জলদাপাড়ায় ফের গাড়ির ধাক্কায় মৃত্যু হল পূর্ণ বয়ষ্ক পুরুষ চিতাবাঘের

এই ঘটনায় জাতীয় সড়কে যানবাহনের গতি নিয়ন্ত্রনের দাবিতে সরব হয়েছেন পরিবেশ প্রেমীরা।

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 14, 2019 11:49 PM IST
জলদাপাড়ায় ফের গাড়ির ধাক্কায় মৃত্যু হল পূর্ণ বয়ষ্ক পুরুষ চিতাবাঘের
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 14, 2019 11:49 PM IST

#আলিপুরদুয়ার: জলদাপাড়ার জংগল লাগোয়া এলাকায় জাতীয় সড়কে গাড়ির ধাক্কায় ফের চিতাবাঘের মৃত্যু। ফের গাড়ির ধাক্কায় বন্যপ্রানের মৃত্যুর ঘটনা ঘটল। শনিবার সন্ধে ছ’টা নাগাদ হলং ও হাসিমারার মাঝে এশিয়ান হাইওয়েতে গাড়ির ধাক্কায় একটি পূর্ণ বয়স্ক চিতাবাঘের মৃত্যু হয়েছে। এলাকাটি জলদাপাড়া জাতীয় উদ্যানের নীলপাড়া রেঞ্জের অধীনে পড়ে। নীলপাড়া রেঞ্জ থেকে বনকর্মীরা গিয়ে মৃত লেপার্ডের দেহ উদ্ধার করেছেন। এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে বনদফতর। জলদাপাড়া জাতীয় উদ্যানের সহকারী বন্যপ্রান সহায়ক মনীশ কুমার যাদব বলেন, “লোকালয়ে লেপার্ডের মৃত্যু হলে হইচই শুরু হয়ে যায়। এমনকি মানুষের হাতে লেপার্ডের মৃত্যু হলেও নানান প্রশ্ন ওঠে। কিন্তু জাতীয় সড়কে যানবাহনের ধাক্কায় একের পর এক বন্যপ্রাণের মৃত্যু হচ্ছে। কেউ কোনও ব্যাবস্থাই নিচ্ছে না। রাস্তার ধারে এত বোর্ড লাগানো রয়েছে। যাতে পরিষ্কার ভাবে গাড়ির চালকদের সতর্ক করা রয়েছে। তবু গতি নিয়ন্ত্রণের কোন ব্যবস্থাই নেই। আমরা এই ঘটনায় পুলিশে অভিযোগ জানাচ্ছি। মৃত লেপার্ডটি পূর্ণ বয়স্ক পুরুষ লেপার্ড।”

এই ঘটনায় জাতীয় সড়কে যানবাহনের গতি নিয়ন্ত্রনের দাবিতে সরব হয়েছেন পরিবেশ প্রেমীরা। আলিপুরদুয়ার নেচার ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য অমল দত্ত বলেন, “বার বার আবেদন নিবেদনেও কোনও কাজ হচ্ছে না। জাতীয় সড়কে যানবাহনের গতি নিয়ন্ত্রণে কোনও ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে না। একের পর এক বন্য প্রাণের মৃত্যু হচ্ছে। আমরা বিষয়টি নিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হওয়ার কথা ভাবছি।”

First published: 11:49:33 PM Sep 14, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर