দ্রুত গতিতে আসছে রেল ইঞ্জিন! প্রাণ বাঁচিয়ে ২জন ঝাঁপালেন নদীতে, ২জনের মৃত্যু

দ্রুত গতিতে আসছে রেল ইঞ্জিন! প্রাণ বাঁচিয়ে ২জন ঝাঁপালেন নদীতে, ২জনের মৃত্যু

স্থানীয় মানুষের অভিযোগ, রেলসেতুর পাশেই অবস্থিত রাধিকাপুর পর্যটন কেন্দ্র। একদল মানুষ পিকনিকে এসে তখন ডিজে বাজিয়ে আনন্দ করছিলেন। এই ডিজের আওয়াজ ও শীতের কুয়াশাচ্ছন্ন সন্ধেয় রেল ইঞ্জিনের আসার শব্দ চাপা পড়ে যায়।

স্থানীয় মানুষের অভিযোগ, রেলসেতুর পাশেই অবস্থিত রাধিকাপুর পর্যটন কেন্দ্র। একদল মানুষ পিকনিকে এসে তখন ডিজে বাজিয়ে আনন্দ করছিলেন। এই ডিজের আওয়াজ ও শীতের কুয়াশাচ্ছন্ন সন্ধেয় রেল ইঞ্জিনের আসার শব্দ চাপা পড়ে যায়।

  • Share this:

#কালিয়াগঞ্জ: রেল ইঞ্জিনের ধাক্কায় প্রাণ গেল ২ গ্রামবাসীর। দুর্ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জের রাধিকাপুরে টাঙ্গন নদীর সেতুতে। বুধবার রাতে এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি ঘটে। রেল পুলিশ মৃতদেহ দুটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রায়গঞ্জ সরকারি মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে গিয়েছে। মৃতরা হলেন জগদীশচন্দ্র রায়, বয়স ২৭ ও ভগলু রায়, বয়স ৫৭ বছর। দুইজনের  বাড়ি ঘটনাস্থলের পাশের গ্রাম রামগঞ্জে।

জানা গিয়েছে, গতকাল, বুধবার, রাত আটটার নাগাদ রাধিকাপুর থেকে একটি রেল ইঞ্জিন কাটিহার দিকে যাচ্ছিল। রামগঞ্জের চারজন বাসিন্দা সেই সময় টাঙ্গন সেতু দিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। সেই সময় দ্রুত গতিতে চলে আসে একটি রেল ইঞ্জিন। ২ জন সেতু থেকে জলে ঝাঁপ দিয়ে পড়ে যান। বাকি দুইজন সেই সুযোগ পাননি। ইঞ্জিনের ধাক্কায় ঘটনাস্থলেই দুইজনের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে এলাকার মানুষজন ছুটে আসেন। খবর পেয়ে রাধিকাপুর রেল পুলিশ কর্মীরা ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন।পুলিশ মৃতদেহ দুটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজে পাঠায়।

এলাকার  তৃণমূল নেতা মহম্মদ ওয়াহব আলী বলেন,  টাঙ্গন নদীর একপারে রামগঞ্জ, অপরপারে রাধিকাপুর। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাংলার মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর এই টাঙ্গন নদীর উপর নতুন সেতু হয়েছে।  বাজারে আসা যাওয়া করতে বহু মানুষ এখনও এই রেলসেতুর উপর দিয়ে যাতায়াত করে। এই  রাস্তা দিয়ে রাধিকাপুর বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিলেন রামগঞ্জের বেশ কয়েকজন। সন্ধেবেলায় কলকাতা এক্সপ্রেস রাধিকাপুর স্টেশন ছেড়ে  যাবার কিছু সময় একটি ইঞ্জিন কাটিহারের দিকে যাচ্ছিল।  রামগঞ্জের চার জন বাসিন্দা যে সময় টাঙ্গন সেতুর মাঝে পড়ে যায়। সেই সময় দ্রুতগতিতে চলে আসে রেলের ইঞ্জিন। প্রাণ বাঁচাতে দু’জন নদীতে লাফিয়ে পড়লেও বাকি দু’জন সেই সুযোগ পাননি। সেতুর উপর দ্রুতগতির ইঞ্জিনের ধাক্কায় ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয় তাদের।

স্থানীয় মানুষের অভিযোগ, রেলসেতুর পাশেই অবস্থিত রাধিকাপুর পর্যটন কেন্দ্র। একদল মানুষ পিকনিকে এসে তখন ডিজে বাজিয়ে আনন্দ করছিলেন। এই ডিজের আওয়াজ ও শীতের কুয়াশাচ্ছন্ন সন্ধেয় রেল ইঞ্জিনের আসার শব্দ চাপা পড়ে যায়।  বছর তিনেক আগে রাধিকাপুরে টাঙ্গন নদীর উপর সেতু চালুর আগে এই এলাকার বাসিন্দারা নদী পারাপারের ব্যবহার করতেন রেলসেতু। এই রেলসেতু দিয়ে নদী পারাপারের সময় এর আগে এমন দুর্ঘনটায় অনেকের প্রাণ হারিয়েছে।

Published by:Pooja Basu
First published:

লেটেস্ট খবর