উত্তরবঙ্গ

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

মরণজয়ী! গুরগাঁও থেকে রিক্সা চালিয়ে ঘরে ফিরলেন বাংলার বৃদ্ধ

মরণজয়ী! গুরগাঁও থেকে রিক্সা চালিয়ে ঘরে ফিরলেন বাংলার বৃদ্ধ
১৫০০ কিলোমিটার রিক্সায় অতিক্রম করেছেন এই বৃদ্ধ।

প্রায় না খাওয়া অবস্থাতেই এতদিন ধরে রিকশা চালিয়ে গুরগাঁও থেকে ১৫০০ কিলোমিটার পথ রিকশা চালিয়ে শনিবার ইটাহারে এসে পৌঁছন ওই বৃদ্ধ।

  • Share this:

ইটাহার: লকডাউনে আটকে পড়েছিলেন। শেষ হয়ে গিয়েছিল সব সঞ্চয়। কিন্তু মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ার কলজেটা ছিল তাঁরষ সেই সাহসকে পুঁজি করেই রিকশা চালিয়ে ১৫০০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে সূদুর হরিয়ানার গুরগাঁও থেকে উত্তর দিনাজপুরের ইটাহারে এসে পৌঁছলেন গোরাহারের বাসিন্দা বৃদ্ধ মহম্মদ সুলতান।

বৃদ্ধ পরিযায়ী শ্রমিক মহম্মদ সুলতান ইটাহারে এসে পৌঁছাতেই তাঁকে খাদ্যসামগ্রী ও অর্থ দিয়ে সাহায্য করলেন উত্তর দিনাজপুর জেলাপরিষদের তৃণমূল সদস্যা বিউটি বেগম। তাঁর শারীরিক পরীক্ষা করানোর পর তাঁকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দেন তিনি।

এই বয়স, এতদিন নাওয়াখওয়া নেই, স্বাভাবিক ভাবেই চোখে মুখে ক্লান্তির ছাপ। এতটা পথ রিকশা চালিয়ে তবু খুশি মহম্মদ সুলতান। ঘরের মানুষকে কাছে পেয়ে খুশি হয়েছেন তাঁর  দুশ্চিন্তাগ্রস্ত পরিবাওর।

বছর দুয়েক আগে পরিবারের অন্নের সংস্থান করতে ভিনরাজ্যের শ্রমিক হিসেবে হরিয়ানার গুরগাঁওতে পাড়ি দিয়েছিলেন উত্তর দিনাজপুর জেলার ইটাহার ব্লকের সুরুন ১ নম্বর গ্রামপঞ্চায়েতের গোরাহার গ্রামের বাসিন্দা ৫৮ বছর বয়সি মহম্মদ সুলতান। গুরগাঁওতে কখনও রিকশা চালিয়ে কখনও বা সাফাই কর্মীর কাজ করে অর্থ উপার্জন করে ইটাহারের বাড়িতে পাঠাতেন। কিন্তু করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে দেশজুড়ে চলা লকডাউনের বন্ধ হয়ে যায় তাঁর কাজ। সঞ্চিত অর্থ দিয়ে আধপেটা খেয়ে ক'দিন দিন পার হওয়ার তিনি একবার ভেবেছিলেন পায়ে হেঁটেই হরিয়ানার গুরগাঁও থেকে ইটাহারের উদ্দেশ্যে রওনা হবেন। কিন্তু নিজের বয়সের কথা ভেবে সেই সিদ্ধান্ত বদলে এক সহকর্মীর কাছ থেকে রিকশা চেয়ে নেন।

গত ২০ মে সহকর্মী মতিউর রহমানের রিকশা নিয়ে উত্তর দিনাজপুরের ইটাহারের উদ্দেশ্যে রওনা হন সুলতান। প্রায় না খাওয়া অবস্থাতেই এতদিন ধরে রিকশা চালিয়ে গুরগাঁও থেকে ১৫০০ কিলোমিটার পথ রিকশা চালিয়ে শনিবার ইটাহারে এসে পৌঁছন সুলতান।

 
Published by: Arka Deb
First published: June 6, 2020, 7:29 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर