• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • চপ্পল ছুড়েছে, নিজেই নাক ফাটিয়ে আমায় মিথ্যে দোষ দিচ্ছে! মুখ খুললেন Zomato Delivery Boy

চপ্পল ছুড়েছে, নিজেই নাক ফাটিয়ে আমায় মিথ্যে দোষ দিচ্ছে! মুখ খুললেন Zomato Delivery Boy

এরপর আইনি মামলায় ২৫ হাজার টাকা খরচ হবে তার, এটাই আফসোস কমরাজের৷

এরপর আইনি মামলায় ২৫ হাজার টাকা খরচ হবে তার, এটাই আফসোস কমরাজের৷

এরপর আইনি মামলায় ২৫ হাজার টাকা খরচ হবে তার, এটাই আফসোস কমরাজের৷

  • Share this:

    #বেঙ্গালুরু: অনলাইন খাবার ডেলিভারি সংস্থা Zomato-র ডেলিভারি বয়ের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ এনেছিলেন বেঙ্গালুরুর গ্রাহক হিতেসা চন্দ্রানী৷ তাঁকে মারধর করেছে জোমাটোর ডেলিভারি বয়, এমনই অভিযোগ করেন তিনি৷ নিজের রক্তাক্ত চোট খাওয়া নাকের ভিডিও তিনি পোস্ট করেন সোশ্যাল মিডিয়ায়৷ যা রাতারাতি ভাইরাল হয়ে যায়৷ যার বিরুদ্ধে ছিল অভিযোগ, সেই কমরাজ এবার মুখ খুললেন৷ জানালেন যে, তার সঙ্গেই অভব্যতা করেছেন চন্দ্রানী৷ তাকে চপ্পল ছুড়ে মেরেছেন এবং তাঁকে মারধর করতে গিয়ে নিজের হাতের আংটিতে নিজেই আহত হন চন্দ্রানী৷ এমনই জানিয়েছেন কমরাজ৷ তাই নিজেকে নির্দোষ বলে দাবি কমরাজের৷ তবে চন্দ্রানীর অভিযোগের জন্য যে এবার তাকে আইনি লড়াইয়ে টাকা খরচ করতে হবে, তা নিয়ে আফসোস করেছেন তিনি৷

    ঘটনাটি ঘটেছে বেঙ্গালুরুতে । জানা গিয়েছে, চন্দ্রানী নামের এক গ্রাহক Zomato থেকে খাবার অর্ডার করেছিলেন । কিন্তু খাবার পৌঁছাতে প্রায় ১ ঘণ্টা দেরি হয় । অর্ডার দেওয়ার সময় দেখানো হয়েছিল দুপুর সাড়ে ৩টে নাগাদ খাবারটি তাঁর কাছে পৌঁছে যাবে । কিন্তু খাবার নিয়ে বিকেলের সাড়ে ৪টের পর এসে পৌঁছায় ডেলিভারি বয় । ইতিমধ্যেই Zomato-র কাস্টমার কেয়ারে কথা বলেন চন্দ্রানী । তাঁর অভিযোগ এই দেরির কারণে হয় তাঁর খাবার বিনামূল্যে দেওয়া হোক, অথবা খাবার ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া হোক। কমরাজ জানিয়েছেন যে, তিনি পৌঁছনো মাত্রই চন্দ্রানী তার উপর চিৎকার করতে শুরু করেন৷ লিফ্ট পর্যন্ত তার দিকে তেড়ে আসেন চন্দ্রানী৷ নিজেকে বাঁচাতে কোনও মতে সিঁড়িতেই নেমে আসেন কমরাজ৷ এমন সময় কমরাজকে মারতেও আসেন চন্দ্রানী, অভিযোগ কমরাজের৷ এবং তিনি জানান যে, সেই মারধরের সময় চন্দ্রানীর নিজের আঙুলের আংটিতে কেটে যায় তাঁর নাক৷ রক্ত বেরতে থাকে৷ তবে কোনও সিসিটিভি না থাকায়, নিজের পক্ষে প্রমাণ হিসেবে কিছু তুলে ধরতে পারছেন না কমরাজ৷

    পুলিশে অভিযোগ জানানোর ফলে, তাকে জেরা করা হয়৷ যদিও থানায় তাঁর কোনও সম্মানহানি হয়নি বলে দাবি কমরাজের৷ কিন্তু এরপর আইনি মামলায় ২৫ হাজার টাকা খরচ হবে তার, এটাই আফসোস কমরাজের৷

    Published by:Pooja Basu
    First published: