Home /News /north-24-parganas /
Bangla News: সরকারি হাসপাতালে আয়ার হাতে মার খেতে হল অসুস্থ বৃদ্ধাকে! ঘটনায় চাঞ্চল্য

Bangla News: সরকারি হাসপাতালে আয়ার হাতে মার খেতে হল অসুস্থ বৃদ্ধাকে! ঘটনায় চাঞ্চল্য

অশোকনগর স্টেট জেনারেল হসপিটাল

অশোকনগর স্টেট জেনারেল হসপিটাল

Bangla News: সরকারি হাসপাতালে ভর্তি অসুস্থ রোগীর গায়ে হাত, আয়া মাসির ভূমিকায় উঠছে প্রশ্ন, কড়া শাস্তির দাবি রোগীর পরিজনদের

  • Share this:

    #উত্তর ২৪ পরগনা : অশোকনগর হাসপাতালে ভর্তি রোগীর গায়ে হাত তোলার অভিযোগে কর্তব্যরত আয়াদের চরম হুঁশিয়ারি দিলেন রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান ধীমান রায়। এ ধরনের ঘটনা কখনোই মেনে নেওয়া  হবে না বলে জানান তিনি। মানুষ অসুস্থ হলে ছুটে যায় হাসপাতালে, কিন্তু হাসপাতালে ভর্তি থাকা অবস্থায় ৬২ বছরের বৃদ্ধকে মার খেতে হল আয়া মাসির হাতে। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনা জেলার অশোকনগর রাজ্য সাধারণ হাসপাতালে। অশোকনগর কাজলা বনবনিয়া এলাকার বাসিন্দা গগন দাস গত শনিবার শ্বাসকষ্ট জনিত সমস্যা নিয়ে অশোকনগর হাসপাতালে ভর্তি হন। অভিযোগ রাতে আয়া মাসি মালা সমাদ্দারকে ডাকলে, রোগীকে প্রথমে ধাক্কা দিয়ে বেডের উপর ফেলে দেয় ও পরে মুখে চড় মারে। সকালে গগন দাসের ভাই মঙ্গল দাস যখন দেখা করতে যান সেই সময় পুরো ঘটনা খুলে বলেন গগন দাস ও তার পাশে ভর্তি থাকা রোগীরা। এরপরই, অশোকনগর স্টেট জেনারেল হাসপাতাল সুপারকে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন মঙ্গল দাস।

    আর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই প্রশ্ন উঠছে! কিভাবে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য আসা অসুস্থ রোগীর গায়ে হাত তুলতে পারেন, রোগীদের সেবার জন্য টাকার বিনিময়ে নিযুক্ত আয়া মাসি।মঙ্গল দাস জানায়, প্রত্যেকদিন আয়া মাসিদের ৩০০ টাকা দিতে হয়। সকালে দেড়শো, বিকালে দেড়শো। গরিব মানুষ সরকারি হাসপাতালে আসে ফ্রি চিকিৎসা পাওয়ার জন্য। সেখানে একাধিক ভাবে টাকা খরচ হচ্ছে, তাছাড়াও বৃদ্ধ রোগীকে মারধর করেছে।

    যদিও ভর্তি থাকা অন্যান্য রোগীর পরিবারেরও দাবি, এটা নতুন কিছু নয়। টাইম মতো আয়া মাসিরা টাকা নিয়ে নেয় কিন্তু সঠিক পরিষেবা দেয় না রোগীদের। এক জন আয়া মাসি ১০ থেকে ১৫ জন রোগীর দেখভালের দায়িত্ব নেন। কিন্তু যখন রোগীর প্রয়োজন হয় তখন ভালো ব্যবহার টুকুও করেন না। দীর্ঘদিন ধরেই এই সমস্যায় জর্জরিত হচ্ছেন ভর্তি থাকা রোগীরা। দাবি তোলা হচ্ছে, এই পরিস্থিতি চলতে থাকলে রোগীর পরিবারের অন্তত এক জনকে হাসপাতালের ভেতরে রাখার ব্যবস্থা করুক কর্তৃপক্ষ। না হলে উপযুক্ত কঠোর শাস্তির দাবিও জানানো হয় এ রোগের পরিজনদের তরফ থেকে।

    বিষয়টি নিয়ে রোগী কল্যাণ সমিতির সভাপতি ধীমান রায় জানায়,যদি ঘটনা সত্যি হয়ে থাকে অত্যন্ত নিন্দনীয় ঘটনা উপযুক্ত ব্যবস্থা নেয়া হবে। হাসপাতাল সুপার রামকৃষ্ণ হেমব্রম জানান, একটি লিখিত অভিযোগ জমা পড়েছে। অত্যন্ত দুঃখজনক ঘটনা। ঘটনার তদন্ত করা হবে, খতিয়ে দেখে যথাযথ শাস্তিরও আশ্বাস দেন। অভিযুক্ত আয়া মাসি অবশ্য ঘটনার কথা অস্বীকার করেছেন।

    Rudra Narayan Roy

    Published by:Piya Banerjee
    First published:

    Tags: Bangla News, Barasat, North 24 Parganas news

    পরবর্তী খবর