corona virus btn
corona virus btn
Loading

ঘোষণাই সার! শিলিগুড়িতে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে পুরনো সিটি অটো, টোটো

ঘোষণাই সার! শিলিগুড়িতে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে পুরনো সিটি অটো, টোটো

ঠিক ছিল ১লা জানুয়ারি থেকে নতুন প্রযুক্তির গাড়ি নামবে রাস্তায়

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: ঘোষণাই সার! শিলিগুড়িতে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে পুরনো সিটি অটো এবং টোটো। শহরকে দূষণমুক্ত রাখতে ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে জেলাশাসক এবং পরিবহন দপ্তরের আধিকারীকদের নিয়ে বৈঠক করেন রাজ্যের পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব। বৈঠকের পর মন্ত্রী ঘোষণা করেন ১লা জানুয়ারি থেকে শহরের প্রধান রাস্তায় কোনও পুরনো সিটি অটো এবং টোটো চলবে না। আইন ভাঙলেই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কিন্তু আইনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে সুকনা থেকে কোর্ট মোড়, ফুলবাড়ি থেকে চম্পাসারি শহরজুড়েই অবাধেই চলছে পুরনো গাড়ি। সিটি অটো কালো বিষাক্ত ধোঁয়া ছড়িয়ে চালিয়ে যাচ্ছে। অথচ মাস কয়েক আগেই প্রশাসন জানিয়ে দেয় নতুন গাড়ি নামাতে হবে। সেইমতো পরিবহন দপ্তরে আবেদনও প্রচুর জমা পড়ে। সিটি অটো বদলাতে চেয়ে ১২০০ আবেদন জমা পড়ে। কিন্তু বাস্তবে অর্ধেকও পরিবর্তন হয়নি। তেমনি টোটো বদলের জন্যে ২৪০০ আবেদন জমা পড়েছিল। পরিবর্তে শহরের রাস্তায় নেমেছে ৯০০ নতুন টোটো। প্রশাসনের বিরুদ্ধে ঢিলেমির অভিযোগ উঠেছে। নতুন ইংরেজী বছরের প্রথম দিন থেকে যে আইন লাগু হওয়ার কথা ছিল তা ১০ দিন পরও সেই তিমিরেই। ফলে দূষণ বাড়ছে শহরে। সিটি অটোর কালো ধোঁয়ায় মুখ ঢাকছে শহর। সরকারী নির্দেশিকা উপেক্ষা করেই দিব্বি চলছে পুরনো ৩ এবং ৪ চাকার গাড়ি। মাঝে কঠোর হয়েছিল প্রশাসন। কয়েকশো পুরনো টোটো বাজেয়াপ্ত করে বুলডোজার দিয়ে গুঁড়িয়েও দেওয়া হয়। শিলিগুড়িতে আধুনিক বি এস ফোর মডেলের ম্যাক্সিকাব অটো এবং অত্যাধুনিক টোটো চালুর প্রস্তাব পাস করা হয়। এজন্যে রাজ্য সরকার ভর্তুকি দেবে বলে ঘোষণাও করে। সেইমতো কিছু সংখ্যক গাড়ি নেমেছেও। কিন্তু আবেদন যারা করেছিল, সেইসব বাকি গাড়ি কবে নামবে? পরিবহন দপ্তর কবে নড়েচড়ে বসবে? প্রশ্ন তুলছে শহিরবাসী। সিটি অটো এবং টোটো মালিক, চালকদের সংগঠনও রাজ্যের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানালেও বাস্তবে কেন হচ্ছে না সে বিষয়ে মুখে কুলুপ সব পক্ষেরই।

First published: January 10, 2020, 11:47 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर