• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • নোট বাতিলের পর চরম বিপাকে ডাকঘর, বালুরঘাটের পোস্ট অফিসে আটকে ৫২ কোটি !

নোট বাতিলের পর চরম বিপাকে ডাকঘর, বালুরঘাটের পোস্ট অফিসে আটকে ৫২ কোটি !

File Photo

File Photo

৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট পরিবর্তন করে চরম বিপাকে পড়েছে বালুরঘাটের ডাকঘর ডিভিশন ৷ কবে এর সুরাহা হবে তা কেউ

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #বালুরঘাট: ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট পরিবর্তন করে চরম বিপাকে পড়েছে বালুরঘাটের ডাকঘর ডিভিশন ৷ কবে এর সুরাহা হবে তা কেউ বলতে পারছেন না ৷ বিপাকে পড়ে ডাকঘরে টাকা পরিবর্তন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ডাকঘর কর্তৃপক্ষ ৷

    কেন্দ্রীয় সরকার ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নেয় ৷ সেই নোট ব্যাঙ্ক এবং ডাকঘরে মাধ্যমে গ্রাহকরা পরিবর্তন করতে পারবেন বলে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ঘোষণা করেছিলেন ৷ মুখ্য ডাকঘর বালুরঘাট ডিভিশনের অধীনে রয়েছে রায়গঞ্জ এবং বালুরঘাটের ৪৪টি সাব পোস্ট অফিস ৷ গত ২২ নভেম্বর পর্যন্ত রায়গঞ্জ বালুরঘাট মিলিয়ে ৭০ কোটি ২০ লক্ষ টাকা জমা পড়লেও পুরো টাকা নিতে ব্যাঙ্ক অস্বীকার করে ৷ রায়গঞ্জ পোস্ট অফিস থেকে ১৩ কোটি, ইসলামপুর পোস্ট অফিস থেকে ৪ কোটি ২৫ লক্ষ টাকা এবং বালুরঘআট পোস্ট অফিস থেকে মাত্র ৯৫ লক্ষ টাকা জমা নেয় ব্যাঙ্ক ৷ বাকি ৫২ কোটি টাকা পোস্ট অফিসে জমা পড়ে রয়েছে ৷

    এই জমা টাকা নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছে ডাকঘর কর্তৃপক্ষ ৷ কারণ, পোস্ট অফিসের নিজস্ব কোনও ভল্ট না থাকায় টাকা গুলো আলমারি কিংবা বস্তাবন্দি করে রেখে দিতে হচ্ছে ৷ পোস্ট অফিসে এই বিপুল পরিমাণ টাকা অরক্ষিত অবস্থায় থাকলেও জেলা পুলিশের তরফ থেকে কোন পুলিশী ব্যবস্থা দেওয়া হচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছেন সুপারিটিডেন্ট অফ পোস্ট মাস্টার নাজমূল হক চৌধুরী ৷ তার অভিযোগ ইসলামপুরে পুলিশ না থাকায় ১৫ নভেম্বর থেকে ২২ নভেম্বর পর্যন্ত ডাক ঘরের কর্মীরা রাত জেগে টাকা পাহাড়া দেন ৷ তাদের এই অসহয়তার কথা প্রশাসনের উচ্চপদস্থ কর্তাদের জানানো হলেও কাজের কাজ কিছুই হয়নি ৷

    স্টেট ব্যাঙ্কের রিজিওনাল ম্যানেজার ওয়াই শ্রীনিবাস রাও জানিয়েছেন, ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের টাকা দিয়ে তাদের চেষ্টা ভর্তি হয়ে যাওয়ার বাইরের টাকা তারা নিতে পারছেন না ৷ বিষয়টাই রিজার্ভ ব্যাঙ্কের কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে ৷ উত্তরদিনাজপুর জেলা পুলিশ সুপার অমিত কুমার রাঠোর জানিয়েছেন, তার কাছে পুলিশের জন্য যে কয়টি আবেদন পত্র জমা পড়েছিল সব গুলিতে পুলিশি ব্যবস্থা করা হয়েছে ৷ ডাকঘর কর্তৃপক্ষের এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন পুলিশ সুপার ৷

    First published: