উত্তরবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

১৮ বছর হলেই হাজার হাজার টাকা পাবে সন্তান, বেসরকারি সংস্থায় টাকা জমিয়ে ক্ষতিগ্রস্থ গ্রামীণ মহিলারা

১৮ বছর হলেই হাজার হাজার টাকা পাবে সন্তান, বেসরকারি সংস্থায় টাকা জমিয়ে ক্ষতিগ্রস্থ গ্রামীণ মহিলারা

গোয়ালপোখরের কিচকটোলার বাসিন্দা তুমিল্লা ভৌমিক নামে এক মহিলা ও তার পরিবারের সদস্যরা গ্রামের মহিলাদের থেকে শিশুদের নামে ৫০০ টাকা কার্ড করে সেই কার্ডে মাসে মাসে টাকা জমা দিলে ১৮ বছর বয়স হলে শিশুরা ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা ফেরত পাবেন।

  • Share this:

#গোয়ালপোখর: গ্রামীন এলাকার মহিলাদের কাছ থেকে স্বল্প সঞ্চয়ের নামে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ। ঘটনাটি উত্তর দিনাজপুর জেলার গোয়ালপোখর ব্লকের। ২০১৮ সালে  প্রতারিত মহিলারা পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করে, আজ পর্যন্ত সুরাহা মেলেনি। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। পুলিশ অবিলম্বে প্রতারকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে আগামীতে বৃহত্তর আন্দোলনে নামার হুমকি দিয়েছে কংগ্রেস।

জানা গিয়েছে, গোয়ালপোখর ব্লকের কিচকটোলার বাসিন্দা তুমিল্লা ভৌমিক নামে এক মহিলা ও তার পরিবারের সদস্যরা গ্রামের মহিলাদের কাছে গিয়ে শিশুদের নামে ৫০০ টাকা কার্ড করে সেই কার্ডে মাসে মাসে টাকা জমা দিলে ১৮ বছর বয়স হলে শিশুরা ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা ফেরত পাবেন। গ্রামের অসংখ্য মহিলা এই প্রলোভনে পা দিয়ে এই কার্ড করেন। বেশ কয়েকমাস এই কার্ডে তারা টাকাও দিয়েছেন। হাতে টাকা না থাকায় সন্তানের কথা ভেবে কেউ গরু, ছাগল বিক্রি করে কেউ আবার গহনা বন্ধক দিয়ে মাসের টাকা দিয়েছেন। এভাবে কয়েকবছর চলার পর তাদের কার্ডে কোন টাকা জমা না পরায় আমানতকারীদের সন্দেহ হয়। তুমিল্লার খোঁজ নিয়ে দেখা যায় বেশকিছুদিন আগেই বাড়িঘর ছেড়ে তারা অন্যত্র চলে গিয়েছে।

এরপর অসহায় মহিলারা টাকা ফেরতের দাবিতে ২০১৮ সালে গোয়ালপোখর পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন। পুলিশ অভিযোগ পাওয়ার পরই ঘটনার তদন্ত শুরু করে। কিচকটোলা গ্রামে তুমিল্লার বাড়িতে গিয়ে দেখা গেছে দীর্ঘদিন বাড়িতে না থাকায় বাড়ির দেওয়াল আগছায় ভর্তি। স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্যার স্বামী জানিয়েছেন, তুমিল্লা দীর্ঘদিন আগেই পরিবাররের সদস্যদের নিয়ে বাড়িঘর ছেড়ে অন্যত্র চলে গেছেন। কোথায় গিয়েছেন, তা তারা জানেন না। গতকাল গোয়ালপোখর থানার সাহাপুরে ব্লক কংগ্রেসের এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। মহিলাদের টাকা ফেরতের দাবিতে বেশ কিছু প্রতারিত মহিলা কংগ্রেস নেতাদের দ্বারস্থ হয়েছিলেন।

গোয়ালপোখরের কংগ্রেস নেতা নাসিম এহসান জানিয়েছেন, গ্রামের বহু মহিলা প্রতারিত হয়েছেন। পুলিশের কাছে অভিযোগ জানাতে গেলে পুলিশ উল্টে মহিলাদের ভয় দেখাচ্ছেন। খুব শীঘ্রই পুলিশ প্রতারকদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন না করলে আগামীদের এই প্রতারিত মহিলাদের নিয়ে বৃহত্তর আন্দোলনে নামার হুমকি দিয়েছেন। গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্যার স্বামী গৌরাঙ্গ মন্ডল জানান, মহিলাদের টাকা ফেরতের জন্য পুলিশ প্রশাসনকেই পদক্ষেপ গ্রহন করতে হবে। বাড়িঘর ছেড়ে অন্যত্র চলে যাওয়ায় তাদের করার কিছুই নেই। গোয়ালপোখর থানার এক পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, সম্প্রতি এই নিয়ে কোনও অভিযোগ জমা পড়েনি। ২০১৮ সালের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযুক্তদের গ্রেফতার করেছিল। তার দু'বছর পর হঠাৎ করে এই অভিযোগ নিয়ে আন্দোলন কেন তৈরী হচ্ছে , তা নিয়ে ধন্ধে পুলিশ।

Uttam Paul

Published by: Shubhagata Dey
First published: January 10, 2021, 5:57 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर