হবে। এই তরতাজা প্রাণ যারা কেড়ে নিয়েছে, এর শেষ দেখে ছাড়ব।"

    প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের অক্টোবর মাসে দার্জিলিং সফরে গিয়েছিলেন বিজেপি রাজ্যসভাপতি দিলীপ ঘোষ। সফরের দ্বিতীয় দিনেই দিলীপ ঘোষ আক্রান্ত হয়েছিলেন। দার্জিলিং জেলা সদরে গোর্খা দুখ নিবারণী সমিতির হলের সামনের ঘটনা। সেখানে সভাস্থলে হামলা, মাইক কেড়ে নেওয়ার পরে বিজেপি-র রাজ্য সভাপতি দার্জিলিং সদর থানায় অভিযোগ জানাতে রওনা হয়েছিলেন। অভিযোগ ছিল, সেই সময়েই তাঁকে ধাক্কাধাক্কি করা হয়। এই ঘটনারই উল্লেখ করলেন আজ অভিষেক।

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published: