Home /News /north-24-parganas /
North 24 Parganas News: পাট পাতার চা খেয়েছেন? এবার পাট পাতার চা পাওয়া যাবে বাজারে! অভিনব আবিষ্কার!

North 24 Parganas News: পাট পাতার চা খেয়েছেন? এবার পাট পাতার চা পাওয়া যাবে বাজারে! অভিনব আবিষ্কার!

পাট পাতা থেকেই তৈরি হবে চা

পাট পাতা থেকেই তৈরি হবে চা

North 24 Parganas News:  আর শুধু মাত্র দার্জিলিং টি নয়! এবার বাজার কাঁপাবে দক্ষিণবঙ্গের পাট পাতা চা! জানুন বিশদে !

  • Share this:

    #উত্তর ২৪ পরগনা: পাট পাতার চা! এও সম্ভব! নীলকন্ঠ, জবা ফুলের চায়ের পর এবার পাট পাতার চা- ICAR-NINFET এর গবেষকরা পাট পাতার চা তৈরি করে সাড়া ফেলে দিয়েছেন, গবেষকরা জানাচ্ছেন আগামী দিনে বিশেষ মার্কেট পেতে চলেছে পাট পাতার চা, যাতে রয়েছে প্রচুর স্বাস্থ্যগুণ। পাট গাছ এতদিন সোনালী তন্তুর জন্য চাষ করলেও, বর্তমানে পাট চাষ থেকে বিকল্প রোজগারের ভাবনা যোগাচ্ছে সরকার। আর তা নিয়েই উত্তর ২৪ পরগনার গাইঘাটার বিলচাতুরিয়া গ্রামে এক বিশেষ কর্মশালার আয়োজন করা হয়।

    বিষয়টি নিয়ে কাজ করা গবেষক দলের সদস্য জানান, পাট শাক আমরা খেয়ে থাকি। কিন্তু, আমরা চিন্তা করে দেখেছিলাম যে আমাদের বিভিন্ন ধরনের দীর্ঘদিনের রিসার্চের পর আমাদের মনে হয়েছিল, যে এই পাট শাকের উপরেও যদি আমরা কিছু করতে পারি এবং সেখান থেকে যদি হারবাল ড্রিঙ্ক টাইপের কিছু বানানো যেতে পারে। যেটা চায়ের মতো করে যদি আমরা খেতে পারি। পাট শাক দুদিন তিনদিনের বেশি রাখা যায় না। নষ্ট হয়ে যায় পচে যায়। এই পাঠ যদি আমরা প্রসেস করতে পারি, সে ক্ষেত্রে এই পাট শাক আমরা যে কারণে খাই সেই গুণগুলো আমরা নিতে পারি। সেখান থেকেই পাট পাতা শুকিয়ে হারবাল ড্রিঙ্ক তৈরি করার চিন্তা ভাবনা। যা চায়ের মত করে খাওয়া যায়।

    পাট পাতা থেকে তৈরি চা- এর মধ্যে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে। এন্টি এজিং হিসেবে প্রচুর পরিমাণে কাজ করে। পাশাপাশি, প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন রয়েছে। প্রচুর পরিমাণে মিনারেলসও রয়েছে। প্রোটিনও থাকছে, রয়েছে পলিফেনন। যেগুলো খেলে মানুষের শরীরের পক্ষে খুবই উপকারী বলে মত বিশেষজ্ঞদের। ফলে, হার্ট ভালো থাকবে। পাশাপাশি আরও পরীক্ষা-নিক্ষা চলছে। অ্যানিমিয়া, ডায়াবেটিস, ঘুম কম এর ক্ষেত্রেও উপকারী এই পাট পাতার চা। পাট চাষে আগ্রহী চাষিরাও ইতিমধ্যে নিজেদের হাতে তৈরি ফসল থেকে যে এরকম কিছু হতে পারে সেটা দেখে উৎসাহিত। বহু চাষী নিজেরাই এই চা খেয়ে দেখছেন এবং উপকার হচ্ছে কিনা সেই বিষয়ের উপর লক্ষ্য রাখছেন। গ্রিন টি, ব্ল্যাক টি সহ অন্যান্য যে কমার্শিয়াল চা বাজারে রয়েছে তার থেকে গুণগত মানের দিক থেকে পাট পাতার চা সমতুল্য বলেই মনে করছেন বৈজ্ঞানিকরা।

    পাট গাছের উপরের দিকের পাতাগুলোকে ফসলের ক্ষতি না করে বিশেষ উপায়ে সংরক্ষণ করা হয়। ফলে, পাটের তন্তুর বা ফাইবারের কোন ক্ষতি হয় না। পাট গাছের উপরের ও মাঝের পাতা সংরক্ষণ করে শুকিয়ে নিতে হয়। এরপর শুকনো ওই পাতা কে বিশেষ পদ্ধতিতে প্রসেস করে তৈরি করা হয় পাট পাতার চা। তারপরই সেটা‌ই চায়ের মতন ব্যাপার আসে বলে জানান ডঃ আর কে ঘোষ আইসিআর নিনফেট বিশেষজ্ঞ দলের সদস্য। বাণিজ্যিকভাবে না হলেও এখন বহু জায়গায় এই চা পাওয়া যাচ্ছে।

     রুদ্র নারায়ণ রায়

    Published by:Piya Banerjee
    First published:

    Tags: Bangla News, North 24 Parganas news, Tea

    পরবর্তী খবর